স্বপ্নভঙ্গের যন্ত্রণা নিয়ে দেশ ছাড়লেন ড. বিজন শীল

অনলাইন ডেস্ক

অনলাইন ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০, রোববার, ১০:১৬ | সর্বশেষ আপডেট: ১২:১৭

স্বপ্ন দেখেছেন, যে মাতৃভূমির আকাশে বাতাসে বেড়ে উঠেছেন তার জন্য কিছু করবেন। দেশের মানুষের জন্য কাজ করবেন। অনেকটা পথ এগিয়ে গিয়েছিলেনও। স্বপ্নযাত্রার ধাপগুলো এক এক করে পার করেছিলেন। আবিষ্কার করেছিলেন নভেল করোনা ভাইরাস শনাক্তের র‌্যাপিড কিট। কিন্তুস্বপ্ন স্বপ্নই রয়ে গেলো ড. বিজন শীলের। তার কিটের অনুমোদন মেলেনি । তাই স্বপ্নভঙ্গের যন্ত্রণা নিয়ে দেশ ছাড়লেন এই বিজ্ঞানী।
রোববার ভোরেই সিঙ্গাপুরের উদ্দেশ্যে রওনা দেন ড. বিজন শীল।

সিঙ্গাপুর থেকে ওয়ার্ক পারমিট নিয়ে বাংলাদেশে এসেছিলেন ড. বিজন। তিনি গণবিশ্ববিদ্যালয়ের মাইক্রোবায়োলজি বিভাগের প্রধান হিসেবে শিক্ষকতা করছিলেন। এর মধ্যে করোনা সংক্রমণ শুরু হলে পূর্ব অভিজ্ঞতার ভিত্তিতে তিনি তা শনাক্তে অ্যান্টিজেন্ট ও অ্যান্টিবডি কিটের উদ্ভাবন করেন। যদিও তার অনুমোদন মেলেনি শেষ পর্যন্ত।

গত জুলাইয়ে তার ওয়ার্ক ভিসার মেয়াদ শেষ হয় । তারপর ওয়ার্ক ভিসার জন্য আবেদন করলেও সরকারের পক্ষ থেকে এখনো কোনো উত্তর দেয়া হয়নি। ওয়ার্ক ভিসার অনুমতি পেলে তিনি আবার বাংলাদেশে কাজে ফিরতে পারবেন।
তিনি বলেন, বাংলাদেশে তো আমি সব সময়ই আসা-যাওয়ার মধ্যে ছিলাম। এবার যাওয়ার আগে কেন যেন মনটা খুব বিষণ্ন। খুব কষ্ট অনুভব করছি। আমার ওয়ার্ক পারমিট হবে না, এমন সিদ্ধান্তও কিন্তু জানিয়ে দেয়া হয়নি। কষ্টের কারণ হয়তো, এত মান সম্পন্ন কিট উদ্ভাবন করলাম, এখনো অনুমোদন পেলাম না। উল্লেখ্য, গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র ড. বিজন কুমার শীলদের উদ্ভাবিত অ্যান্টিজেন ও অ্যান্টিবডি কিটের ঘোষণা দেয় মার্চ মাসের দ্বিতীয় সপ্তাহে।

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

Jesmin Anowara

২০২০-০৯-২১ ১৯:৪৮:৩৪

Because mr. bizon is pure Bangladashi , he is not indian or awami supporter , presently only indian or awami can live in Bngladesh, if you are not indian or awami supporter you can not do a job in bangladesh , look at a teacher of dhaka university

Shahab

২০২০-০৯-২০ ০৪:৫৭:২৭

I am very very sorry Mr. Vijay. I hope you will be back as soon as. Have a safe journey.

