সৌদিতে বাংলাদেশিদের রাজনীতি, সমাজকর্ম এবং সাংবাদিকতা নিষিদ্ধ!

কূটনৈতিক রিপোর্টার

অনলাইন ১ আগস্ট ২০২০, শনিবার, ৭:৩৪ | সর্বশেষ আপডেট: ৭:৩৯

বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূতকে ডেকে সৌদি সরকারের প্রতিনিধিরা সাফ জানিয়ে দিয়েছেন দেশটিতে কর্মরত শ্রমিকসহ অন্য পেশাজীবিরা ভিসায় উল্লেখিত পেশার বাইরে কোনো কাজ করতে পারবে না। বিশেষ করে রাজনীতি, পেশাজীবি বা অরাজনৈতিক সংগঠন করতে পারবে না। শ্রম ভিসায় গিয়ে অনেকে সাংবাদিকতা অর্থাৎ বাংলাদেশে খবর পাঠান এমন অভিযোগের প্রমাণ হাজির করে সৌদি পররাষ্ট্র, স্বরাষ্ট্র এবং শ্রম মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধিরা এক বাক্যে বলেছেন, প্রেস ভিসা ছাড়া অন্য কেউ সৌদিতে সাংবাদিকতা করতে পারবে না। সৌদি আইনে উপরুল্লিখিত ৩টি বিষয়ে অভিবাসীদের সম্পৃক্ততা নিষিদ্ধ জানিয়ে বাংলাদেশ দূতাবাস প্রতিনিধিদের এই বলে সতর্ক করা হয় যে বাংলাদেশ মিশনের কেউ যাতে এসব কর্মে কাউকে আশ্রয়-প্রশ্রয় বা সমর্থন কিংবা অনুমোদন না দেয়। নোটিশ বা দৃষ্টি আকর্ষণের পরও যদি কেউ নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে এসব কর্মে সম্পৃক্ত রয়েছে মর্মে প্রমাণ মিলে তবে, অবশ্যই তাকে জেল-জরিমানাসহ দেশে ফেরত পাঠানো হবে। রিয়াদস্থ বাংলাদেশ দূতাবাস সৌদি সরকারের কড়া অবস্থানের বিষয়টি জরুরি ভিত্তিতে প্রবাসী বাংলাদেশিদের নজরে আনতে সতর্কতা সংক্রান্ত গণবিজ্ঞপ্তি জারি করেছে।
বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, সৌদি আরব প্রবাসী সকল বাংলাদেশি অভিবাসীদের জানানো যাচ্ছে যে, কতিপয় অভিবাসী বাংলাদেশি নাগরিকদের সৌদি আরবে বিভিন্ন নামে বাংলাদেশ ভিত্তিক রাজনৈতিক, অরাজনৈতিকসহ বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের সঙ্গে জড়িত থাকার ও কার্যক্রম পরিচালনার বিষয়টি সৌদি কর্তৃপক্ষের গোচরীভূত হয়েছে।এরুপ অবৈধ কর্মকাণ্ডের বিরুদ্ধে সৌদি সরকারের কঠোর মনোভাবের বিষয়টি অবহিত করতে গত ২৬ শে জুলাই সৌদি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের উপমন্ত্রী রাষ্ট্রদূত তামিম বিন মাজেদ আল দোসারির নেতৃত্বে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, ইমিগ্রেশন ডিপার্টমেন্ট ও অন্যান্য নিরাপত্তা এজেন্সির প্রতিনিধিদলের সমন্বয়ে গঠিত একটি উচ্চ পর্যায়ের কমিটি বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূতকে সৌদি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে আমন্ত্রণ জানায়। এ বৈঠকে