টার্গেট সুইং স্টেট

মানবজমিন ডেস্ক

শেষের পাতা ২৬ অক্টোবর ২০২০, সোমবার | সর্বশেষ আপডেট: ৩:৩৪

যুক্তরাষ্ট্রে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের আর বাকি মাত্র ৯ দিন। দ্রুততার সঙ্গে সময় ফুরিয়ে যাচ্ছে। তাই যে সুইং স্টেটগুলো নির্বাচনের ভাগ্য নির্ধারণ করে, সেখানে প্রচারণায় জোর দিয়েছেন প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্প ও তার প্রতিদ্বন্দ্বী ডেমোক্রেট জো বাইডেন। গত শনিবার তারা প্রচারণায় করোনাভাইরাস সংক্রমণ নিয়ে দিয়েছেন পাল্টাপাল্টি বক্তব্য। এ খবর দিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স। এসব রাজ্যে বর্তমানে নতুন করে করোনাভাইরাস সংক্রমণ বৃদ্ধি পেয়েছে। এরই মধ্যে গত শনিবার নর্থ ক্যারোলাইনায় একটি আউটডোর সভায় বক্তব্য রাখেন ট্রাম্প। সেখানে কয়েক হাজার সমর্থক সমবেত হয়েছিলেন।
তাদের মধ্যে সামাজিক দূরত্ব ছিল না। নর্থ ক্যারোলাইনাকে বলা হয় ৩রা নভেম্বরের নির্বাচনে একটি ব্যাটলগ্রাউন্ড। সেখানে সমর্থকদের উদ্দেশে ট্রাম্প বলেন, কোভিড-১৯ এর বিরুদ্ধে লড়াই  
প্রায় শেষ করে এনেছে আমেরিকা। অন্যদিকে জো বাইডেন যথেষ্ট সতর্কতা অবলম্বন করে নির্বাচনী প্রচারণা করায় তাকে নিয়ে উপহাস করেন ট্রাম্প।
এদিন পেনসিলভ্যানিয়াতে দুটি পথসভায় বক্তব্য রাখেন সাবেক ভাইস প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। এ সময় তিনি সামনে ভয়াবহ শীতের সময়ের কথা স্মরণ করে দেন। জো বাইডেন সতর্কতা দেন। বলেন, যদি করোনাভাইরাসকে থামিয়ে দিতে ট্রাম্প প্রশাসন আরো ভালো কোনো ব্যবস্থা না নেয়, তাহলে এই পরিস্থিতির আরো ভয়াবহ অবনতি ঘটবে। এরই মধ্যে করোনাভাইরাসে কমপক্ষে দুই লাখ ২৪ হাজার মার্কিনির মৃত্যু হয়েছে।
উল্লেখ্য, জাতীয় পর্যায়ে জনমত জরিপে এখনো অনেকটা এগিয়ে আছেন জো বাইডেন। কিন্তু সুইংস্টেটগুলোতে তাদের ব্যবধান অনেকটা কাছাকাছি। তাই সুইংস্টেটের দিকে এখন দৃষ্টি দুই প্রার্থীর। কারণ, এসব রাজ্য যাকে নির্বাচিত করবে তিনিই হতে পারেন যুক্তরাষ্ট্রের পরবর্তী প্রেসিডেন্ট। অতীতে অন্তত তাই হয়ে এসেছে। তাই নর্থ ক্যারোলাইনায় লুম্বারটনে সমর্থকদের প্রতি ট্রাম্প বলেন, করোনাভাইরাস লকডাউনের কারণে যে অর্থনৈতিক ক্ষতি হয়েছে, তা দ্রুত কাটিয়ে উঠার ব্যবস্থা নিচ্ছেন তিনি। এই লকডাউনে ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীরা একেবারে পথে বসে গেছেন। লাখ লাখ মানুষ হয়েছেন কর্মহীন। ট্রাম্প বলেন, এখন আপনাদেরকে বেছে নিতে হবে ট্রাম্পের সুপার অর্থনৈতিক উন্নতি এবং জো বাইডেনের লকডাউনের মধ্যে একটি। আমরা ঘুরে দাঁড়াচ্ছি।
ওদিকে গত শনিবার দিনশেষে ট্রাম্পের ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্স ঘোষণা দেন যে, তার এক মুখপাত্র মার্ক শর্ট, পেন্সের চিফ অব স্টাফের করোনাভাইরাস পজেটিভ ধরা পড়েছে। তবে পেন্স ও তর স্ত্রীর করোনা নেগেটিভ এসেছে। তাই ভাইস প্রেসিডেন্ট তার শিডিউল পরিবর্তন করছেন না।
অন্যদিকে মার্কিনিদের সতর্ক করেছেন জো বাইডেন। তিনি বলেছেন, যেহেতু করোনাভাইরাস আবার বিস্তার ঘটছে তাই সামনে ঠাণ্ডার কয়েকটি মাস হবে আরো কঠিন। তার ভাষায়, যদি আমরা আমাদের জীবনধারা পরিবর্তন না করি তাহলে সামনে অন্ধকারময় এক শীত অপেক্ষা করছে। ব্রিস্টলে সমর্থকদের উদ্দেশ্যে বক্তব্য রাখছিলেন তিনি। সেখানে নেতাকর্মী, সমর্থকরা ট্রাক ও গাড়ি নিয়ে হাজির হয়েছিলেন। অনেকে তাদের জানালা খুলে শুনেছেন বাইডেনের বক্তব্য। কেউবা গাড়ির ছাদে অবস্থান নেন। এর মধ্য দিয়ে তারা করোনা সংক্রমণ থেকে নিজেদের রক্ষার চেষ্টা করেন। বাইডেনের প্রচারণা শিবির প্রতিটি গাড়িতে সর্বোচ্চ চারজনকে আরোহণের অনুরোধ করেছেন।

আপনার মতামত দিন

শেষের পাতা অন্যান্য খবর

মাস্ক

জেনেও ভুল করছে মানুষ

২৫ নভেম্বর ২০২০

পৌর ও ইউনিয়ন নির্বাচন

সবার টার্গেট দলীয় প্রতীক

২৫ নভেম্বর ২০২০

মোংলা পোর্টে কন্টেইনার ভেঙে চুরি

গোয়েন্দা জালে সিন্ডিকেট সদস্যরা

২৪ নভেম্বর ২০২০



শেষের পাতা সর্বাধিক পঠিত

DMCA.com Protection Status