মঙ্গলবার থেকে বিকাশ-নগদ-রকেট-ইউক্যাশে আন্ত:লেনদেন

অর্থনৈতিক রিপোর্টার

অনলাইন (১ মাস আগে) অক্টোবর ২৩, ২০২০, শুক্রবার, ৪:৫০ পূর্বাহ্ন | সর্বশেষ আপডেট: ৬:০০ পূর্বাহ্ন

মোবাইলে আর্থিক সেবাদাতা (এমএফএস) প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে আন্ত:লেনদেন সুবিধা চালু হচ্ছে। এখন থেকে বিকাশ, রকেট, এম ক্যাশ ও ইউক্যাশের মতো এমএফএস প্রতিষ্ঠানগুলো নিজেদের মধ্যে লেনদেন করতে পারবে। পাশাপাশি ব্যাংক ও এমএফএসের মধ্যেও করা যাবে লেনদেন।

আগামী মঙ্গলবার থেকে আন্ত:লেনদেন এ সুবিধা চালু হচ্ছে। বাংলাদেশ ব্যাংক এ সংক্রান্ত নির্দেশনা জারি করেছে।

বর্তমানে এক ব্যাংক থেকে অন্য ব্যাংকে টাকা পাঠানো যায়। কিন্তু এক এমএফএস থেকে অন্য এমএফএসে টাকা পাঠানো যায় না। অর্থাৎ বিকাশ গ্রাহকরা নগদে কিংবা রকেটে, নগদ গ্রাহকরা বিকাশ কিংবা রকেটে, রকেট গ্রাহকরা বিকাশ কিংবা নগদে টাকা পাঠাতে পারতেন না।


এ দুটি সেবা চালু হলে গ্রাহকেরা সহজেই ব্যাংক থেকে এমএফএস সেবাদাতা প্রতিষ্ঠানের হিসাবে এবং এমএফএস প্রতিষ্ঠান থেকে ব্যাংকে টাকা স্থানান্তর করতে পারবেন। তবে এই সেবার জন্য গ্রাহকদের কাছ থেকে কোনো মাশুল নেয়া যাবে না। টাকা উত্তোলনের খরচ থাকছে আগের মতোই।

আপাতত ৪টি ব্যাংক ও ৪টি এমএফএস প্রতিষ্ঠান এই সেবায় যুক্ত হয়েছে। অন্যদের আগামী বছরের ৩১শে মার্চের মধ্যে আন্ত:লেনদেন ব্যবস্থায় যুক্ত হওয়ার নির্দেশ দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, দেশে নগদ অর্থের লেনদেন কমাতে সব ব্যাংক ও এমএফএস প্রতিষ্ঠানের মধ্যে আন্ত:লেনদেন সেবা বাস্তবায়নের কাজ চলছে। সফলভাবে পরীক্ষামূলক কার্যক্রম সম্পন্নকারী ব্যাংক ও এমএফএস প্রতিষ্ঠান আগামী মঙ্গলবার থেকে লেনদেন শুরু করবে। যারা প্রস্তুতি সম্পন্ন করতে পারেনি, তাদের আগামী বছরের ৩১শে মার্চের মধ্যে এ সেবা চালু করতে হবে।

প্রজ্ঞাপনে উল্লেখ করা হয়েছে, যে এমএফএস প্রতিষ্ঠানের হিসাব থেকে অর্থ এমএফএস প্রতিষ্ঠানের হিসাবে যাবে, সেই প্রতিষ্ঠান অর্থ প্রেরণকারী এমএফএস প্রতিষ্ঠানকে লেনদেন হওয়া অর্থের ০.৮০ শতাংশ হারে মাশুল দেবে। একইভাবে ব্যাংক হিসাব হতে এমএফএস হিসাবে এবং এমএফএস হিসাব থেকে ব্যাংক হিসাবে অর্থ স্থানান্তরের উভয়ক্ষেত্রেই এমএফএস প্রতিষ্ঠান সংশ্লিষ্ট ব্যাংককে লেনদেন করা অর্থের ০.৪৫ শতাংশ মাশুল প্রদান করবে।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের তথ্য অনুযায়ী, গত আগস্ট শেষে এমএফএসের গ্রাহক ৯ কোটি ২৯ লাখে উঠেছে, আর এজেন্ট ১০ লাখ ছাড়িয়েছে। আগস্টে লেনদেন হয়েছে ৪১ হাজার কোটি টাকা।