জানানো হয়, বাংলাদেশ কমিউনিটির কিছু সদস্য তাদের ইকামায় বর্ণিত পেশার বাইরে বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক বা এ ধরণের অন্যান্য কর্মকাণ্ড পরিচালনা করছেন যা সম্পূর্ণ বেআইনি। বিজ্ঞপ্তি মতে, এ পরিপ্রেক্ষিতে বৈঠকে উপমন্ত্রী সতর্ক করেন, সৌদি আরবে যে সকল বাংলাদেশি বিভিন্ন পেশায় নিয়োজিত রয়েছেন তার বাইরে এখানে কোনপ্রকার রাজনৈতিক, সামাজিক বা এ ধরনের অন্য যেকোন সাংগঠনিক কর্মকাণ্ডে জড়িত হওয়ার বা কোন কর্মকাণ্ড পরিচালনা করার অথবা কোন সাংবাদিক সম্মেলন করার কোনও সুযোগ নেই।
এ ধরনের কর্মকাণ্ড সৌদি আরবের আইনে গুরুতর অপরাধ বলে বিবেচিত।
সৌদি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধিরা জানান, এরপরও কোন ব্যক্তি এসব কর্মকাণ্ডে জড়িত হলে বা পরিচালনা করলে তা রাষ্ট্রবিরোধী কার্যকলাপের আওতায় আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ বলে বিবেচিত হবে। এমনকি এ অপরাধ প্রমাণিত হলে তাকে জেল জরিমানার সম্মুখীন হওয়াসহ দ্রুত নিজ দেশে ফেরত পাঠানো হবে। বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়, বৈঠকে রিয়াদস্থ বাংলাদেশ দূতাবাস এবং জেদ্দাস্থ বাংলাদেশ কনস্যুলেটকে কমিউনিটির কোন ধরণের সংগঠনকে কোন প্রকার স্বীকৃতি, অনুমোদন, আশ্রয়, প্রশ্রয় প্রদান করা থেকে সম্পূর্ণ রুপে বিরত থাকার অনুরোধ জানানো হয়। সৌদি সরকার জানায়, এখানে অন্য পেশায় নিয়োজিত থেকে সৌদি তথ্য মন্ত্রণালয়ের অনুমতি বা প্রেস ভিসা ব্যতিরেকে যে সকল বাংলাদেশি নাগরিকগণ সাংবাদিকতা করছেন বা সাংবাদিক হিসেবে পরিচয় দিচ্ছেন এবং ঢাকায় সংবাদ প্রেরণ করছেন তা সম্পূর্ণ বেআইনি এবং গুরুতর দণ্ডনীয় অপরাধ। এক্ষেত্রেও এসব অপরাধের জন্য জেল জরিমানাসহ দেশে প্রত্যাবর্তনের সম্মুখীন করা হবে বলে জানানো হয়। বিজ্ঞপ্তিতে এ-ও জানানো হয়, উপরুল্লিখিত বিষয়গুলো যথাযথভাবে মেনে চলার লক্ষ্যে সকল বাংলাদেশি অভিবাসীদের অবহিত করার বিষয়ে সৌদি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় নির্দেশ প্রদান করেছে। বর্ণিত বিষয়ে কেউ অপরাধ করলে দূতাবাস বা কনস্যুলেট তার কোনরূপ দায়ভার গ্রহণ করবে না বলে বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়।
এমতাবস্থায়, সৌদি আরবের আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল থেকে বিদেশে দেশের ভাবমূর্তি সমুন্নত রাখার জন্য বর্ণিত বিষয়ে সৌদি কর্তৃপক্ষের নির্দেশনা যথাযথভাবে মেনে চলতে প্রবাসী বাংলাদেশিদের প্রতি অনুরোধ জানায় বাংলাদেশ দূতাবাস।

