জনস্বাস্থ্য ইনস্টিটিউট পরিচালকের নির্দেশনা-

নারী কর্মীদের হিজাব, পুরুষদের টাকনুর ওপরে পোশাক পরতে হবে

অনলাইন ডেস্ক

অনলাইন ২৯ অক্টোবর ২০২০, বৃহস্পতিবার, ৬:২০ | সর্বশেষ আপডেট: ২:২৫

জনস্বাস্থ্য ইনস্টিটিউটের পরিচালক ডা. মুহাম্মদ আব্দুর রহিম তার অফিসের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ড্রেস কোড নির্ধারণ করে বিজ্ঞপ্তি জারি করেছেন। গতকাল বুধবার এক বিজ্ঞপ্তিতে তিনি লিখেছেন, অত্র ইনস্টিটিউটের সকল কর্মকর্তা কর্মচারীদের অবগতির জন্য জানানো যাচ্ছে যে, অফিস চলাকালীন সময়ে মোবাইল সাইলেন্ট/বন্ধ রাখা এবং মুসলিম ধর্মাবলম্বীদের জন্য পুরুষ টাকনুর ওপরে এবং মহিলা হিজাবসহ টাকনুর নিচে কাপড় পরিধান করা আবশ্যক এবং পর্দা মানিয়া চলার জন্য নির্দেশ প্রদান করা হলো। তার নির্দেশনা জারির পর নানা ধরণের আলোচনা-সমালোচনা হচ্ছে। বলা হচ্ছে তিনি এমন অফিস আদেশ জারি করতে পারেন না বলে সরকারি চাকরির বিধি অনুযায়ি। এই আদেশের বিষয়ে ডা. মুহাম্মদ আব্দুর রহিম সাংবাদিকদের বলেন, ধর্মীয় অনুশাসন মেনে চলার জন্য তিনি নির্দেশ দিয়েছেন। টাকনুর ওপরে যদি পুরুষ কাপড় পড়ে তাহলে তার কোনও গুনাহ নাই, টাকনুর নিচে পরলে সে কবিরা গুনাহ করলো। একইভাবে নারীদের জন্যও সেটা প্রযোজ্য।

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

Md.Mosharaf hossin

২০২০-১১-০১ ১২:৪৭:১২

khubi valo diction.sara Bangladesh e government er uchit ai diction dewa

Mohsin ahmed

২০২০-১০-৩১ ০১:১৪:৩৩

যাযাকাল্লাহু খায়ের। আল্লাহ উনার উপর রহমত নাযিল করুন। ওনার মত সব অফিসে যদি ইসলামি অনুশাসন মানা হত তাহলে কতই না উত্তম হত।

খোন্দকার জিললুর রহমা

২০২০-১০-৩০ ০০:৪৮:০৪

এটা সব অফিসেই পালন করা উচিত.....!!!

Nazmul

২০২০-১০-২৯ ২০:৪৫:১৮

ভাল কাজের জন্য সাধুভাত জানাই।ধর্মী ও অনুশাসন মানলে দেশে ধর্শন,পরকীয়া,নারীনিরজাতন, বেভীচার এমনিতে বন্দ হয়ে যাবে। আর যারা এর বিরোধীতা করবে তাদের চরিএে ভালো না।

মোঃ আজিজুল হক

২০২০-১০-২৯ ০৯:৫৫:৩৯

যাযাকাল্লাহু খায়ের। আল্লাহ উনার উপর রহমত নাযিল করুন এবং উনার মত অন্যান্য মুসলমান কর্মকর্তারা ও যেন তাদের অফিসে ইসলামী বিধান চালু করতে পারেন আল্লাহ সেই তৌফিক দান করেন।

Tofazzel Hossain

২০২০-১০-২৯ ২২:৫৪:৩৫

Very good decision. I salute you sir

মোঃ ফরহাদ মিয়া

২০২০-১০-২৯ ০৮:১৭:৩৪

স্যারকে অসংখ্য ধন্যবাদ।

মোঃ মজিবুর রহমান

২০২০-১০-২৯ ০৭:৩৬:১৭

যে দেশের ৯৮ ভাগ মুসলিম এবং কর্মক্ষেত্রেও অধিকাংশ মুসলিম সে দেশে মুসলিমদের এরকম আইন বাস্তবায়ন করা জরুরী। ধন্যবাদ ।

Bhoi Nai

২০২০-১০-২৯ ২০:২৭:০৩

The director is a nut case. He thinks that he is the owner of the institute. He does not know that he has to abide by the laws of the land. Nuts!!!

মোঃমজিবর রহমান মিঠু

২০২০-১০-২৯ ০৭:১৩:২৫

খুব ভাল সিদ্ধান্ত সাধুবাদ জানাই

Md. Harun al-Rashid

২০২০-১০-২৯ ২০:০৮:০৮

এক্ষেত্রে সাবিল ও হেকমত অবলম্বন করে পরিচালকের সর্নিবদ্ধ মৌখিক অনুরোধ বেশী কার্যকর হতো আর ঝামেলাও এড়ানো যেত। অদক্ষ লোকের হাতে ভাল যন্ত্রও অকেজো হয়ে যায়।

Md. Golam Soroar

২০২০-১০-২৯ ০৬:৫৭:৫৪

Very good

Haytun Nabi

২০২০-১০-২৯ ০৬:৫৪:২৩

মুসলমানদের জন্যে অবশ্যই একটি ভালো উদ্যোগ ও উপলব্ধি । কারণ এটার জন্য পরকালে কঠিন শাস্তির মুখোমুখি হতে হবে ।

Mnk

২০২০-১০-২৯ ০৬:৩৯:৫৬

Very good

জামাল

২০২০-১০-২৯ ০৬:১৪:৫০

সব'এ চালু করা দরকার।খুব ভাল আদেশ।নারী নিযা'তন অনেক কমবে

Ali Yusuf

২০২০-১০-২৯ ০৫:৫৯:৫৭

I think good notice for our society and to reduce sexual crime. He has done a goid job. I dont understand why he has served with show cause notice from health ministry. Does the authority likes more offence?

Md Abu taher

২০২০-১০-২৯ ১৮:৫৩:১৪

You the hero of the muslim nation's May Allah rewarded you by giving jannatul ferdous after world

মোতাহার

২০২০-১০-২৯ ১৮:৫০:৩১

ডাঃ আব্দুর রহিম কে সালাম। তিনি তার দায়িত্ব পালন করেছেন। আর আমরা এখন বসে অন্যদের নিফাকি দেখি।

Dilwar Hossain

২০২০-১০-২৯ ০৫:৩৩:১৫

হাজার স‍্যালুট জানাই জনাব আং রহিম স‍্যার কে এমন মহৎ উদ‍্যুগ নেওয়ার জন‍্য

Nurul

২০২০-১০-২৯ ১৮:৩২:২৯

মোবারকবাদ স্যার আপনাকে। উক্ত নির্শনার কারণে আপনি জান্নাতে যেতে পারেন । আল্লাহ আপনার সহায় হোন।

আপনার মতামত দিন

অনলাইন অন্যান্য খবর

মতামত জানতে চার অ্যামিকাস কিউরি

কোনো মুসলিম হিন্দু নারীকে বিয়ে করতে পারে কিনা

৩ ডিসেম্বর ২০২০

পাকিস্তান হাইকমিশনারকে প্রধানমন্ত্রী

’৭১ সালের নৃশংসতা অমার্জনীয়

৩ ডিসেম্বর ২০২০



অনলাইন সর্বাধিক পঠিত



DMCA.com Protection Status