পশ্চিমবঙ্গে করোনা পরিস্থিতি উদ্বেগজনক মোট মৃত্যু ১০৫

কলকাতা প্রতিনিধি

ভারত ১ মে ২০২০, শুক্রবার | সর্বশেষ আপডেট: ৮:০২

প্রথম দিকে স্বস্তির আবহ থাকলেও যত দিন যাচ্ছে পশ্চিমবঙ্গের করোনা পরিস্থিতি উদ্বেগজনক হয়ে উঠছে। গোটা দেশের মধ্যে এখন পশ্চিমবঙ্গে সংক্রমণ শতাংশের হিসেবে শীর্ষে বলে ভারতের স্বাস্থ্য মন্ত্রক থেকে বলা হয়েছে। ভারতের স্বাস্থ্য মন্ত্রকের পক্ষ থেকে রাজ্যের লাল জোনভুক্ত জেলার সংখ্যা ৪ থেকে বাড়িয়ে ১০ করার কথা রাজ্যকে পাঠানো এক চিঠিতে জানানো হয়েছে। রাজ্যে মৃত্যুও বেড়ে চলেছে। বৃহস্পতিবার সাংবাদিকদের রাজ্যের মুখ্য সচিব রাজীব সিনহা জানিয়েছেন, রাজ্যে এদিন পর্যন্ত করোনা আক্রান্ত ১০৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। তবে এর মধ্যে ৩৩ জনের মৃত্যু হয়েছে করোনার প্রত্যক্ষ কারণে। বাকী ৭২ জনের মৃত্যু হয়েছে কো-মর্বিডিটির (অন্যান্য রোগভোগ) কারণে। মুখ্য সচিব জানিয়েছেন ৬ এপ্রিল থেকে ৩০ এপ্রিলের মধ্যে এই মৃত্যু হয়েছে বলে অডিট কমিটি সরকারকে জানিয়েছে।
অডিট কমিটির মাধ্যমে মৃত্যু ঘোষণা নিয়ে বিভিন্ন মহল থেকে অভিযোগ ওঠার পরিপ্রেক্ষিতে সরকার জানিয়েছে, এখন থেকে আর সব করোনা-মৃত্যু অডিট কমিটির কাছে পাঠানো হবে না। আরও জানানো হয়েছে, আইসিএমআর গাইডলাইন মেনে ডেথ সার্টিফিকেট লেখার সময় মৃত্যুর কারণ হিসেবে প্রথমেই তাৎক্ষণিক কারণ (ইমিডিয়েট কজ), পুরনো রোগভোগের ইতিহাস (অ্যান্টিসিডেন্ট কজ অব ডেথ) এবং অন্য কোনও জটিল কারণ (আন্ডারলাইন কজ অব ডেথ) পর পর লিখতে হবে। এদিকে সোমবার থেকে সবুজ জোন বলে চিহ্নিত জেলাগুলিতে বাস চালানো এবং দোকান-পাট খোলার প্রস্তৃতির মাঝেই উচ্চ ঝুঁকিপূর্ণ এলাকার সংখ্যা বাড়ায় উদ্বেগ ছড়িয়েছে বিশেষজ্ঞদের মধ্যে। গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৩৭ জন। ফলে এই মুহূর্তে রাজ্যে সক্রিয় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৫৭২। ভারতের স্বাস্থ্য মন্ত্রকের হিসেবে রাজ্যে আক্রান্তের সংখ্যা ৭৯৫। এ দিন মুখ্যসচিব জানিয়েছেন, গত ২৪ ঘণ্টায় যে ৩৭ জন আক্রান্ত হয়েছেন তার ৮০ শতাংশই কলকাতা, হাওড়া এবং উত্তর ২৪ পরগনা থেকে। বাকি হুগলি থেকে। কলকাতাতেই ২৬৪টি উচ্চ্ ঝুঁকিপূর্ণ এলাকাকে চিহ্নিত করা হয়েছে। কয়েকদিন আগেও যেখানে রাজ্যের ৩৭৮টি কনটেইনমেন্ট জোনের কথা জানানো হয়েছে সেখানে গত বৃহস্পতিবার আরও ৬৬টি জায়গাকে কনটেইমেন্ট জোন হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে। ফলে এই মুহূর্তে রাজ্যের মোট কনটেনমেন্ট জোন ৪৪৪। তার মধ্যে ২৬৪টি কলকাতায়। উত্তর ২৪ পরগনায় কনটেইনমেন্ট ৭০টি জায়গায়, হাওড়ায় কনটেইনমেন্ট জোন বেড়ে হয়েছে ৭২।

আপনার মতামত দিন

ভারত অন্যান্য খবর

আনলক হওয়ার প্রথম দিনেই কলকাতায় মানুষ ঝুঁকি নিয়ে বেরিয়ে পড়েছেন, প্রবল যানজটে দুর্ভোগ মানুষের

১ জুন ২০২০

একদিকে কনটেনমেন্ট জোনের সংখ্যা বাড়ছে, অন্যদিকে জনজীবন স্বাভাবিক করার তাগিদে অফিস থেকে কলকারখানা, শপিং মল ...



ভারত সর্বাধিক পঠিত