দল গঠনের কাজ ৭০ ভাগ শেষ করেছি

মরিয়ম চম্পা

প্রথম পাতা ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০, শুক্রবার | সর্বশেষ আপডেট: ৫:৩৪

রাজনৈতিক প্ল্যাটফরম গঠনের প্রক্রিয়া চলমান জানিয়ে ডাকসু’র সাবেক ভিপি নুরুল হক নুর জানিয়েছেন, দল গঠনের কাজ ৭০ ভাগ শেষ হয়েছে। এ বছরের শেষেই আনুষ্ঠানিক ঘোষণা আসতে পারে। তবে শুরুতে দল গঠনের প্রক্রিয়ার অংশ হিসেবে একটি নাগরিক প্ল্যাটফরম গঠন করা হবে মানবজমিনকে তিনি বলেন, নাগরিক প্ল্যাটফরম ঘোষণার মাধ্যমে বিভিন্ন নাগরিকদের সঙ্গে একটি যোগসূত্র স্থাপন করার চেষ্টা করবো জোরালোভাবে। সে জায়গা থেকে মনে হয় আমাদের ৭০ ভাগ কাজ হয়ে গেছে। আমরা দেখেছি যে, অন্যান্য রাজনৈতিক দলগুলোতে যেটা হয় একটি বড় মিছিলে ১০ থেকে ১৫ জন পুলিশ হুইসেল দিলে অনেকে ছিন্নবিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। কিন্তু আমাদের নেতাকর্মী রয়েছে তারা সংখ্যায় অল্প কিন্তু সবাই ডেডিকেটেড। একেবারে শেষ পর্যন্ত থাকে। কাউকে ভয় পায় না।
গত ২১শে সেপ্টেম্বর যখন গ্রেপ্তার হই তখন আমার সঙ্গে নবম শ্রেণিতে পড়ুয়া একজন কর্মী গ্রেপ্তার হয়েছেন। সংগঠনে আমরা লোক অল্প হলেও এটা কিন্তু সরকার খুব ভালোভাবে নিয়েছেন।

তিনি বলেন, আমি মনে করি যে, আমাদের লোক অল্প হলেও বাংলাদেশে বর্তমানে এই স্বৈরশাসনের বিরুদ্ধে আন্দোলন সংগ্রাম করার জন্য আমাদের যথেষ্ট সক্ষমতা বা সেই লোক তৈরি হয়েছে। তবে এটা মোটামুটি নিশ্চিত যে, চলতি বছরের শেষের দিকে রাজনৈতিক দল সরাসরি ঘোষণার মাধ্যমে একটি নাগরিক প্ল্যাটফরম ঘোষণা করবো। যেটা আমাদের রাজনৈতিক প্রক্রিয়ার অংশ। ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের ব্যবহার প্রসঙ্গে বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ আন্দোলনের এই নেতা বলেন, বর্তমান সরকার ক্ষমতায় থাকার জন্য আইনকে একটি অস্ত্র হিসেবে ব্যবহার করছে জনগণের বিরুদ্ধে। ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের প্রয়োগ যদি আমরা দেখি তাহলে দেখা যাবে শুরু থেকে বিরোধী কিংবা ভিন্নমতের মানুষদেরকে দমাতে বা তাদের উপরই ব্যবহার করা হয়েছে। সংসদ সদস্য, মন্ত্রী, সরকারের বিরুদ্ধে সমালোচনা করেছেন এইসব অভিযোগে বেশির ভাগ মামলা হয়েছে। এবং এই মামলায় কিন্তু সাধারণ মানুষের চেয়ে সাংবাদিক বা সংবাদকর্মীরা বেশি হয়রানির শিকার হয়েছেন।

সম্পাদক পরিষদসহ সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান এই আইন নিয়ে আপত্তি তুললে তখনকার তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু বলেছিলেন, এই আইনে সাংবাদিকরা হয়রানির শিকার হবে না। কিন্তু বাস্তবিক অর্থে আইনটির যখন থেকে প্রয়োগ শুরু হয়েছে তখন থেকে আমরা দেখতে পাচ্ছি সাংবাদিক থেকে শুরু করে মুক্তমনা মানুষ যারা লেখালেখি ও প্রতিবাদ করেন, দেশের কথা ভাবেন তারাই আইনটির ভুক্তভোগী হচ্ছেন। ফলে আমি মনে করি যে, এটি বাংলাদেশ সরকারের বড় একটি দমনপীড়নমূলক আইন। সরকার জরিপ চালালে দেখতে পাবে শতকরা ৭০ ভাগ মানুষ এই আইনের বাতিল চায়। কিন্তু সরকার অল্পতে আটক করতে বা বাগে নিতে এই আইনটির প্রচলন করেছে। করোনাকালীন সময়েও প্রায় ৭১ জন সাংবাদিকের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা হয়েছে। গণমাধ্যমের কর্মীরা মুক্তভাবে সাংবাদিকতা করতে পারে না। লিখতে পারে না। সেখানে সাধারণ মানুষ কি যাতনার মধ্যে আছে সেটা বলার অপেক্ষা রাখে না। এই আইনটি বাতিলের জন্য আমরা আন্দোলনের কথা ভাবছি। দেশের বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষকে সম্পৃক্ত করে এই ধরনের যত গণবিরোধী আইন আছে তার বিরুদ্ধে আমরা আন্দোলন গড়ে তুলবো।

