বিবিসির প্রতিবেদন

স্পেনে আক্রান্ত ১০ লাখ ছাড়ালো

মানবজমিন ডেস্ক

বিশ্বজমিন ২২ অক্টোবর ২০২০, বৃহস্পতিবার | সর্বশেষ আপডেট: ৫:৩৭

স্পেনে করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ১০ লাখ ছাড়িয়ে গেছে। এর মধ্য দিয়ে পশ্চিম ইউরোপের প্রথম দেশ হিসেবে এই সংখ্যায় পৌঁছেছে স্পেন। বুধবার ২৪ ঘন্টায় সেখানে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ১৬ হাজার ৯৭৩ জন। মারা গেছেন ১৫৬ জন। এ খবর দিয়ে অনলাইন বিবিসি বলছে, স্পেনে প্রথম করোনা ভাইরাস সংক্রমণ ধরা পড়ে ৩১ শে জানুয়ারি। তারপর থেকে সেখানে সরকারি হিসেবে মোট আক্রান্তের সংখ্যা বুধবার দেখানো হয়েছে ১০ লাখ ৫ হাজার ২৯৫। বিশ্বে সবচেয়ে বেশি সংক্রমণের দিক দিয়ে এটি ষষ্ঠ দেশ। প্রথম অবস্থান থেকে পর্যায়ক্রমে ৫ম অবস্থানে রয়েছে যথাক্রমে যুক্তরাষ্ট্র, ভারত, ব্রাজিল, রাশিয়া ও আর্জেন্টিনা।
কয়েক মাসে ইউরোপে নতুন করে সংক্রমণ বৃদ্ধি পাচ্ছে। এ অবস্থায় নতুন ও কঠোর সব বিধিনিষেধ আরোপ করছে বিভিন্ন দেশের সরকার। অনেক দেশে হাসপাতালে স্থান সংকুলান নিয়ে সংশয় দেখা দিয়েছে। এর মধ্যে করোনা ভাইরাস সংক্রমণের প্রথম কয়েক মাসে স্পেনে বড় রকম সংক্রমণ দেখা দেয়। কিছু কিছু এলাকায় তারা কঠোর বিধিনিষেধ আরোপ করে। এমনকি শিশুদেরকে ঘরের বাইরে যাওয়া নিষিদ্ধ করা হয়।
অন্যদিকে সংক্রমণের সংখ্যা কমে আসার প্রেক্ষিতে ইউরোপের অনেক দেশ বিধিনিষেধ শিথিল করা শুরু করে। কিন্তু তা বুমেরাং হয়ে আসে। রাজনীতিকরা অর্থনীতিকে সচল রাখতে পর্যটন খাতকে খুলে দেয়ার সিদ্ধান্ত নেন। আগস্টের শেষের দিকে প্রতিদিন ওই অঞ্চলে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়ায় ১০ হাজার। শুধু গত দুই সপ্তাহে হাসপাতালে ভর্তির সংখ্যা বেড়ে যায় শতকরা ২০ ভাগ। একই সঙ্গে মৃত্যুর সংখ্যাও বেড়ে যায়। মঙ্গলবার এতে স্পেনে মারা যান ২১৮ জন। সব মিলে সেখানে কোভিডে মৃতের সংখ্যা রেকর্ড করা হয়েছে ৩৪ হাজার ৩৬৬। কিভাবে এই অবস্থা সামাল দেয়া যাবে তা নিয়ে তিক্ত বিভক্তি দেখা দিয়েছে রাজনীতিকদের মধ্যে। অন্যদিকে উগ্র ডানপন্থি দল ভক্স পার্টির ডাকে বুধবার প্রধানমন্ত্রী পেদ্রো সানচেজের বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব নিয়ে পার্লামেন্টে বিতর্ক হওয়ার কথা।

আপনার মতামত দিন

বিশ্বজমিন অন্যান্য খবর

ডেইলি এনকে’র খবর

উত্তর কোরিয়ায় ৪ সেনাকে ফায়ারিং স্কোয়াডে হত্যা

৩০ নভেম্বর ২০২০



বিশ্বজমিন সর্বাধিক পঠিত



DMCA.com Protection Status