বিষ্ণুপুরের চেয়ারম্যান একাই বানিয়েছেন ২৫০০ টাকার তালিকা

স্টাফ রিপোর্টার, ব্রাহ্মণবাড়িয়া/ বিজয়নগর প্রতিনিধ

শেষের পাতা ২২ মে ২০২০, শুক্রবার | সর্বশেষ আপডেট: ৬:০০ পূর্বাহ্ন

করোনা পরিস্থিতিতে সরকারের দেয়া নানা সহায়তা মিলছে না ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগরের বিষ্ণুপুর ইউনিয়নের মানুষদের। চেয়ারম্যান ও সদস্যদের দ্বন্দ্বে গত প্রায় দু’বছর ধরে অচল এই ইউনিয়ন পরিষদ। আর এতে কপাল পুড়ছে এখন কর্মহীন-হতদরিদ্র মানুষদের। চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে রয়েছে অভিযোগের পাহাড়। বিভিন্ন প্রকল্পের টাকা আত্মসাতের অভিযোগ ছাড়াও বেশ কয়েকটি মামলার আসামি চেয়ারম্যান মো. জামাল উদ্দিন ভূঁইয়া। কয়েকটি মামলায় গ্রেপ্তারি পরোয়ানাও রয়েছে তার বিরুদ্ধে।
প্রধানমন্ত্রীর উপহার ২৫০০ টাকা আর্থিক সহায়তার এই ইউনিয়নের তালিকাও চেয়ারম্যান  নিজেই বানিয়েছেন। সদস্যদের সম্মতি ছাড়া চেয়ারম্যানের দেয়া ওই তালিকাই আপলোড করে দেয়া হয়েছে।
উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তার অফিসে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, চেয়ারম্যান পরিষদ সদস্যদের স্বাক্ষরবিহীন একটি তালিকা (হার্ডকপি) জমা দিয়েছেন তাদের কাছে। এর আগে তালিকার যে সফ্ট কপি দিয়েছিলেন সেটি তারা আপলোড করেছেন। এখন চেয়ারম্যানকে চিঠি দিয়ে সবার স্বাক্ষরিত রেজুলেশনসহ হার্ড কপি জমা দিতে বলা হয়েছে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয় থেকে। ইউপি সদস্যরা অভিযোগ করছেন চেয়ারম্যান তার নিজের লোকজনের নাম বসিয়ে এই তালিকা বানিয়েছেন। করোনাকালীন গরিব-অসহায় মানুষের খাদ্যসহ অন্যান্য সাহায্য সহযোগিতা বিতরণেও অনিয়ম-গাফিলতির অভিযোগ রয়েছে চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে। সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, অসহায়-কর্মহীন মানুষের মধ্যে বিতরণের জন্যে ইউনিয়নে এ পর্যন্ত  মোট ১০ টন চাল বরাদ্দ দেয়া হয়। এর মধ্যে বিতরণ হয়েছে ৬ টন। নগদ ৪০ হাজার টাকা বিতরণের জন্যে দেয়া হলেও বিতরণ হয়েছে এর অর্ধেক। করোনা পরিস্থিতিতে দেয়া বিভিন্ন বরাদ্দ জামাল উদ্দিন আত্মসাৎ করেছেন বলে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে একটি অভিযোগও দিয়েছেন পরিষদ সদস্যরা।