N Islam

২০২০-০৯-২০ ০৪:৪৬:৫৭

হাজার হাজার ভারতীয় নাগরিক ওয়ার্ক পারমিট ছাড়াই এদেশে কাজ করছে । অথচ জন্মসূত্রে বাংলাদেশী হয়েও তাঁর ওয়ার্ক পারমিট লাগবে কেন বুঝলামনা ।

sumon

২০২০-০৯-২০ ১৫:৪৩:২৭

আমরা আপনার নিকট লজ্জিত, কারণ আমরা আপনার যথাযর্থ মুল্যালয় করতে পারিনি। আপনি যখন আবার আসবেন, তখন দলীয় মার্কা নিয়ে আসবেন, তাহলে কিটের ছাড়পত্র পাবেন এবং ভিসা ছাড়াও দেশে থাকতে পারবেন।

খলিলুর রহমান

২০২০-০৯-২০ ১৩:৫০:০০

আমরা আপনার নিকট লজ্জিত, কারণ আমরা আপনার যথাযর্থ মুল্যালয় করতে পারিনি। আপনি যখন আবার আসবেন, তখন দলীয় মার্কা নিয়ে আসবেন, তাহলে কিটের ছাড়পত্র পাবেন এবং ভিসা ছাড়াও দেশে থাকতে পারবেন।

খলিলুর রহমান

২০২০-০৯-২০ ১৩:৪৯:৪৪

আমরা আপনার নিকট লজ্জিত, কারণ আমরা আপনার যথাযর্থ মুল্যালয় করতে পারিনি। আপনি যখন আবার আসবেন, তখন দলীয় মার্কা নিয়ে আসবেন, তাহলে কিটের ছাড়পত্র পাবেন এবং ভিসা ছাড়াও দেশে থাকতে পারবেন।

লবিব

২০২০-০৯-১৯ ২৩:১৪:৩৭

আমার বাঙলায়, পাপলু/পাপিয়া/বদি, রাজনীতিবিদ। প্রদীপ পুরস্কার প্রাপ্ত পুলিশ। শাহেদ বুদ্ধিজীবি। ডাক্তার শীল, তোমার কাছে আমরা লজ্জিত।

NARUTTAM KUMAR BISHW

২০২০-০৯-২০ ১১:৫৫:৫৬

We are waiting for your work permit and anti-body kit permit from our country.

Hayder

২০২০-০৯-২০ ১১:১৮:১৮

আপনার আবিস্কার সিঙ্গাপুরকে দিয়ে দিন । তারপরও আপনার আবিস্কার মানব কল্যানে আসুক ।

Tasmin

২০২০-০৯-১৯ ২২:১৩:৫৫

All patriotic Bangladeshi will feel you. You wanted to help the people along with Dr Zaffrullah. Please cherish this love for the people of your country. 95 percent people love you. May Allah help you .

Tasmin

২০২০-০৯-১৯ ২২:১৩:৫৩

All patriotic Bangladeshi will feel you. You wanted to help the people along with Dr Zaffrullah. Please cherish this love for the people of your country. 95 percent people love you. May Allah help you .

Tasmin

২০২০-০৯-১৯ ২২:১৩:৫১

All patriotic Bangladeshi will feel you. You wanted to help the people along with Dr Zaffrullah. Please cherish this love for the people of your country. 95 percent people love you. May Allah help you .

নজরুল ইসলাম

২০২০-০৯-২০ ১১:০৯:১৯

আসলেই এই দেশ গুনি জনের মুল্য দেয় না এই দেশে ভেজাল খাদ্য ব্যবসায়ী সি আই পি দুর্নীতি বাজরা ভি আই পি প্রদিপ রা জাতিয় পুরুশকার পায় সাহেদ রা বুদ্দিজিবি হয় ।

Kazi

২০২০-০৯-১৯ ২১:৩৯:১৮

ভারত-শ্রীলংকার অনেক লোক শুনেছি পোশাক কারখানায় উচ্চ পদে আসীন । অথচ জন্মগত বাঙালি ওয়ার্ক পার্মিট পেল না। বাঙালি হওয়াটাই কি তার অপরাধ ? নাকি যোগ্যতা ? কারণ সরকারী কর্মকর্তা কর্মচারী খিচুড়ি রান্নার জন্য বিদেশে ট্রেণিং নিতে ১৫ কোটি বরাদ্দ চায় এরা তার যোগ্যতায় ভয় পাওয়া স্বাভাবিক । খিচুড়ি ও রাঁধতে জানে না।

আপনার মতামত দিন

অনলাইন অন্যান্য খবর

ওয়ালটনের নতুন মডেলের ল্যাপটপ উদ্বোধন করলেন আইসিটি সচিব

২৪ অক্টোবর ২০২০

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) বিভাগের সিনিয়র সচিব এন এম জিয়াউল আলম বলেছেন, ‘মেইড ইন ...



অনলাইন সর্বাধিক পঠিত