চার বাংলাদেশীকে নির্যাতনের পর ছেড়ে দিলো বিএসএফ

স্টাফ রিপোর্টার, রাজশাহী থেকে

অনলাইন ২২ অক্টোবর ২০২০, বৃহস্পতিবার, ৭:৩৬

 রাজশাহী সীমান্ত থেকে চার বাংলাদেশী জেলেকে ধরে নিয়ে গিয়ে বর্বর নির্যাতনের পর ছেড়ে দিয়েছে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী (বিএসএফ)। বুধবার রাতে নির্যাতনের শিকার এই জেলেদের ছেড়ে দেয়া হয়েছে। নির্যাতিতরা হলেন- রাজশাহীর পবা উপজেলার গহমাবোনা গ্রামের মৃত জকিমুদ্দিনের ছেলে মো. আলম, আলমের ছেলে আনোয়ার, সাইদুর রহমানের ছেলে সিফাত এবং কসবা গ্রামের জুল্লুর ছেলে সোনারুল। পবার হরিপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বজলে রেজবী আল হাসান মুঞ্জিল বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, মাছ ধরার সময় বুধবার ভোরে পদ্মা নদী থেকে এই চার জেলেকে তিনটি নৌকাসহ ধরে নিয়ে যায় বিএসএফ। সীমান্ত এলাকায় মাছ ধরার কারণে তাদের ব্যাপক নির্যাতন করা হয়। এই চার জেলের শরীরের বিভিন্ন অংশে লাঠির আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। নির্যাতনের পর বুধবার সন্ধ্যার পর বিএসএফ তাদের ছেড়ে দিলে তারা বাড়ি ফিরে আসেন।
বিএসএফ এই চার জেলেকে ছেড়ে দিলেও তাদের দুটি নৌকা ফেরৎ দেয়নি বলেও জানান চেয়ারম্যান। তিনি বলেন, মোট তিনটি নৌকাসহ চার জেলেকে ধরে নিয়ে গিয়েছিল বিএসএফ। এর মধ্যে একটি নৌকায় করে জেলেদের পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে। কিন্তু ভাল দুটি নৌকা বিএসএফ দেয়নি। চেয়ারম্যান বলেন, জেলেরা সব বেসরকারি সংস্থা থেকে ঋণ নিয়ে নৌকা তৈরী করে। একেকটি নৌকার দাম লাখ টাকা। নৌকা দুটি ফেরৎ পেলে ভাল হয়। বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) রাজশাহী-১ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল ফেরদৌস জিয়াউদ্দিন মাহমুদ চার জেলেকে ধরে নিয়ে গিয়ে নির্যাতনের ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছেন। তিনি বলেন, বিএসএফের সঙ্গে তাদের এ বিষয়ে পতাকা বৈঠক হওয়ার কথা রয়েছে। তারা এ ঘটনার প্রতিবাদ জানাবেন।

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

মোঃ নাকিবুল ইসলাম।

২০২০-১০-২৪ ১২:৩১:৫১

amra kano indiar lokder chere dei

আপনার মতামত দিন

অনলাইন অন্যান্য খবর

মতামত জানতে চার অ্যামিকাস কিউরি

কোনো মুসলিম হিন্দু নারীকে বিয়ে করতে পারে কিনা

৩ ডিসেম্বর ২০২০

পাকিস্তান হাইকমিশনারকে প্রধানমন্ত্রী

’৭১ সালের নৃশংসতা অমার্জনীয়

৩ ডিসেম্বর ২০২০



অনলাইন সর্বাধিক পঠিত



DMCA.com Protection Status