নুর বলেন, ডিবি কার্যালয়ে নিয়ে আমাদের বলা হয় ‘আপনারা যদি সরকারবিরোধী আন্দোলন কর্মকাণ্ড করেন, সেগুলো বাদ দিতে হবে। না হলে সামনে আরো বড় ধরনের ঝামেলায় পড়বেন। এটা টেস্ট ছিল। সামনে এর চেয়ে বড় ঝামেলা হবে।’ তারা চেয়েছিল গ্রেপ্তার করতে। কিন্তু গ্রেপ্তারের পর সাধারণ মানুষের এবং রাজনৈতিক অঙ্গনসহ বিভিন্ন স্থান থেকে যে প্রতিক্রিয়া এসেছে তখন হয়তো সরকারের দায়িত্বশীল মহল এবং প্রশাসন বিষয়টি বুঝতে পেরেছেন। অন্যায়ভাবে একজন ছাত্রনেতাকে এভাবে আটক রাখলে সেটার পরিণতি তাদের জন্য খারাপ হতে পারে। আমার মনে হয় এটা তারা পর্যবেক্ষণ করেই আমাদের সাতজনের কাছ থেকে মুচলেকা নিয়ে ছেড়ে দিয়েছেন।

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

NARUTTAM KUMAR BISHW

২০২০-০৯-২৬ ১৬:০৪:১৫

আমরা জানি নুর ভাই অনেক জনপ্রিয়, মানুষের অধিকার নিয়ে কথা বলে, কিন্তু তিনি রাষ্ট ক্ষমতায় গেলে তিনিও যে স্বৈরাচার হবেন না তার গ্যারান্টি কে দেবে? আসলে আমাদের রাজনৈতিক ইতিহাসটাতো খুব ভাল সাক্ষ্য দেয় না। যে ক্ষমতায় যায় সে রাজা বা জমিদারী শাসন কায়েম করতে চায়।

মো: আসাদুজ্জামান বিপ

২০২০-০৯-২৫ ০৮:০৯:৪৪

নুর ভাই আমার ভালোবাসার একজন প্রিয় নেতা। আমার মতামত হলো আপনি অতি তারাতারি সারাদেশে একটি রাজনৈতিক দল তৈরি করেন। এবং সারাদেশে আপনার জনপ্রিয়তা ব্যাপক।আগামীর প্রধানমন্ত্রী হিসেবে নুর ভাইকে দেখতে চায় বাংগালী জনতা।

Zahurul Chowdhury

২০২০-০৯-২৫ ১২:২০:৩৬

I know you haven't officially declared the party name yet but are you looking for citizens to join your party at this stage as most of the ppl don't know how to join that specially via online. Also you should have a secure method to collect donations from the ppl all over the world, do you have that arrangement currently?

z Ahmed

২০২০-০৯-২৫ ১২:০৬:৫৫

Why do you form a new political party? Bangladesh has had more than 100 political parties, Do we need any more political party? Your new party will surely be vanished in the passage of time or may be an "opportunist party" like the others, waiting for money at the right time!!!!!!

Nurun Nabi

২০২০-০৯-২৫ ০৪:৩৯:১৬

Nur you are in my prayer. I do not look for jainamaz to pray for you.

Mohammed Moniruzzama

২০২০-০৯-২৪ ১৪:৩৬:০৩

Mr. Nuru I think you’re are knowledge less person about the purpose of this world and the hereafter. Please know and earn the knowledge about otherwise you will carry all the people’s burdens I mean sin who will follow you. Don’t get destruction by the devil. It is my advice I am attaching the book’s link if have a time for better future please read it first. And by the way I live in New York if you can help And good advice the current government which will help better than your thought please. Again please read the book http://ahlehadeethbd.org/online_books/dhormoniropekkhotabad/2.html

আপনার মতামত দিন

প্রথম পাতা অন্যান্য খবর

খরচ ১ লাখ বিশ হাজার কোটি টাকা

যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে সবচেয়ে ব্যয়বহুল নির্বাচন

৩০ অক্টোবর ২০২০

সিলেটে রায়হান হত্যা

১৯ দিন পর গ্রেপ্তার এলাহী

৩০ অক্টোবর ২০২০

এএসআই আশেক এলাহী ধরেছিলেন সিলেটের রায়হানকে। নগরীর কাস্টগড় এলাকার সুইপার কলোনি থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে ...

মুক্তিযোদ্ধাদের নামের আগে ‘বীর’ লিখতে হবে

৩০ অক্টোবর ২০২০

সব মুক্তিযোদ্ধার নামের আগে ‘বীর’ শব্দটি ব্যবহারের বিধান করে গেজেট প্রকাশ করেছে সরকার। গতকাল মুক্তিযুদ্ধ ...

ছুটির নোটিশ

৩০ অক্টোবর ২০২০

পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) উপলক্ষে আজ মানবজমিন-এর সকল বিভাগ বন্ধ থাকবে। তাই আগামীকাল পত্রিকা প্রকাশিত ...

অমানবিক!

২৯ অক্টোবর ২০২০



প্রথম পাতা সর্বাধিক পঠিত