এদিকে চেয়ারম্যান মো. জামাল উদ্দিন ভূঁইয়ার বিরুদ্ধে রয়েছে আরো নানা অভিযোগ। ২০ মাস ধরে মাসিক মিটিং ছাড়া নিজের ইচ্ছেমতো পরিষদ চালাচ্ছেন তিনি। স্থাবর সম্পত্তি হস্তান্তর করের এক পার্সেন্ট টাকা এবং অতি দরিদ্রদের কর্মসংস্থান কর্মসূচির টাকা আত্মসাতের অভিযোগ ছাড়াও তার বিরুদ্ধে কাবিখা, টিআর, এলজিএসপি, এডিপি’র বরাদ্দের  টাকা আত্মসাতের অভিযোগ দেয়া হয়েছে  জেলা প্রশাসক ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে দফায় দফায়। স্থানীয় সরকার বিভাগের সচিবের কাছেও  চেয়ারম্যানের ক্ষমতার অপব্যবহার, কর্তব্যে অবহেলাসহ  নানা অনিয়ম-দুর্নীতির অভিযোগ দিয়ে অপসারণের দাবি জানিয়েছেন পরিষদ সদস্যরা। চেয়ারম্যান জামাল মাদকসেবী এবং তার বিরুদ্ধে অর্থ আত্মসাৎ, জাল জন্ম সনদ প্রদানের মামলাসহ ৪টি মামলায় গ্রেপ্তারি পরোয়ানা রয়েছে বলে বিভিন্ন অভিযোগে উল্লেখ করা হয়। গ্রেপ্তারি পরোয়ানা নিয়ে জামাল দিব্যি ঘুরে বেড়াচ্ছেন, এমনকি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার সঙ্গে তার কক্ষে বৈঠক করছেন বলে পরিষদ সদস্যরা অভিযোগ করেন। নির্বাহী কর্মকর্তার সহায়তাতে জামাল অনিয়ম-দুর্নীতিতে লিপ্ত বলেও অভিযোগ করেন তারা। ৪নং ওয়ার্ডের সদস্য মো. হুমায়ুন কবির ভূঁইয়া এবং ৫ নং ওয়ার্ডের মো. আক্তার হোসেন বলেন, যতো অনিয়ম আছে সবই করছেন চেয়ারম্যান জামাল। পরিষদের মান-ইজ্জত একেবারে শেষ করে দিয়েছেন। একাধিকবার নারী কেলেঙ্কারিতে ধরা পড়ে মারও খেয়েছে। তাছাড়া সে নেশাগ্রস্ত। এ দু’জন সদস্য ছাড়াও ৭ নং ওয়ার্ডের মোঃ সফিকুল ইসলাম, ৮নং ওয়ার্ডের মোঃ হানিফ মিয়া, ৯ নং ওয়ার্ডের হারিজ মিয়া, ৪, ৫, ৬ নম্বর সংরক্ষিত ওয়ার্ডের নারী সদস্য মোছাম্মাৎ আম্বিয়া বেগম, ৭, ৮, ৯ নং ওয়ার্ডের নারী সদস্য মোছাম্মাৎ হাসিনা বেগম চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে দেয়া লিখিত অভিযোগে স্বাক্ষর করেন। এই সদস্যরা ৭/৮ মাস ধরে একেবারেই পরিষদে যাচ্ছেন না। এসব অভিযোগের বিষয়ে জানতে চেয়ারম্যান জামাল উদ্দিনের নম্বরে যোগাযোগ করে তাকে পাওয়া যায়নি। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মেহের নিগার বলেছেন, প্রধানমন্ত্রীর আর্থিক সহায়তার তালিকা নিয়ে পরিষদের সদস্যরা আমার কাছে কোনো অভিযোগ করেননি। তালিকায় উপযুক্ত লোকের নাম উঠেনি এমন অভিযোগ পেলে আমরা তাদের বাদ দিয়ে দেবো। চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে বিভিন্ন অভিযোগের তদন্ত চলছে বলেও জানান তিনি।

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

Amir

২০২০-০৫-২২ ০৯:১১:৪৪

কর্মকর্তার সঙ্গে তার কক্ষে বৈঠক করছেন বলে পরিষদ সদস্যরা অভিযোগ করেন। -----কোন 'চেইন মেন্টেইন, না করেই চেয়ারম্যান এত অনিয়ম করছে এটা কি বিশ্বাসযোগ্য?

