প্রস্তাবিত ড্যাপ কার্যকর হলে রাজধানীতে দুর্ভোগ আরো বাড়বে: স্থপতি ইনস্টিটিউট

স্টাফ রিপোর্টার

শেষের পাতা ২৫ নভেম্বর ২০২০, বুধবার | সর্বশেষ আপডেট: ৬:০০ পূর্বাহ্ন

ঢাকা মহানগর বিশদ অঞ্চল পরিকল্পনার খসড়ার (২০১৬-২০৩৫) নানা অসঙ্গতি তুলে ধরে এবং কার্যকর ড্যাপ বাস্তবায়নের জন্য পরামর্শ দিয়েছে বাংলাদেশ স্থপতি ইনস্টিটিউটের স্থপতিরা। গতকাল রাজধানীর আগারগাঁওয়ে প্রতিষ্ঠানের নিজস্ব ভবনে এক সংবাদ সম্মেলন তারা এ পরামর্শ দেন। সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, খসড়া দলিলটিতে অনেক বিভ্রান্তিকর তথ্য এসেছে যা ঢাকার জন্য অনেক ক্ষতির কারণ হয়ে দাঁড়াবে। দ্রুত নগরায়ন, জলবায়ুু পরিবর্তন ও প্রযুক্তিগত রূপান্তরের কারণে ভবিষ্যতের ঢাকা হওয়া উচিত মহিলা, শিশু ও ভিন্নভাবে সক্ষমদের জন্য একটি অন্তর্ভুক্তিমূলক শহর। সকল আয়ের মানুষকে সমান অধিকার এবং সুবিধা দেয়া উচিত। জলবায়ু পরিবর্তন এবং মহামারি মোকাবিলার জন্য একটি অভিযোজিত এবং স্থিতিস্থাপক শহর। উন্নয়নের লক্ষ্য অর্জনের জন্য স্বাস্থ্যসম্মত প্রজন্ম তৈরির জন্য ঢাকা একটি স্বাস্থ্যকর শহর হওয়া উচিত। সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশ স্থপতি ইনস্টিটিউটের সভাপতি স্থপতি জালাল আহমেদ বলেন, প্রস্তাবিত ড্যাপে অনেক অসঙ্গতি।
এসব অসঙ্গতির কথা আমরা এলজিআরডি মন্ত্রীকে জানিয়েছি। তার সঙ্গে এ বিষয়ে কথা হয়েছে। তিনি বলেছেন, এ বিষয়ে আমাদের প্রস্তাবনাগুলো যুক্ত করবেন।    

স্থপতি কাজী গোলাম নাসির বলেন, ঢাকা মহানগরীর ইমারত নির্মাণ বিধিমালা ২০০৮-এর আবাসিক ভবনের পার্কিংয়ের বাধ্যবাধকতা উঠিয়ে দেয়ার প্রস্তাব করা হয়েছে। ফলে ভবিষ্যতে সড়কের ওপর গাড়ি পার্কিংয়ের মাধ্যমে সড়ক অবকাঠামো বা সড়ক গণপরিসর সংকোচনের সম্ভাবনা তৈরি হবে। এটা তো হতে পারে না।

স্থপতি ইকবাল হাবিব বলেন, প্রস্তাবিত ড্যাপ বাস্তবায়িত হলে অচল হবে ঢাকা। তাই ঢাকা মহানগর বিশদ অঞ্চল পরিকল্পনার খসড়ার প্রস্তাবনাগুলো থেকে অনেক প্রস্তাবনা বাদ দিতে হবে। নতুন করে ভাবতে হবে। যেসব আমাদের পরিবেশ ও জলাশয়ের ক্ষতি করবে তা যেন কার্যকর করা না হয়।
একটা নগরীকে তিলে তিলে কীভাবে আমরা ধ্বংস করে ফেলছি। জলাশয় বন্ধ করে হাইরাইজ করছি। তিনি বলেন, হাইরাইজ করতে নিষেধ করবো না। তবে অবশ্যই তা প্রকৃতি নষ্ট করে নয়।
নগর পরিকল্পনাবিদ স্থপতি ইকবাল হাবিবের সঞ্চালনায় সংবাদ সম্মেলনে আরো বক্তব্য রাখেন স্থপতি আবু সাইদ এম আহমেদ, সহ-সভাপতি স্থপতি এহসান খান, স্থপতি ইশতিয়াক জহির, স্থপতি ফরিদা নিলুফার, স্থপতি মেরিনা তাবাস্‌সুম প্রমুখ।

