শর্তসাপেক্ষে শ্রীলঙ্কায় কোয়ারেন্টিনে রাজি বাংলাদেশ

স্পোর্টস রিপোর্টার

খেলা ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, সোমবার

শ্রীলঙ্কা পৌঁছে টাইগারদের থাকতে হবে কঠোর কোয়ারেন্টিনে। খেলোয়াড়রা হোটেলের রুম থেকে বের হতে পারবে না খাবারের জন্যও। এমন শর্তে কোনোভাবেই টেস্ট খেলতে রাজি ছিল না বাংলাদেশ। এমনকি ৭ দিনের বেশি কোয়ারেন্টিনও করতে চায় না বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। কিন্তু দেশকে করোনামুক্ত রাখতে লঙ্কান কোভিড-১৯ টাস্কফোর্স ও স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় তাদের অবস্থানে অনড়। তারা কোনোভাবেই কোয়ারেন্টিন শর্ত শিথিল করতে রাজি নয়। আর সিরিজ বাঁচাতে কিছুটা নমনীয় হয়েছে বিসিবি। কোয়ারেন্টিনে থাকতে আপত্তি নেই, তবে হোটেলে ক্রিকেটারদের বন্দি রাখতেও রাজি নয় বিসিবি।
বিসিবির চাওয়া অন্তত হোটেল জিম, সুইমিং পুল ব্যবহার ও  অনুশীলনের সুযোগ দিতে হবে ক্রিকেটারদের। বাংলাদেশ সরকারের ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেলও জানিয়েছেন, লঙ্কা সফর নিয়ে বিসিবির অবস্থানের কথা। গতকাল রাজধানীর এক পাঁচতারকা হোটেলে শেখ হাসিনা আন্তর্জাতিক অনলাইন দাবা টুর্নামেন্টের পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘কোনোভাবেই এটা সম্ভব নয়,  ১৪ দিন রুমের মধ্যে আটকে থাকা। একটা খেলোয়াড়ের ফিটনেস হলো বড় বিষয়। বন্দি থাকলে কখনোই একজন  খেলোয়াড়ের ফিটনেস ঠিক থাকবে না। বলেছি, হোটেলে আমরা থাকতে পারি, কোয়ারেন্টিনের সময়টা একটু কমিয়ে  দেয়া হোক। আর জিম থেকে শুরু করে সুইমিং ও অন্যান্য সুযোগ যেন আমাদের খেলোয়াড়দের দেয়া হয়।’
শ্রীলঙ্কার কঠিন শর্তের পরও বিসিবি এই সিরিজ আয়োজনের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। প্রশ্ন উঠেছে বিসিবি কেন মরিয়া সিরিজ খেলতে যেতে। এ বিষয়ে প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান বলেন, ‘মহামারির এই সময়ে একটা সিরিজ হবে এটা আমরা অনেক আগ্রহের সঙ্গে নিয়েছি, আমরা খুবই উদগ্রীব। আমাদের খেলোয়াড়রাও সিরিজের জন্য অনুশীলনের মধ্যে আছে। ক্রিকেট বোর্ডের সঙ্গে আমাদের সার্বক্ষণিক আলাপ-আলোচনা চলছে। তারা (শ্রীলঙ্কা) যে বিধিনিষেধ দিয়েছে বলেছি আমরা আমাদের যে ১৪ দিন কোয়ারেন্টিনে থাকার কথা সেটি কিছুটা কমানো পাশাপাশি হোটেল কক্ষে থাকার যে বিধিনিষেধ দেয়া হয়েছে, আমরা সেটা ‘না’ বলেছি। একজন খেলোয়াড় যদি ১৪ দিন রুমের মধ্যে বসে থাকে তাহলে ফিটনেসের ঘাটতি হবে। তাহলে সে ভালো খেলা দেখাতে পারবে না। আমরা বলেছি যে, হোটেলের যে সুযোগ-সুবিধা আছে জিম থেকে শুরু করে অন্যান্য সুযোগ-সুবিধা সেটা যেন আমরা ব্যবহার করতে পারি। আজ (গতকাল) শ্রীলঙ্কা থেকে এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত পাবার কথা।’
অন্যদিকে গতকাল বিসিবির মিডিয়া বিভাগের চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস বলেন, ‘তিনি (জাহিদ আহসান রাসেল) যা বলেছেন তা বিসিবিরই অবস্থান। আমরা তো এতদিন এই প্রস্তাবগুলোই দিয়ে এসেছি শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট বোর্ডকে (এসএলসি)। হ্যাঁ, ক্রীড়ামন্ত্রীর সঙ্গে আমাদের সব বিষয়ে আলোচনা হয়। তাকে আমরা লঙ্কান সফর নিয়ে সব আপডেট দিয়ে থাকি।’  আজ (সোমবার) শ্রীলঙ্কা সফর নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত আসতে পারে বলেই জানিয়েছেন জালাল ইউনুস। তিনি বলেন, ‘আজ (গতকাল) কোনো সিদ্ধান্ত আমরা পাইনি। তবে আগামীকাল (আজ) সম্ভাবনা আছে। সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনের একটি দোয়া মাহফিলে অংশ নিতে বিসিবিতে আসার কথা রয়েছে। সিদ্ধান্ত পেলে তিনি নিজেই হয়তো তা জানাবেন।’
গত ১৪ই সেপ্টেম্বর বিসিবি প্রধান নাজমুল হাসান সভা শেষে স্পষ্ট করেই জানিয়েছিলেন কঠিন সব শর্ত মেনে টেস্ট সিরিজ খেলা সম্ভব নয়। যদি শ্রীলঙ্কা তাদের শর্ত শিথিল করে তবেই এই সফরে যাবে দল। গতকালই লঙ্কা যাওয়ার কথা ছিল টাইগারদের। এই উপলক্ষে ২৭ জনের প্রাথমিক দল নিয়ে শুরু হয়েছিল ক্যাম্প। ক্রিকেটারদের হোটেলে রেখে তৈরি করা হয়েছিল  জৈব-সুরক্ষা বলয়। তিনবার করোনা টেস্টও করানো হয়। কিন্তু শ্রীলঙ্কার পক্ষ থেকে কোনো সাড়া না পেয়ে সেই সুরক্ষা বলয় ভেঙে ক্রিকেটারদের বাড়িতে পাঠানো হয়েছে। সিরিজটি পিছিয়ে যাচ্ছে নিশ্চিতভাবেই। আর শ্রীলঙ্কা নমনীয় না হলে শেষ পর্যন্ত সিরিজ অনির্দিষ্টকালের জন্য স্থগিতই হয়ে  যেতে পারে।

আপনার মতামত দিন

খেলা অন্যান্য খবর



খেলা সর্বাধিক পঠিত



৭ দিনের মধ্যে পাওনা পরিশোধ করবে শেখ রাসেল

রুমানার দাবি-আগে শাস্তি পরে টাকা