প্রত্যাবাসন নিয়ে ত্রিদেশীয় বৈঠক ডিসেম্বরে

কূটনৈতিক রিপোর্টার

অনলাইন (১ মাস আগে) অক্টোবর ২৩, ২০২০, শুক্রবার, ৯:৩৬ পূর্বাহ্ন | সর্বশেষ আপডেট: ৬:০০ পূর্বাহ্ন

যুক্তরাষ্ট্র, বৃটেন, ইউরোপীয় ইউনিয়ন এবং জাতিসংঘের শরণার্থী সংস্থার যৌথ আয়োজনে বিশ্বের ৩০ রাষ্ট্র ও সংস্থা যখন রোহিঙ্গাদের মানবিক সহায়তা তহবিল সংগ্রহে দাতা সম্মেলনে ব্যস্ত ঠিক সেই সময়ে প্রত্যাবাসন নিয়ে টেলিফোন আলাপে বসেছিলেন পররাষ্ট্র মন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন ও চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রীর ওয়েং ই। প্রায় ঘন্টাব্যাপী ওই ফোনালাপে মিয়ানমারের নির্বাচনের পর অর্থাৎ নতুন সরকার গঠনের পরপরই তারা ত্রিদেশীয় বৈঠক আয়োজনে নীতিগতভাবে সম্মত হয়েছেন। চীনের মধ্যস্থতায় আগামী ডিসেম্বরে বেইজিংয়ে ওই বৈঠক হতে পারে বলে আভাস পেয়েছে ঢাকা।বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার ওই ফোন আলাপ বিষয়ে সেগুনবাগিচা জানায়, রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে আরও কার্যকর ভূমিকা রাখার জন্য চীনকে অনুরোধ করেছে বাংলাদেশ। বেইজিংয়ের বৈঠকে চীনের কার্যকর নেতা অং সান সুচির অংশগ্রহণ চেয়েছে ঢাকা। উল্লেখ্য, রোহিঙ্গাদের জন্য মানবিক সহায়তা তহবিল সংগ্রহের ভার্চ্যুয়াল বৈঠকে চীনকে আমন্ত্রণ জানানো হয়নি। অন্যদিকে ওই অনুষ্ঠানে পররাষ্ট্র মন্ত্রীর অংশগ্রহণের কথা থাকলেও তার পরিবর্তে প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম এমপি বাংলাদেশ প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দিয়েছেন।

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

Khokon

২০২০-১০-২২ ২৩:৩১:৫৩

শুধু আমেরিকা, বৃটেন এবং ইউরোপ নিয়ে আলোচনা করলেও চলবে না পাশ্ববর্তী দেশ গুলোর ও অংশ গ্রহণ এবং ভূমিকা দরকার। কারণ ধনী এবং শক্তিশালী দেশ গুলো সবাই ক্রিমিনাল, তারা সবাই চায় মাতব্বরি করতে।

Kazi

২০২০-১০-২২ ২১:৪০:৩৩

ভুল পথে হাটছে বাংলাদেশ। মিয়ানমারের সঙ্গে চীনের গভীর স্বার্থ রয়েছে। তাই চীনকে নিয়ে ত্রিদেশীয় বৈঠক ফলপ্রসূ হবে না। আন্তর্জাতিক গোষ্ঠী নিয়ে বৈঠক করুণ । তাদেরকে জড়িত করুণ । কাজ হবে।

আপনার মতামত দিন

অনলাইন অন্যান্য খবর



অনলাইন সর্বাধিক পঠিত

DMCA.com Protection Status