মিথ্যা ফ্লাগ অপারেশন চালাতে পারে ভারত- ইমরান খান

মানবজমিন ডেস্ক

বিশ্বজমিন ১৮ মে ২০২০, সোমবার | সর্বশেষ আপডেট: ৭:০৬

কাশ্মীরে স্বাধীনতা আন্দোলকে সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড আখ্যায়িত করে এবং তাদেরকে সমর্থন দেয়ার জন্য পাকিস্তানকে অভিযুক্ত করে মিথ্যা ফ্লাগ অপারেশন চালাতে পারে ভারতে ক্ষমতাসীন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সরকার। রোববার এমন আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। এ খবর দিয়েছে অনলাইন ডন। ইমরান খান ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরে অবৈধ সম্প্রসারণ ও শক্তির নৃশংস ব্যবহারের মাধ্যমে নিষ্পেষণমূলক ও অমানবিক আচরণের কথা উল্লেখ করে ধারাবাহিক টুইট করেন। তিনি এতে বলেছেন, মোদির আরএসএস ভারত নিয়ন্ত্রিত জম্মু ও কাশ্মীরে উদ্বুদ্ধ হওয়ার বিষয়টি খুব স্পষ্ট। প্রথমত, দখলীকৃত এলাকায় তারা বেআইনিভাবে সম্প্রসারণ ঘটিয়ে নিজেদের অধিকার জারির মাধ্যমে কাশ্মীরিদের অধিকারবঞ্চিত করছে। দ্বিতীয়ত, তিনমুখী পদক্ষেপে কাশ্মীরিদের সঙ্গে অমানবিক আচরণ করা হচ্ছে। এর মধ্যে নৃশংসভাবে শক্তির ব্যবহার করছে ভারতীয়রা।
তারা নারী ও শিশুদের বিরুদ্ধে বন্দুকের গুলিকে ব্যবহার করছে। ইমরান খান বলেছেন, অমানবিক লকডাউন আরোপ করেছে নরেন্দ্র মোদি সরকার। এর মধ্য দিয়ে কাশ্মীরিদের তাদের মৌলিক প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র খাদ্য থেকে শুরু করে ওষুধ পর্যন্ত বঞ্চিত করা হচ্ছে। ভারত সরকার কাশ্মীরিদের বিরুদ্ধে গণগ্রেপ্তার চালাচ্ছে বলেও অভিযোগ করেন ইমরান খান। তিনি বলেন, এর মধ্যে বেশির ভাগই যুবক শ্রেণির। তাছাড়া সব রকম যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন করে কাশ্মীরকে বাকি বিশ^ থেকে বিচ্ছিন্ন করে রাখা হয়েছে। এরই মধ্যে বিদেশী মিডিয়াকে দেয়া এক সাক্ষাতকারে ইমরান খান বলেছেন, পাকিস্তানের বিরুদ্ধে সামরিক একশনকে জায়েজ করার জন্য দখলীকৃত কাশ্মীরে মিথ্যা ফ্লাগ অপারেশন চালাতে পারে ভারত। তবে এমনটা হলে পাকিস্তানও উচিত জবাব দেবে বলে তিনি হুঁশিয়ারি দেন। তিনি আশঙ্কা প্রকাশ করেন, ভারতের এমন মিথ্যার ভিত্তিতে একশন দুই পারমাণবিক শক্তিধর রাষ্ট্রের মধ্যকার উত্তেজনাকে বৃদ্ধি করবে। এমনটা হলে তা বিশ্বের জন্য হবে উদ্বেগের।

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

Samsulislam

২০২০-০৫-১৮ ০৫:৩৯:২০

কাশ্মিরি ব্রাহ্মণদের তাদের ভিটে বাড়ি ফিরে পাবে আশা করছি।এখন জমির ৈধতা দেখা হউক।

Citizen

২০২০-০৫-১৮ ১৭:৫৪:৫১

Kashmir being a majority Muslim state was supposed to join Pakistan in 1947, but for Indian hegemony Kashmir remains a disputed territory for last 73 years for the world. Then Indian PM Jawaharlal Nehru raised Kashmir to the UN in 1949 and UN resolved for a plebiscite to decide by the Kashmiris if they want to join Pakistan or India. Since then there are at least 6 (six) UN resolutions on Kashmir remain pending. India being a member of the UN doesn't comply with these resolutions, instead apply illegal force on Kashmiris. Time has come that the UN must review and suspend India's UN membership as a non complying country.

Nezamul sheikh

২০২০-০৫-১৮ ১৬:৫৩:৫০

আমরা দক্ষিণ এশিয়ার মানুষ কত আন্দোলন করে দেশ স্বাধীন করেছি , বর্তমানের নেতারা কি সব ভুলে গেলো? ইতিহাস থেকে কেউ শিক্কা নেননি ইতিহাস বলে কাশ্মীর কাশ্মীরিদের হাতে যাবে ইনশাহল্লাহ । How many movements have we, the people of South Asia made the country independent, have the current leaders forgotten everything? No one has learned from history, History says Kashmir will go to Kashmiris, God willing. Nazam london.

আপনার মতামত দিন

বিশ্বজমিন অন্যান্য খবর



বিশ্বজমিন সর্বাধিক পঠিত