আপনার মতামত দিন

শেষের পাতা অন্যান্য খবর

ঢাবি স্বাস্থ্য অর্থনীতি ইনস্টিটিউটের জরিপ

৮৪ শতাংশ লোক টিকা নিতে আগ্রহী, তবে...

২৭ জানুয়ারি ২০২১

বিনামূল্যে দেয়া হলে ৮৪ শতাংশ মানুষ টিকা নিতে আগ্রহী। কিন্তু বেশির ভাগ লোকই টিকাদান কর্মসূচি ...

স্মরণসভায় বক্তারা

মিজানুর রহমান খান সাংবাদিকতায় অনুকরণীয় হয়ে থাকবেন

২৭ জানুয়ারি ২০২১

বাংলাদেশ, পাকিস্তান ও আফগানিস্তান ভ্রমণে যুক্তরাষ্ট্রের সতর্কতা

২৭ জানুয়ারি ২০২১

বাংলাদেশ, পাকিস্তান ও আফগানিস্তানে নাগরিকদের ভ্রমণের ক্ষেত্রে সতর্কতা জারি করেছে যুক্তরাষ্ট্র। ভ্রমণ সতর্কতা বিষয়ক এক ...

করোনায় আরো ১৪ জনের মৃত্যু

২৭ জানুয়ারি ২০২১

দেশে করোনায় গত ২৪ ঘণ্টায় আরো ১৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে সরকারি হিসাবে এখন ...

আসামির সঙ্গে নারী সঙ্গ

জেলকোড অনুযায়ী কারা কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা

২৭ জানুয়ারি ২০২১

জলবায়ু পরিবর্তন

বাংলাদেশসহ সহযোগী রাষ্ট্রগুলোকে নিয়ে বৃটেনের নতুন উদ্যোগ

২৬ জানুয়ারি ২০২১

জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে সব থেকে বেশি হুমকিতে থাকা দেশগুলোকে সাহায্য করতে একসঙ্গে কাজ করবে বৃটেন, ...

বইমেলা ১৮ই মার্চ

২৬ জানুয়ারি ২০২১

ভাষার মাসে হচ্ছে না এবারের বইমেলা। প্রাণঘাতী করোনা পিছিয়ে দিয়েছে চিরায়ত ফেব্রুয়ারির অমর একুশে গ্রন্থমেলা। ...

১০ বছরে শিক্ষার্থী বেড়েছে তিনগুণ

যুক্তরাষ্ট্রে পড়ছে ৮৮০০ বাংলাদেশি

২৬ জানুয়ারি ২০২১

করোনায় আরো ১৮ জনের মৃত্যু শনাক্ত ৬০২

২৬ জানুয়ারি ২০২১

দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরো ১৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে এখন ...

কুষ্টিয়ার এসপি’র ক্ষমা প্রার্থনা

প্রিজাইডিং অফিসারকে নিরাপত্তা দেয়ার নির্দেশ

২৬ জানুয়ারি ২০২১

পুলিশকে কথায় নয়, কাজে পটু হতে হবে। পুলিশ যাতে মানুষের বন্ধু হয়- সেটা করতে হবে। ...



শেষের পাতা সর্বাধিক পঠিত



১০ বছরে শিক্ষার্থী বেড়েছে তিনগুণ

যুক্তরাষ্ট্রে পড়ছে ৮৮০০ বাংলাদেশি

দু’জনের স্বীকারোক্তি

বন্ধুদের হাতে খুন সিলেটের নাঈম

DMCA.com Protection Status