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

সৈয়দ মঞ্জুরুল করিম

২০২০-০৮-০৩ ০১:২০:১৯

Very good news

Amirswapan

২০২০-০৮-০২ ০৫:৩৩:১০

ভিনদেশীগৃহপরিচারিকাদের সৌদিরা যেনিরজাতনকরে সেটাবাইরেরদুনিয়ায়যেন নাযায় তাই কলোআইন

মোঃ নাজমুল হাসান

২০২০-০৮-০১ ২১:০৩:২০

ধন্যবাদ সৌদি আরব এর এ সিদ্ধান্ত নেওয়র জন্য, নেতার নামে মিলাদ দোয়া কমিটি করে নেতা হয় রাজনীতি মারায়।

Akbar Ali

২০২০-০৮-০২ ০৭:৩০:৩০

অভিনন্দন! এরা উচ্ছৃঙ্খল। বাঙ্গালীর হাতে কর্তৃত্ব গেলে গোটা পৃথিবীতে অশান্তি সৃষ্টি করবে।

Dr Abdul Momin,Feni,

২০২০-০৮-০১ ১৬:৪৯:০৮

Nice

এম রহমান

২০২০-০৮-০১ ১৫:১০:০৬

অনেকদিন পর সৌদি সরকার বাংলাদেশিদের ব্যাপারে সঠিক সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এই জন্য সৌদি সরকারকে সাধুবাদ জানাই। দেশ থেকে আসার সময় অধিকাংশ লোক জায়গা বিক্রি করে, ধারদেনা করে কিংবা সুদের হিসাবে টাকা ধার করে এই দেশে আসে, এর মধ্যে সামান্য একটা অংশ কিছু সৌদি লোকের সহযোগিতায় বিভিন্ন ব্যবসা বানিজ্যে মাধ্যমে কিছু টাকা আয় করে যেটা তারা দেশে বসে কল্পনাতেও হিসাব করেনি। এদেরই মধ্যে থেকে কিছু লোক নিজেকে নেতা পরিচয় দিতে শুরু করেন। অনেক সময় স্হানীয় কোন এম পি বা নেত কে আমন্ত্রণ দিয়ে নিয়ে আসে, পরে কোন এক হোটেলে একটা অনুষ্টানের আয়োজন করে এম পি বা নেতা কে দিয়ে একটা সংঘটনের নাম ঘোষণা করানো হয় এবং সেই সাথে কিছু পদের নাম ঘোষনা করা হয়, এবং পদগুলিতে কিছু ব্যক্তির নামও ঘোষনা করা হয়। তখন থেকেই ঐ ব্যক্তিরা নেতা হয়ে গেলেন। যিনি অনুষ্টানের কেন্দ্রবিন্দুতে ছিলেন তিনি দেশে যাওয়ার সময় বেশকিছু দামি উপহার সামগ্রী নিয়ে যান এতে উনি খুশি হয়ে দেশে যান আর অন্যদিকে বিভিন্ন পদে উপনীত ব্যক্তিগন নেতা হিসাবে পরিচিত হয়ে আত্ম সন্তুষ্টি লাভ করেন। তারাই এই দেশে বিভিন অনৈতিক কর্মকান্ডে লিপ্ত হন। আমাদের দেশে এই একটি মাত্র পদ আছে যে পদের জন্য কোন যোগ্যতা লাগেনা শুধু মাত্র পাগল না হলেই হলো, সেটা হচ্ছে নেতা। অবশ্য মন্ত্রী, এম পি হতেও যোগ্যতার কোন মাপকাঠি নেই। কিছুটিভি চ্যনেল এখানে শ্রমিক হিসাবে আাসা কিছু লোককে রিপোর্টার হিসাবে নিয়োগ দেয় যারা ঠিক ভাবে বাংলায় কথা বলতে পারে না। ঐ লোক গুলোকে কিভাবে টিভি চ্যনেলের বা সংবাদপত্রের রিপোর্টার হিসাবে নিযোগ দেয় সেটাও বোধগম্য নয়। আমি ব্যক্তিগত ভাবে এমন দুইজন ব্যক্তিকে চিনি যারা বাংলাদেশের একটি টিভি চ্যনেল লাইভ সম্প্রচার করেন । ওদের সাথে অনেক আগে থেকেই পরিচয় তখন দেখতাম ওরা সঠিক বাংলা উচ্চারনে কথা বলতে পারতেন না, হয়ত পড়ালেখা খুব বেশি করতে পারেনি, অবশ্য এটা দোষের কিছু নয় কিন্তু যখন এদেরকে রিপোর্টার হিসাবে নিয়োগ দেওয়া হয় তখন সেটা বুঝতে পারিনা। যারা সাংবাদিকতা করবেন, লাইভ সম্প্রচার করবেন তারা অবশ্যই উচ্চারণ এবং ভাষাজ্ঞানে সমৃদ্ধ থাকার কথা।