আগস্টে এমএফএসের মাধ্যমে ১০৪ কোটি টাকা প্রবাসী আয় বিতরণ হয়েছে, বেতন-ভাতা পরিশোধ হয়েছে ১ হাজার ৬৩ কোটি টাকা। কেনাকাটা হয়েছে ১ হাজার ৬০ কোটি টাকা। গ্যাস-বিদ্যুতের মতো পরিষেবা বিল পরিশোধ হয়েছে ৯০৮ কোটি টাকা।

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

শাহাদাত হোসাইন

২০২০-১০-২৭ ২০:১২:৩৫

খুব ভালো একটা উদ্যোগ

ইমদাদুর রহমান

২০২০-১০-২৭ ১৯:০৫:৪০

চালু হয়নি কেন জানা থাকলে জানাবেন

মেহেদী হাসান

২০২০-১০-২৭ ১১:০৩:২৭

চালু হয়নি তো

আহসানুল হক

২০২০-১০-২৭ ০৭:৪৬:১২

ভাল উদ্যোগ নিয়েছে বাংলাদেশ ব্যংক। এতে করে গ্রাহক অনের সহজে লেন দেন করতে পারবে। ধন্যবাদ বাংলাদেশ ব্যংক

Dewan Rafiqul Islam

২০২০-১০-২৭ ০৪:২৮:৫৩

নিঃসন্দেহে প্রশংসনীয় উদ্যগ।চালুর অপেক্ষায় থাকলাম।

Rakibur jaman

২০২০-১০-২৬ ১০:১৮:২৯

Good

মোঃআসাদুল ইসলাম লিটন

২০২০-১০-২৬ ০৭:২৪:২৭

সকল শ্রেণীর মানুষের জন্য অনেক সুবিধা হলো।

Md.Rokib Uddin

২০২০-১০-২৬ ০৫:৪৫:৩১

ভালো একটি উদ্দক চার্জ কেমন কাটবে সেটই দেখার বিষ।

Bappy

২০২০-১০-২৬ ০০:২২:০৪

Vlo hobe

Hanif khan

২০২০-১০-২৫ ২২:৩০:০৯

Vlo hobe

মাহমুদুল হক

২০২০-১০-২৫ ১২:৩৯:৪৩

ভালো একটা উদ্যোগ সাধুবাদ জানাই৷

JAHID HASSAN

২০২০-১০-২৫ ১০:০১:০৮

ভালো হবে

মো মনির হোসাইন

২০২০-১০-২৫ ০৮:৫১:৪৫

খুব সুন্দর উদ্দেগ

Alom talukdar.janu

২০২০-১০-২৫ ০৮:৩০:৩৩

ভালো হবে

Md Akhter Hossain

২০২০-১০-২৫ ০৭:৪৬:৫০

অনেক ভালো উদ্যোগ। ওয়েলকাম এবং মোবারক বাদ জানাচ্ছি সকল দায়িত্বশীল দেরকে।

eng.kamrul

২০২০-১০-২৫ ০৬:৩১:৫৮

fine

শাহ্ নেওয়াজ

২০২০-১০-২৫ ০৬:২৫:২৯

এই সেবাটি অনেক আগে দেয়া উচিত ছিল। এখন এই সেবা সবার কাজে দিবে।

কামরুল হাসান

২০২০-১০-২৫ ০৩:৪১:২৩

এই উদ্যোগ টি আমার কাছে বেশ ভালো লাগলো। ধন্যবাদ জানাই উদ্যোগতাকে।

Nasirul Haque

২০২০-১০-২৫ ০২:২৮:৪৩

অসম্ভব সুন্দর একটি সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক, ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে আরেক ধাপ এগোল বাংলাদেশ... শুভ কামনা রইলো।

Md sharid alam

২০২০-১০-২৫ ১৪:৫২:১০

ভাল একটি উদ্দোগ

Raihan HR

২০২০-১০-২৪ ২২:০৬:৪০

করলে অনেক ভালো হবে খুব সুন্দর একটা উদ্দেগ গ্রহন করছে

আখলাক

২০২০-১০-২৪ ০৯:৩৭:৩৩

চমৎকার একটা বিষয।

আপনার মতামত দিন

অনলাইন অন্যান্য খবর



অনলাইন সর্বাধিক পঠিত

DMCA.com Protection Status