পদত্যাগের পর হাসপাতালে নেয়া হলো আল্লামা শফীকে

মো. আবু শাহেদ, হাটহাজারী থেকে

অনলাইন ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, শুক্রবার, ১২:৩৪ | সর্বশেষ আপডেট: ১২:০৫

হেফাজতে ইসলামের আমীর আল্লামা শাহ আহমদ শফীকে হাটহাজারী মাদরাসা থেকে অ্যাম্বুলেন্সে করে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়েছে। এরআগে শিক্ষার্থীদের দাবি অনুযায়ী তিনি মাদরাসার মুহতামিম পদ ছেড়ে দেন।গত দুই দিন ধরে আন্দোলন করে আসছিলেন শিক্ষার্থীরা। এসময় মাদরাসায় অবস্থান করা আহমদ শফী অসুস্থ হয়ে পড়েন বলে জানানো হয়েছে।
এদিকে বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে আটটা থেকে সাড়ে বারোটা পর্যন্ত হাটহাজারী খাগড়াছড়ি মহাসড়কে যান চলাচল বন্ধ ছিল। এতে দীর্ঘ যানজট সৃষ্টি হয়েছে। রাস্তার দুই পাশে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ও হেফাজত নেতাকর্মীরা কঠোর অবস্থানে ছিলেন।

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

সাগর

২০২০-০৯-১৭ ২২:০০:৪৩

তেঁতুল হুজুর অনেক তো হলো আর কতো? সাধারণের মাথা তো অনেক খেলেন! আপনাদের মতো ধর্মান্ধ ও ধর্মব্যবসায়ীদের জন্য আজো বাংলাদেশে ধর্মীয় গোঁড়ামি ও কুসংস্কারাচ্ছন্ন। তবে মানুষ এখন বুঝতে শিখেছে।

Kazi

২০২০-০৯-১৭ ১৮:০০:৩০

আমার মনে হয় দুঃখ পেয়ে শরীর অসুস্থ। বাংলাদেশ সহ ভারত বর্ষে সবাই আজীবন পদ আঁকড়ে থাকার প্রবণতা বাদ দিয়ে বিক্ষোভ জমা বাধার আগে পদত্যাগ করে সরে গেলে মানসিক কষ্ট কম হত।

সামসুদিদন চৌধুরী

২০২০-০৯-১৭ ১৭:৪৯:০১

আল্লাহর বিচার দুনিয়ায় থাকা অবস্তায় হয়ে যাচেছ। আল্লাহ মহান।

আশরাফ

২০২০-০৯-১৭ ১৩:২৭:৪০

আপনি মাদ্রাসা শিক্ষাকে কলঙ্কিত করেছেন ,এবার দয়া করে বিদায় নিন

মোঃ হান্নান আল হামিদ

২০২০-০৯-১৭ ১১:৪৩:১৯

উনার আর আগেই ক্ষমতা ছেড়ে দেওয়া উচিৎ ছিল। কারণ উনার এখন বয়স অনেক হয়েছে।যাই হোক উনি অনেক সম্মানী একজন মানুষ দোয়া করি আল্লাহ যেন উনাকে সুস্থতা দান করেন।

আপনার মতামত দিন

অনলাইন অন্যান্য খবর

বিচারের প্রতীক্ষায় থাকা এক বাবার আর্তি

‘দীপন যে নেই, সেই দুঃখের তো প্রতিকার নেই’

৩১ অক্টোবর ২০২০



অনলাইন সর্বাধিক পঠিত



পোশাক নিয়ে জারি করা নোটিশটি বাতিল

‘ক্ষমা প্রার্থনা করছি, ভবিষ্যতে এই ধরণের ভুল হবে না’

জনস্বাস্থ্য ইনস্টিটিউট পরিচালকের নির্দেশনা-

নারী কর্মীদের হিজাব, পুরুষদের টাকনুর ওপরে পোশাক পরতে হবে