রয়টার্সের রিপোর্ট

বিশ্বে একদিনে রেকর্ড ৪ লাখ মানুষ করোনায় আক্রান্ত

মানবজমিন ডেস্ক

বিশ্বজমিন ১৮ অক্টোবর ২০২০, রোববার | সর্বশেষ আপডেট: ১২:৫৬

প্রথমবারের মতো বিশ্বে একদিনে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন কমপক্ষে ৪ লাখ মানুষ। নতুন করে সংক্রমণ রোধে ইউরোপের বিভিন্ন দেশ যখন কারফিউসহ নানা রকম বিধিনিষেধ আরোপ করছে তখন শুক্রবার দিনশেষে এ তথ্য প্রকাশ করা হয়েছে। এ খবর দিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স। এতে বলা হয়, গত কয়েক সপ্তাহে নতুন করে করোনা ভাইরাসের এপিসেন্টার হিসেবে আবির্ভূত হয়েছে ইউরোপ। গত সপ্তাহে সেখানে গড়ে প্রতিদিন আক্রান্ত হয়েছেন এক লাখ ৪০ হাজার মানুষ। ভারত, ব্রাজিল এবং যুক্তরাষ্ট্র মিলে মোট যত মানুষ আক্রান্ত হচ্ছেন, অঞ্চল হিসেবে ইউরোপ একদিনে তার চেয়ে বেশি মানুষ আক্রান্ত হচ্ছেন। রয়টার্সের বিশ্লেষণ অনুযায়ী, বিশ্বে আক্রান্ত প্রতি ১০০ মানুষের মধ্যে ৩৪ জনই ইউরোপের দেশগুলোর। প্রতি ৯ দিনে ইউরোপে ১০ লাখ মানুষ নতুন করে আক্রান্ত হচ্ছেন বর্তমানে।
সব মিলে করোনা ভাইরাস মহামারি শুরুর পর থেকে সেখানে মোট আক্রান্তের সংখ্যা কমপক্ষে ৬৩ লাখ।
রয়টার্সের হিসাবে বলা হচ্ছে, ১৮ই অক্টোবর সমাপ্ত সপ্তাহে ইউরোপে যে পরিমাণ মানুষ আক্রান্ত হয়েছেন তার মধ্যে প্রায় অর্ধেকই আক্রান্ত হয়েছেন সেখানকার বড় বড় দেশে। এর মধ্যে রয়েছে বৃটেন, ফ্রান্স, রাশিয়া, নেদারল্যান্ডস এবং স্পেন। প্রতি সাত দিনের হিসাবে গড়ে নতুন আক্রান্তের দিক দিয়ে ইউরোপে সর্বোচ্চ অবস্থানে রয়েছে ফ্রান্স। প্রতিদিন সেখানে আক্রান্ত হচ্ছেন ১৯ হাজার ৪২৫ জন। এরপরেই রয়েছে বৃটেন, রাশিয়া, স্পেন এবং নেদারল্যান্ডস। এ অবস্থায় ইউরোপের বেশ কিছু দেশে স্কুলকলেজ বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। বন্ধ করে দেয়া হয়েছে অত্যাবশ্যক নয় এমন সব অপারেশন। করোনা মহামারি প্রতিরোধে মেডিকেল পড়–য়াদেরকে সেবাখাতে ডাকা হয়েছে। রাশিয়ায় শিক্ষার্থীদেরকে অনলাইনে পড়াশোনা করতে বলা হয়েছে। দু’ সপ্তাহের জন্য স্কুল বন্ধ করেছে উত্তর আয়ারল্যান্ড। চার সপ্তাহের জন্য বন্ধ করা হয়েছে রেস্তোরাঁ। স্পেনের ক্যাটালোনিয়ার কর্তৃপক্ষ ১৫ দিনের জন্য বার ও রেস্তোরাঁ বন্ধ করে দিয়েছে। খুব কমসংখ্যক মানুষকে কেনাকাটার অনুমোদন দেয়া হয়েছে। চেক প্রজাতন্ত্রেও স্কুলের পড়াশোনা দূরবর্তী মাধ্যমে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। হাজার হাজার মেডিকেল পড়–য়াকে সরকারি সেবাখাতে ডাক দেয়ার পরিকল্পনা রয়েছে। বিছানা প্রস্তুত রাখতে অতি প্রয়োজন নয় এমন অপারেশন বন্ধ রাখতে বলা হয়েছে হাসপাতালগুলোকে।
পোল্যান্ডে নতুন করে রেকর্ড ৬৫২৫ জন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার পর দেশ বিপর্যয়ের দ্বারপ্রান্তে বলে সতর্কতা দিয়েছেন স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা। এ সপ্তাহে সেখানে মারা গিয়েছেন ১১৬ জন। সেখানে নার্সদের প্রশিক্ষণ বৃদ্ধি করা হয়েছে। মিলিটারি ফিল্ড হাসপাতাল নির্মাণের পরিকল্পনা বিবেচনা করা হচ্ছে।  মোট সংক্রমণের মধ্যে শতকরা ২৭ ভাগই লাতিন আমেরিকার। এর ফলে তারা সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত অঞ্চল বলে বিবেচিত হচ্ছে। এরপরেই রয়েছে এশিয়া, উত্তর আমেরিকা এবং ইউরোপ। সেপ্টেম্বরের তুলনায় ভারতে এ মাসে আক্রান্তের সংখ্যা কিছুটা কমেছে। রয়টার্সের হিসাবে সেখানে সেপ্টেম্বরে প্রতিদিন আক্রান্ত হয়েছেন ৬৯ হাজার মানুষ। গত তিন সপ্তাহে এই সংখ্যা অনেক কমে গেছে। ১৩ই অক্টোবর সেখানে আক্রান্তের সংখ্যা রেকর্ড করা হয় ৫৫৩৪২। ১৮ই আগস্ট থেকে এটাই প্রতিদিনের হিসাবে সবচেয়ে কম সংক্রমণ। বিশ্বের অন্য যেকোনো স্থানের তুলনায় যুক্তরাষ্ট্রে সবচেয়ে বেশি মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন এবং মারা গেছেন।

আপনার মতামত দিন

বিশ্বজমিন অন্যান্য খবর



বিশ্বজমিন সর্বাধিক পঠিত



ম্যারাডোনার শেষ কথা

‘মে সিয়েন্তো মাল’

DMCA.com Protection Status