করোনা নিয়ে নিরাপত্তা পরিষদের বৈঠকে উত্তপ্ত বাক্য বিনিময়

মানবজমিন ডেস্ক

বিশ্বজমিন ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০, শুক্রবার | সর্বশেষ আপডেট: ৬:৩৯

করোনাভাইরাস ইস্যুতে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের বৈঠকে উত্তপ্ত বাক্য বিনিময় হয়েছে। বৃহস্পতিবার হওয়া ওই বৈঠকে চলমান মহামারি মোকাবেলায় বিশ্ব নেতাদের ব্যার্থতার কথা তুলে ধরেন। তিনি বলেন, বিশ্বের দেশগুলোর মধ্যে সহযোগিতা, ঐক্য ও সংহতি না থাকার কারণেই করোনা ভাইরাস নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে গেছে এবং এটিই প্রায় ১০ লাখ মানুষের মৃত্যুর কারণ। এরপরই একে অপরকে দায়ি করে বিতর্ক শুরু করে যুক্তরাষ্ট্র, চীন ও রাশিয়া। এ খবর দিয়েছে আল-জাজিরা।
খবরে বলা হয়, এখন পর্যন্ত বিশ্বজুড়ে ৩ কোটি ২০ লাখ মানুষ করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। এই কঠিন সময়কে ব্যাখ্যা করতে গিয়ে গুতেরেস বলেন, মহামারি আন্তর্জাতিক সহযোগিতার পরীক্ষা। যে পরীক্ষায় বিশ্ব নেতারা ব্যর্থ হয়েছে।
জলবায়ু সংকটও যদি একইভাবে এগিয়ে আসে তাহলে আমার আশঙ্কা পরিস্থিতি আরও খারাপ হতে পারে। আলোচনায় যুক্তরাষ্ট্রের পক্ষে যোগ দেয়া দূত কেলি ক্রাফট এই মহামারির জন্য চীনকে দায়ি করেন। এর আগে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রা¤প করোনা মহামারিকে প্লেগের সঙ্গে তুলনা করে এর জন্য চীনকে শাস্তি দেয়ার দাবি জানিয়েছিলেন। কেলি ক্রাফটও সেই একই কথা তুলে ধরেন। এরপরই চীনের দূত এর কড়া জবাব দেন। তিনি বলেন, বিশ্বের সবচেয়ে উন্নত মেডিক্যাল টেকনোলজি ও ব্যবস্থা থাকার পরও কেন যুক্তরাষ্ট্রে সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত ও মৃত্যু ঘটছে। যদি কাউকে দায়ী করতে হয় তাহলে তা কয়েকজন মার্কিন রাজনীতিককে নিজেদের দায়ী করতে হবে। রাশিয়ার দূতও চীনকে সমর্থন দেন। তিনি বলেন, যুক্তরাষ্ট্র একেবারে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে।
এদিকে, নিরাপত্তা পরিষদের বৈঠকে বিভিন্ন দেশের দূতদের সমালোচনা করেন মার্কিন দূত ক্রাফট। তিনি বলেন, আপনাদের সবার লজ্জা হওয়া উচিত। আজকের বৈঠকের বিষয়বস্তু নিয়ে আমি হতবাক ও মেনে নিতে পারছি না। এই পরিষদ নিয়ে সত্যিই আমি লজ্জিত। এই পরিষদের সদস্যরা চলমান সংকট নিয়ে কথা বলার চাইতে রাজনৈতিক ফায়দা হাসিলের চেষ্টা করছেন। এরপর চীনা দূত কথা বলার আগেই ক্রাফট বৈঠক ছেড়ে চলে যান। বার্তা সংস্থা এএফপি জানিয়েছে, মার্কিন দূত আলোচনাজুড়ে খুবই আক্রমণাত্মক হয়ে ছিলেন।

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

নূর মোহাম্মদ নূরু

২০২০-০৯-২৯ ০৩:২৩:৩১

চীন যে করোনার উৎপাদক ও বিশ্বজুড়ে করোনা বিস্তারের জন্য দায়ী এটাই বাস্তব সত্য। এজন্য চীনের শাস্তি হওয়া দরকার ও চীন থেকে ক্ষতিপূরণ আদায় করা দরকার।

আপনার মতামত দিন

বিশ্বজমিন অন্যান্য খবর

সিএনএনের রিপোর্ট

করোনা টিকার পরীক্ষায় সর্বকনিষ্ঠ স্বেচ্ছাসেবক

২৬ অক্টোবর ২০২০

আল জাজিরার রিপোর্ট

করোনা: শ্রীলঙ্কায় পার্লামেন্ট বন্ধ

২৬ অক্টোবর ২০২০

বিবিসির প্রতিবেদন

‘করোনা মহামারি নিয়ন্ত্রণ করছে না যুক্তরাষ্ট্র’

২৬ অক্টোবর ২০২০

রয়টার্সের প্রতিবেদন

করোনা: ফ্রান্সে দিনে এক লাখ আক্রান্ত হতে পারেন

২৬ অক্টোবর ২০২০

রয়টার্সের প্রতিবেদন

ট্রাম্পের বক্তব্য প্রত্যাখ্যান করলেন পুতিন

২৬ অক্টোবর ২০২০

বিবিসির প্রতিবেদন

ফরাসি পণ্য বর্জনের ডাকে আরবের শপিংমলে ভিন্ন চিত্র

২৬ অক্টোবর ২০২০

বিবিসির প্রতিবেদন

করোনায় স্পেনে জরুরি অবস্থা, রাতে কারফিউ

২৬ অক্টোবর ২০২০



বিশ্বজমিন সর্বাধিক পঠিত



ইন্ডিপেন্ডেন্টের রিপোর্ট

ট্রাম্প উন্মাদ হয়ে গেছেন- ওবামা

আল জাজিরার প্রতিবেদন

গ্রে লিস্টেই থাকবে পাকিস্তান