আবু বকর

২০২০-০৫-২১ ১৫:৩৩:১৬

আত্মসাত আর মামলার বোঝা নিয়ে চলমান বরখাস্তের এ যুগে স্বেচ্ছাচারি চেয়ারম্যান সাহেব এখনও বহাল তবিয়তে আছেন কি করে? খুঁটির জোর আছে বটে!!!

আপনার মতামত দিন

শেষের পাতা অন্যান্য খবর

ঢাবি স্বাস্থ্য অর্থনীতি ইনস্টিটিউটের জরিপ

৮৪ শতাংশ লোক টিকা নিতে আগ্রহী, তবে...

২৭ জানুয়ারি ২০২১

বিনামূল্যে দেয়া হলে ৮৪ শতাংশ মানুষ টিকা নিতে আগ্রহী। কিন্তু বেশির ভাগ লোকই টিকাদান কর্মসূচি ...

স্মরণসভায় বক্তারা

মিজানুর রহমান খান সাংবাদিকতায় অনুকরণীয় হয়ে থাকবেন

২৭ জানুয়ারি ২০২১

বাংলাদেশ, পাকিস্তান ও আফগানিস্তান ভ্রমণে যুক্তরাষ্ট্রের সতর্কতা

২৭ জানুয়ারি ২০২১

বাংলাদেশ, পাকিস্তান ও আফগানিস্তানে নাগরিকদের ভ্রমণের ক্ষেত্রে সতর্কতা জারি করেছে যুক্তরাষ্ট্র। ভ্রমণ সতর্কতা বিষয়ক এক ...

করোনায় আরো ১৪ জনের মৃত্যু

২৭ জানুয়ারি ২০২১

দেশে করোনায় গত ২৪ ঘণ্টায় আরো ১৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে সরকারি হিসাবে এখন ...

আসামির সঙ্গে নারী সঙ্গ

জেলকোড অনুযায়ী কারা কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা

২৭ জানুয়ারি ২০২১

জলবায়ু পরিবর্তন

বাংলাদেশসহ সহযোগী রাষ্ট্রগুলোকে নিয়ে বৃটেনের নতুন উদ্যোগ

২৬ জানুয়ারি ২০২১

জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে সব থেকে বেশি হুমকিতে থাকা দেশগুলোকে সাহায্য করতে একসঙ্গে কাজ করবে বৃটেন, ...

বইমেলা ১৮ই মার্চ

২৬ জানুয়ারি ২০২১

ভাষার মাসে হচ্ছে না এবারের বইমেলা। প্রাণঘাতী করোনা পিছিয়ে দিয়েছে চিরায়ত ফেব্রুয়ারির অমর একুশে গ্রন্থমেলা। ...

১০ বছরে শিক্ষার্থী বেড়েছে তিনগুণ

যুক্তরাষ্ট্রে পড়ছে ৮৮০০ বাংলাদেশি

২৬ জানুয়ারি ২০২১

করোনায় আরো ১৮ জনের মৃত্যু শনাক্ত ৬০২

২৬ জানুয়ারি ২০২১

দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরো ১৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে এখন ...

কুষ্টিয়ার এসপি’র ক্ষমা প্রার্থনা

প্রিজাইডিং অফিসারকে নিরাপত্তা দেয়ার নির্দেশ

২৬ জানুয়ারি ২০২১

পুলিশকে কথায় নয়, কাজে পটু হতে হবে। পুলিশ যাতে মানুষের বন্ধু হয়- সেটা করতে হবে। ...



শেষের পাতা সর্বাধিক পঠিত



১০ বছরে শিক্ষার্থী বেড়েছে তিনগুণ

যুক্তরাষ্ট্রে পড়ছে ৮৮০০ বাংলাদেশি

দু’জনের স্বীকারোক্তি

বন্ধুদের হাতে খুন সিলেটের নাঈম

DMCA.com Protection Status