‘খুন হওয়া’ কিশোরী জীবিত উদ্ধার ঘটনার বিচারিক তদন্তের নির্দেশ

স্টাফ রিপোর্টার

শেষের পাতা ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০, শুক্রবার | সর্বশেষ আপডেট: ৩:১৭

নারায়ণগঞ্জে ‘মৃত’ কিশোরীর জীবিত ফিরে আসার ঘটনায় বিচারিক তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। আগামী ৪ঠা নভেম্বরের মধ্যে এই প্রতিবেদন আদালতে দাখিল করতে বলা হয়েছে। বৃহস্পতিবার বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন। আদালতে আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট মোহাম্মদ শিশির মনির। এর আগে গত ২৫শে আগস্ট নারায়ণগঞ্জে ধর্ষণ ও হত্যার শিকার স্কুলছাত্রীর ফিরে আসার ঘটনায় নথি তলবের নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে রিভিশন আবেদন দায়ের করা হয়।

পাঁচ আইনজীবীর পক্ষে অ্যাডভোকেট মোহাম্মদ শিশির মনির এ আবেদন দায়ের করেন। আইনজীবী হলেন- মো. আসাদ উদ্দিন, মো. জোবায়েদুর রহমান, মো. আশরাফুল ইসলাম, মো. আল রেজা আমির ও মো. মিসবাহ উদ্দিন।

গত ২৪শে আগস্ট ‘ধর্ষণের পর নদীতে লাশ ফেলে দেয়া স্কুলছাত্রীর ৪৯ দিন পর জীবিত প্রত্যাবর্তন’ শীর্ষক শিরোনামে একটি জাতীয় দৈনিকে প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়।
ওই প্রতিবেদন আইনজীবী মোহাম্মদ শিশির মনির ২৪শে আগস্ট হাইকোর্টের নজরে আনেন। পরদিন একটি রিভিশন মামলা করা হয়।
ঘটনার বিবরণে জানা গেছে, নারায়ণগঞ্জ শহরের দেওভোগ পাক্কা রোড এলাকার এক স্কুলছাত্রী গত ৪ঠা জুলাই নিখোঁজ হয়। বিভিন্ন স্থানে খোঁজাখুঁজির পর ১৭ই জুলাই সদর মডেল থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেন স্কুলছাত্রীর বাবা।
এক মাস পর ৬ই আগস্ট একই থানায় স্কুলছাত্রীর বাবা অপহরণ মামলা করেন। মামলায় প্রধান আসামি করা হয় বন্দর উপজেলার বুরুণ্ডি খলিলনগর এলাকার আমজাদ হোসেনের ছেলে আব্দুল্লাহ (২২) ও তার বন্ধু বুরুণ্ডি পশ্চিমপাড়া এলাকার সামসুদ্দিনের ছেলে রকিব (১৯)কে। তাদের ওইদিনই গ্রেপ্তার করা হয়। দু’দিন পর গ্রেপ্তার করা হয় বন্দরের একরামপুর ইস্পাহানি এলাকার বাসিন্দা নৌকার মাঝি খলিল (৩৬)কে।
গত ৯ই আগস্ট পুলিশ জানায়, স্কুলছাত্রীকে গণধর্ষণের পর হত্যা করে মরদেহ নদীতে ভাসিয়ে দেন আসামিরা। তারা আদালতে ১৬৪ ধারায় এ ঘটনা স্বীকার করে জবানবন্দি দিয়েছেন। অথচ ২৩শে আগস্ট দুপুরে বন্দরের নবীগঞ্জ রেললাইন এলাকায় সুস্থ অবস্থায় পাওয়া যায় নিখোঁজ স্কুলছাত্রীকে। সে নিজে তার মাকে একটি দোকান থেকে কল করে চার হাজার টাকা চায়!

বাবা-মা এতে অবাক হয়ে মামলার তদন্ত কর্মকর্তাকে বিষয়টি জানান। পরে স্কুলছাত্রীকে নিয়ে তারা থানায় হাজির হন। তাদের সঙ্গে ছিল কিশোরীর স্বামী ইব্রাহিম। তাকে জীবিত অবস্থায় পাওয়ায় তোলপাড় সৃষ্টি হয়। পুলিশের তদন্ত ও আদালতে দেয়া জবানবন্দিও প্রশ্নবিদ্ধ হয়।

আপনার মতামত দিন

শেষের পাতা অন্যান্য খবর

করোনার ধাক্কায় চিড়েচ্যাপ্টা বিমান সংস্থাগুলো

ফ্লাইটে একজন মাত্র যাত্রী!

২৫ অক্টোবর ২০২০

বিশ্ব কি দেখবে নতুন নেতা বাংলাদেশ?

২৫ অক্টোবর ২০২০

বাংলাদেশ রাষ্ট্র মানুষের ভিড়ে উপচে পড়া। জনাকীর্ণ। জনবহুল। বন্যায় বড় বেশি ঝুঁকিপূর্ণ। একাত্তরে প্রতিষ্ঠিত দেশটি ...

করোনার মধ্যেও রেমিট্যান্স পাঠিয়ে যাচ্ছেন অভিবাসীরা

২৫ অক্টোবর ২০২০

বিশ্বজুড়ে বর্তমানে অভিবাসী রয়েছেন ২৭ কোটি। তারা নিজ দেশে যে নগদ অর্থ পাঠিয়ে থাকেন, তা ...

রায়হান হত্যায় ক্ষোভ

কনস্টেবল হারুন ৫ দিনের রিমান্ডে

২৫ অক্টোবর ২০২০

আওয়ামী লীগের সহযোগী সংগঠন

বিতর্কমুক্ত থাকাই বড় চ্যালেঞ্জ

২৪ অক্টোবর ২০২০

পাপুলের বিরুদ্ধে কুয়েতি এমপি’র সাক্ষ্য

২৪ অক্টোবর ২০২০

কুয়েতে মানব পাচার ও অবৈধভাবে মুদ্রা পাচারের অভিযোগে আটক বাংলাদেশি এমপি কাজী শহিদ ইসলাম পাপুলের ...

বাংলাদেশকে ১০০টি ভেন্টিলেটর পাঠিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র

২৪ অক্টোবর ২০২০

কোভিড-১৯ মোকাবিলায় সহায়তার অংশ হিসেবে বাংলাদেশের জন্য ১০০টি ভেন্টিলেটর পাঠিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। মার্কিন সরকারের আন্তর্জাতিক উন্নয়ন ...

সাশ্রয়ী বেসিক সংযোগ আনলো আকাশ ডিটিএইচ

২৪ অক্টোবর ২০২০

টেলিভিশন দর্শকদের জন্য সাশ্রয়ী ‘আকাশ বেসিক’ সংযোগ নিয়ে এসেছে বেক্সিমকো কমিউনিকেশন্স। বিশেষভাবে তৈরি সেট টপ ...



শেষের পাতা সর্বাধিক পঠিত



করোনার ধাক্কায় চিড়েচ্যাপ্টা বিমান সংস্থাগুলো

ফ্লাইটে একজন মাত্র যাত্রী!

আওয়ামী লীগের সহযোগী সংগঠন

বিতর্কমুক্ত থাকাই বড় চ্যালেঞ্জ