আ/ম/ব/য়া/ন

একটি স্বপ্নের চাকরি এবং...

সাজেদুল হক

মত-মতান্তর ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০, সোমবার | সর্বশেষ আপডেট: ৫:৪২

জাতি হিসেবে আমরা সম্ভবত ঈর্ষাপরায়ণ। একজন মানুষ অসামান্য সফলতা দেখিয়েছে। কোথায় সবাই মিলে বাহবা দিবে তা না! সবাই মশগুল তার সমালোচনায়। নাকি এটা এক ধরনের আফসোসও! বই, পুস্তক পড়ে, মোটিভেশনাল বক্তৃতা শুনে তো জীবনে এতোটা সফল হওয়া যায় না।

তার কাহিনী এরইমধ্যে মোটামুটি সবার জানা হয়ে গেছে। ‘ভদ্রলোকের’ নাম আবদুল মালেক। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পুলের একজন গাড়ি চালক। তৃতীয় শ্রেণির কর্মচারী।
১৯৮২ সালে তার চাকরি জীবন শুরু হয়েছিল। এরপর আস্তে আস্তে জীবনটা তার পাল্টাতে থাকে। আর এখন এমন সম্পদশালী তিনি যা অনেকের কল্পনারও বাইরে। ঢাকায় সাত তলা দু’টি ও ১০ তলা একটি বাড়ি। একটি বাড়িতেই ২৪টি ফ্ল্যাট। আর বেশি বিবরণ দিতে চাই না! আমরা কেউইতো আসলে ঈর্ষার বাইরে নই।

অবশ্য আবদুল মালেকরা একেবারে অভিনব কোনো চরিত্র নয়। মাঝে মাঝেই এমন সম্পদশালী তৃতীয় শ্রেণির কর্মচারীদের কাহিনী সামনে আসে। সংবাদপত্রে বড় বড় হেডলাইন হয়। একমুখী টিভি চ্যানেলে হয় বিস্তর বিশ্লেষণ। আবদুল মালেক, আবজালরা কীভাবে নিজেদের টাকার মেশিনে পরিণত করেন তা সবার জানা। কারা তাদের এই মেশিন হতে সহযোগিতা করে, মেশিনের উৎপাদনের বড় অংশ কারা নিয়ে যায় তাও সহজে অনুমান করা যায়। ড্রাইভারদের নাম তবু মাঝে-মধ্যে আলোচনায় আসে। কখনো কখনো তাদের কারাগারেও যেতে হয়। কিন্তু স্যারেরা প্রায় সব সময়ই থেকে যান আড়ালে। কিংবা তাদের স্যারেরা। বাংলাদেশে তা নিয়ে খুব একটা আলোচনা হয় না, গবেষণা হয় না।

