পৌরসভা নির্বাচন

বড়লেখায় সম্ভাব্য প্রার্থীদের দৌড়ঝাঁপ

স্টাফ রিপোর্টার, মৌলভীবাজার থেকে

বাংলারজমিন ২৮ নভেম্বর ২০২০, শনিবার

ভোটের দিনক্ষণ চূড়ান্ত হওয়ায় বসে নেই প্রার্থীরা। দলীয় মনোনয়ন আর ভোটারদের মন জয় করতে সবাই ব্যস্ত সময় পার করছেন। জেলার ৫টি পৌরসভার মধ্যে প্রথম ধাপে নির্বাচনে ঠাঁই পেয়েছে বড়লেখা। এ কারণে জেলার বড়লেখা পৌরসভার ভোটার ও প্রার্থীদের মধ্যে নির্বাচন ঘিরেই চলছে নানা আলোচনা। নির্বাচনের প্রথম ধাপের তফসিল ঘোষণার পরপরই মৌলভীবাজারের সীমান্তবর্তী বড়লেখায় ছড়াচ্ছে ভোটের আমেজ। তফসিলের পরই আলোচনা হচ্ছে- কে পাচ্ছেন ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন। ২৮শে ডিসেম্বর ভোট হচ্ছে বড়লেখা পৌরসভার। দলের মনোনয়ন পেতে আওয়ামী লীগের সম্ভাব্য প্রার্থীরা ছুটছেন জেলা ও কেন্দ্রে।
অর্ধ ডজন মনোনয়ন প্রত্যাশীরা নানাভাবে মনোনয়ন পেতে তদ্বিরে রয়েছেন ব্যস্ত। যে যার মতো কৌশলে চালাচ্ছেন মনোনয়ন যুদ্ধ। আর বিএনপিতে মনোনয়ন প্রত্যাশী দু’জন। নিবন্ধন বাতিল হওয়া জামায়াত গত নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী দিয়েছিল। এবারের পৌরসভা নির্বাচন কেন্দ্র করে তাদের স্বতন্ত্র কোনো প্রার্থীর দৃশ্যমান প্রচারণা নেই। তফসিল ঘোষণার আগ থেকে সম্ভাব্য প্রার্থীরা করোনাকালীন স্বাস্থ্যবিধি মেনেই নিজ নিজ মহল্লার ভোটারদের নিয়ে মতবিনিময় ও কর্মী সমাবেশ করছেন। কেউ কেউ আবার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও প্রচারণা চালাচ্ছেন। ভোটারদের মন জয় করতে বিভিন্ন সামাজিক অনুষ্ঠানে অংশ নিয়ে তাদের সঙ্গে কুশল বিনিময় করছেন। সেই সঙ্গে দলের মনোনয়ন পেতে ব্যানার-ফেস্টুন দিয়ে কেন্দ্রীয় নেতাদের দৃষ্টি আকর্ষণের চেষ্টা অব্যাহত রেখেছেন। আওয়ামী লীগের সম্ভাব্য মনোনয়ন প্রত্যাশীদের মধ্যে রয়েছেন বর্তমান মেয়র ও বড়লেখা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আবুল ইমাম মো. কামরান চৌধুরী, বড়লেখা উপজেলা পরিষদ ভাইস চেয়ারম্যান ও উপজেলা যুবলীগের সভাপতি সভাপতি মোহাম্মদ তাজ উদ্দিন, বড়লেখা পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক মো.আব্দুল আহাদ, কাতারস্থ জালালাবাদ অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের সভাপতি আওয়ামী লীগ নেতা মো. কফিল উদ্দিন, প্রয়াত বড়লেখা পৌরসভার মেয়র আব্দুল মালিকের ছোটভাই আওয়ামী লীগ নেতা ও ব্যবসায়ী হাজী আব্দুন নুর, পৌরসভার ২ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর ও উপজেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক জেহিন সিদ্দিকী। এসব প্রার্থীদের থেকে কে পাচ্ছেন আওয়ামী লীগের দলীয় টিকিট এ নিয়ে চলছে নানা গুঞ্জন ও কৌতূহল। তবে নৌকার টিকিট যে পাবেন সকলে তার পক্ষে কাজ করবেন। এমনটা জানিয়েছেন দলের উপজেলার একাধিক দায়িত্বশীল নেতা। বিএনপি থেকে সম্ভাব্য প্রার্থী হচ্ছেন সাবেক মেয়র ও বড়লেখা উপজেলা বিএনপির যুব বিষয়ক সম্পাদক অধ্যাপক মো. ফখরুল ইসলাম, গেল পৌরসভা নির্বাচনে বিএনপির প্রার্থী বড়লেখা পৌর বিএনপির সভাপতি মো. আনোয়ারুল ইসলাম এবার দলীয় মনোনয়ন প্রচেষ্টা চালাচ্ছেন। আর স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে তরুণ সমাজসেবক ব্যবসায়ী সাইদুল ইসলাম আলোচনায় আছেন।

আপনার মতামত দিন

বাংলারজমিন অন্যান্য খবর

চৌদ্দগ্রামে ৩ শতাধিক অসহায় নারী-পুরুষের মাঝে কম্বল বিতরণ ব্যাংকার্স সোসাইটির

১৬ জানুয়ারি ২০২১

ব্যাংকিং সেক্টরে কর্মরত কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম উপজেলার কৃতী সন্তানদের সমন্বয়ে গঠিত সংগঠন ‘চৌদ্দগ্রাম ব্যাংকার্স সোসাইটি (সিবিএস)’-এর ...

সিলেট জেলা আইনজীবী সমিতির নির্বাচনে ফের সভাপতি এটিএম ফয়েজ

১৬ জানুয়ারি ২০২১

সিলেট জেলা আইনজীবী সমিতির নির্বাচনে ফের সভাপতি হয়েছেন এটিএম ফয়েজ উদ্দিন। বৃহস্পতিবার দিনভর ভোটগ্রহণ শেষে ...

বেলাবোতে অগ্নিকাণ্ডে ৭ দোকান ছাই

১৫ জানুয়ারি ২০২১

বেলাবোতে অগ্নিকাণ্ডে ৭টি দোকান পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। শুক্রবার সকালে বেলাবো উপজেলার বেলাবো সদর বাজারে ...



বাংলারজমিন সর্বাধিক পঠিত



ভাড়া না পেয়ে ৫ দিন অবরুদ্ধ

তালাবদ্ধ অবস্থায় শিশুর মৃত্যু

DMCA.com Protection Status