৩ বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী যখন আন্তর্জাতিক পর্নো চক্রের হোতা

স্টাফ রিপোর্টার

অনলাইন (৭ মাস আগে) অক্টোবর ২০, ২০২০, মঙ্গলবার, ৯:২৭ পূর্বাহ্ন | সর্বশেষ আপডেট: ৬:০০ পূর্বাহ্ন

প্রতীকী ছবি
বোরহান উদ্দিন , মো. আব্দুল্লাহ আল-মাহমুদ  ও মো. অভি হোসেন। পড়ে ঢাকার তিনটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে। কিন্তু এই পরিচয়ের আড়ালে তারা শিশু পর্নোগ্রাফি তৈরি করে ছড়িয়ে দেয়ার একটি আন্তর্জাতিক  ভয়ঙ্কর চক্রের সদস্য। যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী দুই ব্যক্তির অভিযোগের পর দীর্ঘ অনুসন্ধান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করে পুলিশের কাউন্টার টেররিজম ইউনিট (সিটিটিসি)। এরইমধ্যে আদালতেও তারা দোষ স্বীকার করে জবানবন্দি দিয়েছে। তিন জনই শিশু পর্নোগ্রাফি তৈরির কথা স্বীকার করেছে।
গত বৃহস্পতিবার রাজধানীর শাহজাহানপুর, পল্লবী ও রামপুরা থানা এলাকা থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। তাদের কাছ থেকে মোবাইল ও কম্পিউটার ছাড়াও ৩০ জিবি ভলিউমের ৩ হাজার ৩১৬টি ফাইল জব্দ করা হয়।
এগুলোর মধ্যে ৪৫ জন ভিকটিমের নগ্ন ছবি রয়েছে। এরা সাধারণত ৯ থেকে ১৫ বছরের ছেলে-মেয়েদের টার্গেট করতো। এরা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অ্যাকাউন্ট খুলে দেশের বাইরের শিশু পর্নোগ্রাফি তৈরি গ্রুপের সাথে যোগাযোগ করে। তাদের দেয়া নির্দেশনা অনুযায়ী বাংলাদেশে কাজ করে। এই চক্র কখনও কখনও অবস্থাসম্পন্ন শিশুর অভিভাবকের কাছে কনটেন্ট পাঠিয়ে অর্থ হাতিয়ে নিতো। গ্রেপ্তারের পর একদিন রিমান্ডে এনে জিজ্ঞাসাবাদের পর তারা স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিতে রাজি হয়।

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

Shakil Ahmed

২০২০-১০-২০ ১০:৩৪:২৭

shoot them, they don't deserve to live

আপনার মতামত দিন

অনলাইন অন্যান্য খবর

বাজেট আলোচনায় অর্থনীতিবিদ ও ব্যবসায়ীরা

ভ্যাকসিনেশন না হলে রপ্তানি বাজার হারাতে হবে

১৩ জুন ২০২১

অনলাইন বাজেট প্রতিক্রিয়ায় বক্তারা

প্রস্তাবিত বাজেট তামাকমুক্ত বাংলাদেশ অর্জনের অন্তরায়

১৩ জুন ২০২১



অনলাইন সর্বাধিক পঠিত



DMCA.com Protection Status