মাহমুদ

২০২০-০৮-০১ ১৩:৪৯:০৩

আওয়ামী লীগ এবং বিএনপির রাজনীতি বাংলাদেশের মধ্যেই সীমাবদ্ধ থাকা উচিত। বিদেশে এই দুই দলের রাজনীতি সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ ঽওয়া প্রয়োজন । প্রতিটি দেশ যেনো সৌদি পথ অনুসরণ করে ।

Masum

২০২০-০৮-০১ ১৩:০৫:৪৫

Good decision by Saudi government.

সুবোধ

২০২০-০৮-০১ ০৯:১৬:৫২

বিভিন্ন দেশে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূতগণ সরকার দলীয় সংগঠনসমূহকে পৃষ্ঠপোষকতা করে।

GM Alamgir Hossain A

২০২০-০৮-০১ ০৯:০৫:৫৯

100% sothik sidhanto... ja aro onek agey kora dorker silo

Baboo

২০২০-০৮-০১ ২১:৪৮:০৭

Best news of the Century for those who knows the dirtiest culture of Politics,Oiling of the Embassy and Nastiest image of our Country made by decomposed so called " Leaders".

শহীদ

২০২০-০৮-০১ ২১:৩৮:৪৫

প্রত্যেক জুলুমবাজ সরকারের মুল টার্গেট মানুষের কন্ঠ রোধ করা। সৌদি পরিবারতন্ত্র তাদের নির্যাতনের জন্য অনুশোচনা না করে নির্যাতিতের কান্না আটকাতে চায়।

ঊর্মি

২০২০-০৮-০১ ২১:১২:৪৯

আমাদের "নেতা নেতা" ভাব প্রকাশের প্রক্রিয়াটাকে সৌদি কর্তৃপক্ষ এক্কেবারে "তেনা তেনা" করে দিলো দেখছি !!!

ম নাছিরউদ্দীন শাহ

২০২০-০৮-০১ ০৭:৫৯:১১

মধ্যেপ্রার্চের প্রত‍্যেক দেশে বাংলাদেশী নাগরিক জন্যে। বাংলাদেশ সরকারের ও রাষ্ট্রীয় ভাবে রাজনীতি বন্ধের ঘোষণা দেওয়া উচিত। আমি মধ্যেপ্রার্চের ওমানে বাংলাদেশ সমাজ কল‍্যান পরিষদের সভাপতি ছিলাম। আমি ব‍্যাক্তিগত জানি বিদেশের মাঠিতে রাজনীতি বা অন‍্যকোন সংঘটনের সাথে জড়িত থাকা কখনো উচিত নয় সৌদি আরব কে অভিনন্দন জানানো উচিৎ।।

তপু

২০২০-০৮-০১ ০৭:৩৩:০০

তাহলে সৌদী আরবে আওয়ামী লীগ,যুবলীগ,বিএনপি সহ সব রাজনৈতিক সংগঠন নিষিদ্ধ।

আনসার উদ্দিনহিরন

২০২০-০৮-০১ ০৬:৫৭:১৬

একদম সঠিক কাজ।

আপনার মতামত দিন

অনলাইন অন্যান্য খবর

স্বর্ণের দাম কমলো

১২ আগস্ট ২০২০

ওয়ালটন পণ্য কিনে মিলিয়নিয়ার হওয়ার সুযোগ বাড়লো

১২ আগস্ট ২০২০

স্থানীয় ক্রেতাদের কাছে ব্যাপক সাড়া ফেলেছে ওয়ালটনের ‘মিলিয়নিয়ার ও অসংখ্য লাখপতি’ শীর্ষক ক্যাম্পেইন। এর আওতায় ...



অনলাইন সর্বাধিক পঠিত



ফেসবুকে না লেখার শর্তে ‘মুক্তি’

কে এই আশরাফ মাহাদী?