মরিনহো-ক্লপকে গার্দিওলার জবাব

স্পোর্টস ডেস্ক

খেলা ১৫ জুলাই ২০২০, বুধবার | সর্বশেষ আপডেট: ৬:০০ পূর্বাহ্ন

ম্যানচেস্টার সিটির ইউরোপীয় প্রতিযোগিতায় উয়েফার দেয়া দুই বছরের নিষেধাজ্ঞা ক্রীড়ার সর্বোচ্চ আদালতের তুলে নেয়াকে ভালোভাবে নেননি অনেকেই। তাদের অন্যতম টটেনহাম কোচ হোসে মরিনহো, লিভারপুল কোচ ইয়ুর্গেন ক্লপ ও লা লিগা সভপাতি হাভিয়ার তেবাস। তাদের মন্তব্যের জবাব দিয়েছেন সিটিজেনদের কোচ পেপ গার্দিওলা।

ম্যানসিটির নিষেধাজ্ঞা উঠে যাওয়ার প্রতিক্রিয়ায় মরিনহো বলেন, ‘এটা লজ্জাজনক সিদ্ধান্ত। দোষী না হলে তো জরিমানা করা উচিত নয়। আর তারা (ম্যানসিটি) দোষী হয়ে থাকলে নিষিদ্ধ হওয়া উচিত। এই রায়ের পর উয়েফার ফিন্যান্সিয়াল ফেয়ার প্লে (এফএফপি) নিয়মের প্রয়োজনীয়তা নিয়ে প্রশ্ন উঠতে পারে।’

লিভারপুল কোচ ইয়ুর্গেন ক্লপ বলেন, ‘আমার মনে হয় না সোমবার ফুটবলের জন্য ভাল দিন ছিল। এই রায়ের পরও আমি বলব এফএফপি টিকে থাকবে। এর কাজ দলগুলোকে এবং প্রতিযোগিতাকে সুরক্ষা দেওয়া, যেন কেউ অতিরিক্ত অর্থ ব্যয় করতে না পারে এবং তারা যে অর্থ ব্যয় করতে চায় তা করে সঠিক উৎসের ভিত্তিতে।
এফএফপি এক ধরনের সীমা নির্ধারণ করে দেয়; যে পর্যন্ত আপনি যেতে পারবেন, কিন্তু অতিক্রম করতে পারবেন না। এটা ফুটবলের জন্য ভালো।’

কোর্ট অব আর্বিট্রেশন অব স্পোর্টস (সিএএস)-এর রায়ের পর মঙ্গলবার প্রথমবার সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হন পেপ গার্দিওলা। তিনি বলেন, ‘হোসে (মরিনহো) এবং অন্যদের মনে রাখা উচিত আমরা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছিলাম। এজন্য তাদের (উয়েফার) ক্ষমাও চাওয়া উচিত। দোষ করলে আমাদের শাস্তি হওয়া উচিত এটা আমি আগেও বেশ কয়েকবার বলেছি। আমাদের নায্য অধিকার আদায়ের জন্য আমাদের লড়াই করার স্বাধীনতা রয়েছে। নিরপেক্ষ আদালত সেটাই বলেছেন। আমি মনে করি সোমবার ফুটবলের জন্য একটা ভাল দিন ছিল। অন্যদের মতো ম্যানচেস্টার সিটিও উয়েফার সব নিয়ম মেনেই ফুটবল খেলে।’

লা লিগা সভপতি হাভিয়ার তেবাস ক্রীড়ার সর্বোচ্চ আদালত কোর্ট অব আর্বিট্রেশন অব স্পোর্টস (সিএএস)-এর মান নিয়ে প্রশ্ন তুলে বলেন, ‘আমাদের অবশ্যই বিবেচনা করতে হবে সিএএস কোনো ফুটবল ক্লাবের বিরুদ্ধে ঘোষিত সিদ্ধান্তের বিপরীতে আপিল করার জন্য সঠিক সংস্থা কিনা। সালিশের জগতে সুইজারল্যান্ড সুনামের অধিকারী একটি দেশ, কিন্তু সিএএস সেই মানের নয়।’ তাকেও জবাব দিয়েছেন গার্দিওলা, ‘মিস্টার তেবাসের উচিত লা লিগার উন্নতি নিয়ে ভাবা। আমি জানি তিনি খুব ভাল একজন আইন বিশেষজ্ঞ। উনি সম্ভবত ইংলিশ ‍প্রিমিয়ার লীগ ও ইংলিশ ফুটবলের উন্নতি দেখে ঈর্ষান্বিত। এরপর আমরা যদি পুনরায় একই ঘটনার মুখোমুখি হই সংশ্লিষ্টদের উচিত মিস্টার তেবাসের কাছ থেকে পরমার্শ নেয়া ‘‘কোন আদালতে সঠিক বিচার হয় সেটার জন্য’’।’

আপনার মতামত দিন

খেলা অন্যান্য খবর



খেলা সর্বাধিক পঠিত



আর্জেন্টিনা-উরুগুয়ে দ্বৈরথ

বন্ধু মেসিকে ছাড় দেবেন না সুয়ারেজ

জয়ে ফিরলো আর্জেন্টিনা

আলো টানলেন রদ্রিগেজ

DMCA.com Protection Status