আল জাজিরার প্রতিবেদন

ঘৃণা ছড়ানোর অভিযোগে ফ্রান্সে ৬ মাসের জন্য নিষেধাজ্ঞা একটি মসজিদের বিরুদ্ধে

মানবজমিন ডেস্ক

বিশ্বজমিন (১ মাস আগে) অক্টোবর ২১, ২০২০, বুধবার, ১:৫৭ পূর্বাহ্ন | সর্বশেষ আপডেট: ৬:০০ পূর্বাহ্ন

ঘৃণা ছড়িয়ে দেয়ার মতো ঘটনায় একটি মসজিদ অস্থায়ীভিত্তিতে ৬ মাসের জন্য বন্ধের নির্দেশ দিয়েছে ফ্রান্স কর্তৃপক্ষ। দ্য গ্রান্ড মস্ক অব প্যান্টিন- হিসেবে পরিচিত দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলের ওই মসজিদটির বাইরে পুলিশ এ বিষয়ে একটি নোটিশ সেঁটে দিয়েছে। এ খবর দিয়েছে অনলাইন আল জাজিরা। এতে বলা হয়, সম্প্রতি মহানবী হযরত মোহাম্মদ (স.) কে নিয়ে আঁকা ব্যঙ্গচিত্র শ্রেণিকক্ষে প্রদর্শন করেন সংশ্লিষ্ট এক স্কুলের ইতিহাসের শিক্ষক স্যামুয়েল প্যাটি। এ জন্য গত সপ্তাহে এক চেচেন কিশোর প্রকাশ্য রাস্তায় তার শিরশ্ছেদ করে। একে সন্ত্রাসী হামলা হিসেবে আখ্যায়িত করেছেন ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রন।

এর পর যেসব মানুষ সন্দেহজনকভাবে ঘৃণা ছড়িয়ে দিচ্ছেন বলে মনে করা হচ্ছে, তাদের বিরুদ্ধে দমনপীড়ন চালাচ্ছে সরকার। তারই অংশ হিসেবে ওই মসজিদটি অস্থায়ীভিত্তিতে বন্ধ করে দেয়ার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।
প্যান্টিন এলাকায় অবস্থিত ওই মসজিদ কর্তৃপক্ষ শিক্ষক স্যামুয়েল প্যাটিকে হত্যার আগে তার কর্মকান্ডের নিন্দা প্রকাশ করেছিল তাদের ফেসবুক পেজে। সেখানে মহানবী (স.)-এর ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শন করার জন্য তার নিন্দা জানিয়ে কর্তৃপক্ষ একটি ভিডিও-ও শেয়ার করেছিল। এ জন্য পুলিশ ওই মসজিদের বাইরে নোটিশ ঝুলিয়ে দিয়েছে।

ফরাসি কর্তৃপক্ষ ঘৃণা ছড়িয়ে দেয়া বার্তা, বিতর্কিত ধর্মীয় নেতাদের বক্তব্য ও বিদেশি- যারাই নিরাপত্তার জন্য হুমকি তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে। সেইনে সেইন্ট-ডেনিস ডিপার্টমেন্টের প্রধানের দেয়া ওই নোটিশে বলা হয়েছে, সন্ত্রাস বিরোধী কর্মকান্ড বন্ধের জন্য ৬ মাসের জন্য বহাল থাকবে এই নিষেধাজ্ঞা।

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

ওবাইদুল ইসলাম

২০২০-১০-২১ ১৬:৪৯:২১

করোনা ভাইরাস নিয়ন্ত্রনে ব্যার্থতা ঢাকতে (ভারতের মুসলমান বিরোধী কট্টর হিন্দুত্ববাদী সরকার যেমন করোনা ভাইরাস নিয়ন্ত্রনে ব্যার্থ হয়ে ও অসৎ রাজনৈতিক ফায়দা হাসিলের উদ্দেশ্যে তাবলীগ জামাতের সদস্যদের করোনা ভাইরাস ছড়ানোর জন্য দায়ী করে উচ্চ তাঁদের আদালতেই ভুল প্রমানিত হয়েছে ) ও রাজনৈতিক ফায়দা হাসিল করার জন্য গোঁড়া ধার্মিক মুসলমানদে উস্কানি দিয়ে এই ধরনের কাজ করিয়ে নিতে ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ম্যাক্রো উস্কানি দেওয়ার অপরাধে অপরাধি ।

MD MOSTAFIZ KARIM

২০২০-১০-২১ ১৪:৫৬:২৯

মহানবী (স.)-এর ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শন করা মত প্রকাশের স্বাধীনতা!!! আর এ কর্মকান্ডের নিন্দা প্রকাশ করা ঘৃণা ছড়ানোর!!! Yajuj and Majuj is leading from France! France is doing this nonsense from very beginning. That time they established underground Madrasa and prepared their selected people to learn Islam secretly and mix some wrong things within Islam. After that those people entered in to Muslim community and spread the wrong things in Muslim community sincerely! Many of them has been caught red handed.

আপনার মতামত দিন

বিশ্বজমিন অন্যান্য খবর

আল জাজিরার প্রতিবেদন

উইঘুর মুসলিমদের ওপর নিষ্ঠুরতার আরও ভয়াল বর্ণনা

৪ ডিসেম্বর ২০২০

যুক্তরাষ্ট্রের শীর্ষ গোয়েন্দা কর্মকর্তার মন্তব্য

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর স্বাধীনতা, গণতন্ত্রের সবচেয়ে বড় হুমকি চীন

৪ ডিসেম্বর ২০২০



বিশ্বজমিন সর্বাধিক পঠিত



DMCA.com Protection Status