কোটিপতি ক্লাবে সদস্য সংখ্যা প্রতিনিয়তই বাড়ছে। বাড়ছে ভিনদেশি বেগমপাড়ায় বাংলাদেশি ভাবিদের প্রভাব-প্রতিপত্তি। প্রভাবশালী মানুষেরা বিপুল অর্থ পাচার করে দিচ্ছে বিদেশে। তাদের স্বজনদের স্বপ্ন আশা-আকাঙ্খা সব বেগমপাড়া ঘিরে। আবদুল মালেকের বিস্ময়কর কাহিনীর মধ্যেই পুরনো একটি বিষয় নিয়ে নতুন রিপোর্ট পড়ছিলাম। দুর্নীতি দমন কমিশনের অনুসন্ধানে প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী, যুবলীগের বহিষ্কৃত নেতা ইসমাইল হোসেন চৌধুরী সম্রাট সিঙ্গাপুর ও মালয়েশিয়াতে পাচার করেছেন ২২৭ কোটি টাকা। আর এর বেশিরভাগ টাকাই তিনি উড়িয়েছেন সিঙ্গাপুরে ক্যাসিনোর টেবিলে। ফরিদপুরে মাঝারি গোছের দুই নেতার (আপন দু’ ভাই) ২০০০ কোটি টাকা পাচারের কাহিনীতো এরই মধ্যে প্রকাশিত। কিন্তু সবাই জানেন, প্রকাশের বাইরে রয়ে গেছে আরো বহুকিছু।
এসব দেখেই কি-না আবদুল মালেকের সম্পদের পাহাড় বিস্মিত করতে পারেনি শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ^বিদ্যালয়ের পলিটিক্যাল স্টাডিজ বিভাগের অধ্যাপক নজরুল ইসলামকে। তিনি লিখেছেন, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের ড্রাইভারের এত এত সম্পদ দেখে অবাক হচ্ছেন। মনে হচ্ছে এটা যেন খুব নজিরবিহীন একটা ঘটনা। খবরটা দেখে আমার মধ্যে তেমন কোন প্রতিক্রিয়াই হয় নি। এই লুটেরা সমাজের জন্য খুবই সাধারণ মানের একটা খবর। এই রকম ‘সফল’ মানুষ এই সমাজে যে কত আছে তার হিসেব নেই। বলি কি! এই ড্রাইভার সাহেবকে রাষ্ট্রীয়ভাবে ‘মোটিভেশনাল স্পিকার’ হিসেবে নিয়োগ দেয়া হোক। স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রী, সরকারি কর্মকর্তা, কর্মচারীদের তিনি কার্যকরীভাবে মোটিভেশন দিবেন যে কিভাবে এত ছোট চাকরি করেও এত সফল হওয়া যায়। এতে করে আমরা একটা সফল জাতি তৈরি করতে সক্ষম হব। যদিও ইতোমধ্যে আমরা এ ক্ষেত্রে বেশ সফল হয়েছি, আরো সফল হতে পারব। ড্রাইভারের ‘স্যার’রা সব দুধের ধোয়া তুলসী পাতা।

গত কয়েক বছর ধরে মাঝে মাঝেই বাংলাদেশকে সিঙ্গাপুরের সঙ্গে তুলনা করা হয়ে থাকে। নিশ্চয়ই আমাদের এক গাড়ি চালকের সম্পদের বিবরণী শুনে সিঙ্গাপুরের গাড়ি চালকরাও তাজ্জব বনে যাবেন। দেশটির প্রখ্যাত উন্নয়ন গবেষক কিশোর মাহবুবানি। সম্প্রতি তার একটি ভিডিও ফেসবুকে শেয়ার করেছেন বাংলাদেশের খ্যাতিমান অর্থনীতিবিদ প্রফেসর ওয়াহিদউদ্দিন মাহমুদ। ওই ভিডিও শেয়ার দিয়ে তিনি লিখেছেন, ১৯৬৫ সনে স্বাধীনতা লাভের সময় সিঙ্গাপুর ছিলো একটি অত্যন্ত দবিদ্র তৃতীয় বিশ্বের দেশ, আর এখন দেশটি পৃথিবীর সবচেয়ে ধনী দেশগুলোর অন্যতম। এই ভিডিওটিতে সে দেশের উন্নয়ন গবেষক কিশোর মাহবুবানি নিজের জীবনব্যাপী অভিজ্ঞতা থেকে এই উন্নয়নের পেছনে প্রধান তিনটি নিয়ামকের উল্লেখ করেছেন, যেগুলো হল

১. সকল পদে মেধার ভিত্তিতে নিয়োগ (স্বজনপ্রীতি বা অন্য কোন বিবেচনার বিপরীতে),

২. দেশ শাসনের সর্বস্তরে সততা ও কর্তব্যপরায়নতা (দুর্নীতির বিপরীতে), এবং

৩. বাস্তবতার বিবেচনায় নীতি প্রণয়ন ও বাস্তবায়ন।

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

Mujibur Rahman Sheik

২০২০-০৯-২২ ০৩:০৪:৫৮

Aha! Ki Nurani Chehara!

