সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অপপ্রচারের বিরুদ্ধে বাফুফের আইনি নোটিশ

স্পোর্টস রিপোর্টার

খেলা ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০, রোববার

আগামী ৩রা অক্টোবর বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের (বাফুফে) নির্বাচন। এই নির্বাচনকে সামনে রেখে বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে কিছু পেইছে বাফুফে সভাপতি কাজী মো. সালাউদ্দিনকে বয়কটের দিয়েছে। এর বাইরে কিছু ব্যক্তি বা গোষ্ঠী  মিথ্যা তথ্য দিয়ে অসৌজন্যমূলক ও অরুচিকর কথাবার্তা বলছেন। বিষয়টি দৃষ্টিগোচর হওয়ায় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ব্যবহার করে বাফুফের ভাবমূর্তি বিনষ্টকারীদের বিরুদ্ধে আইনি নোটিশ জারি করেছে বাংলাদেশের ফুটবল নিয়ন্ত্রক সংস্থা। নোটিশ জারির পর কেউ তা না মানলে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়ার হুঁশিয়ারি দেওয়া হয়েছে।
বাফুফের পক্ষে এই নোটিশ জারি করেছেন তাদের আইন উপদেষ্টা সুপ্রিম কোর্টের অ্যাডভোকেট এম.এইচ তানভীর। পাঁচ পৃষ্ঠার নোটিশের সারমর্ম হলো, ‘বাংলাদেশের ফুটবল ঐতিহ্য সমুন্নত রাখতে বিভিন্ন কার্যক্রম চলমান রয়েছে। বাংলাদেশের প্রতিনিধি ফিফায় আছেন। এছাড়া ফিফা ও এএফসির বিভিন্ন কমিটিতে বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব রয়েছে, সেহেতু আমার মক্কেলের (বাফুফে) আগামী নির্বাচনে কার্যকরী কমিটি গঠনের নিমিত্তে সকল সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ব্যবহারকারীদের আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হওয়া উচিত।’
নোটিশে আরও বলা হয়েছে, ‘যেহেতু গত ৮ই সেপ্টেম্বর বাফুফের ভেরিফায়েড পেজে বাফুফে নির্বাচন নামক শিরোনামে প্রকাশিত হওয়ার পরই কিছু যোগাযোগমাধ্যম ব্যবহারকারী কুরুচিপূর্ণ অসৌজন্যমুলক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত মানহানিকর আক্রমণাত্মক ভিত্তিহীন মন্তব্য করেছেন।
যা তাদের ইচ্ছাকৃতভাবে বা জ্ঞাতসারে কৃতকর্মের সামিল। নির্বাচনের তারিখ ঘোষণার পর হতে নির্বাচনকে প্রভাবিত করার জন্য বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ব্যবহারকারীগণ নিজেরা ফেসবুক গ্রুপ, ইউটিউব চ্যানেলের মাধ্যমে অ্যাডমিন হয়ে বাফুফের নাম লোগো বিভিন্ন অনুষ্ঠানের ছবি ও ভিডিও ফুটেজ অনুমতি ছাড়া যত্রতত্র ব্যবহার করে আমার মক্কেলের (বাফুফে) বিরুদ্ধে নানাভাবে অপপ্রচার করে যাচ্ছেন। যার সঙ্গে আমার মক্কেল (বাফুফে) কোনভাবেই জড়িত নয়। ফিফা অফিসিয়াল পেজে কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য করে বিশ্ব দরবারে বাংলাদেশকে হেয় করা হয়েছে। এই আইনগত বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে দায়িত্বশীল হয়ে গঠনমুলক সৌজন্যমূলক উপদেশমূলক মন্তব্য করার জন্য বিশেষভাবে অনুরোধও করা হলো। এই নোটিশ প্রদানের পর থেকে যেকোনভাবে মানহানিকর পোস্ট, বিবৃতি,  ভিডিও বার্তা প্রদান করে থাকলে বা এই কাজকে উৎসাহিত করে থাকলে কিংবা আসন্ন বাফুফের নির্বাচনে প্রভাবিত করার চেষ্টা করলে সেক্ষেত্রে তারা বা তাদের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন ২০১৮ অনুযায়ী ও বাংলাদেশের প্রচলিত আইন অনুযায়ী আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’
নোটিশের অনুলিপি পাঠানো হয়েছে পুলিশের আইজি, ঢাকার পুলিশ কমিশনার, বিটিআরসির চেয়ারম্যান, ঢাকার জেলা প্রশাসক, র‌্যাবের মহাপরিচালক ও পুলিশের সাইবার ক্রাইম ইনভেস্টিগেশন ডিভিশন (সিটিটিসি) ও মিডিয়ার প্রতিনিধিদের কাছে।

আপনার মতামত দিন

খেলা অন্যান্য খবর



খেলা সর্বাধিক পঠিত



৭ দিনের মধ্যে পাওনা পরিশোধ করবে শেখ রাসেল

রুমানার দাবি-আগে শাস্তি পরে টাকা