শওকত আলী

২০২০-০৯-২১ ১৭:২৭:৫৪

অসাধারণ লেখনী। ধন্যবাদ সম্মানিত কলামিষ্ট এবং মানবজমিনকে। কথায় আছে মাছের পচন যদি মাথায় শুরু হয় তাহলে মাছটি বেশিক্ষণ টিকবে না। আর মাছের পচন যদি লেজে শুরু হয় তাহলে তা কিছুদিন হলেও টিকে থাকবে। বলা যায় আমাদের জাতির পচনটা শুরু হয়েছে মাথা থেকে।

kamal

২০২০-০৯-২১ ১৫:১২:৫০

সাংবাদিকরা সহ সকল সরকারি, বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের অধিকাংশ স্টাফ দুর্নিতিবাজ, সাংবাদিকরা দুর্নিতিবাজ হওয়ার কারণে রাষ্ট্রের ক্ষতি হচ্ছে বেশি। আর সবচেয়ে বড় দুর্নিতিবাজ আমরা- এদেশের জনগণ, এত দুর্নিতি হওয়ার পর আমরা মুখ বুজে সয্য করি।

hamdumia

২০২০-০৯-২১ ১৪:০৩:২২

Ei haramkhor ke rastrio bhabey puroskrito kora houk ebong degree dhari lokder shamne niye porichiti korano houk. Ei haramkhor munafiq ya boro dorbeshi daari ebong pistol rekhe jodi ei obostha korey, taholey er boss DG beta ebong tar shango pango der ki obostha? Babhteo ga shihorito hoye utte. te na holeo, edhoroner munafiq der shasti Allah SWT yakinan nije korben. And Allah knows best.

Fazlu

২০২০-০৯-২১ ১৩:১১:৫৪

আমাদের দেশে মাদক আর দূর্নীতির আগ্রাসন করোনার চেয়ে হাজার গুণ ভয়ঙ্কর। শুধু টর্চের ফোকাশটা ঠিক জায়গায় ফেলুন, দেখতে পাবেন তার আসল চেহারা!

Citizen

২০২০-০৯-২১ ১৩:০২:৫০

These people and such people are the source of power of the present government. If Sheikh Hasina can become PM of the country repeatedly and consecutively by cheating the whole nation, in no-votes and in night-votes; then what is this hue and cry when some people make some money without any direct harm to anybody. Its nobody's money anyway, its only public money..

ওয়াছি উদ্দিন

২০২০-০৯-২০ ২৩:১৭:৩৮

একজন ড্রাইভারের যদি শত কোটি টাকার বাড়ী থাকে অন্যান্য কর্মকর্তা কর্মচারীর কি অবস্থা একমাত্র আল্লাহ্ ভালো জানে। আমার মনে সব মন্ত্রণালয়েরও একই অবস্থা। তদন্তের মাধ্যমে উদঘাটন করে যাবতীয় অর্থ ও সম্পত্তি ক্রোক জদ্ধ করা উচিত সরকারের।

Faruque Ahmed

২০২০-০৯-২১ ১১:৫৪:১৭

বিশেষত এই ড্রাইভার কীভাবে অর্থ পান, এটি তদন্তের বিষয়। তবে সম্পূর্ণ তদন্তের আগে সংবাদপত্র ফ্যাক্টরটি প্রকাশ করে, যা এখনও তদন্তাধীন রয়েছে। এই ধরণের ক্রিয়াকলাপ অন্যান্য লোককে বিভ্রান্ত করে। আমি যদি গরীব মানুষের ছেলে, তবে কি ধনী ব্যক্তি হওয়া অসম্ভব?

জাফর আহমেদ

২০২০-০৯-২০ ২২:২৭:৪৬

একটা আমলার গাড়ি চালক তার যদি এতো এতো সম্পদ তাহলে সেই আমলার কতো সম্পদ , আমলার উপরে মন্ত্রী তার কতো সম্পদ, আল্লাহ তাআলা এদেশের মানুষকে বাঁচাতে যদি তার গযবের দরজা খুলে দেন,

আপনার মতামত দিন

মত-মতান্তর অন্যান্য খবর

ম্যারাডোনা ও বাংলাদেশ

২৬ নভেম্বর ২০২০

এমন মৃত্যু মানা যায় না

১৬ নভেম্বর ২০২০

ভ্যাকসিন জাতীয়তাবাদ

১৫ নভেম্বর ২০২০

বাসে সিরিজ আগুন

উদ্বেগের বৃহস্পতিবার, জনমনে নানা প্রশ্ন

১৩ নভেম্বর ২০২০



মত-মতান্তর সর্বাধিক পঠিত

DMCA.com Protection Status