ভারতে অভিবাসী শ্রমিকরা ফিরতে পারছেন রাজ্যে রাজ্যে

কলকাতা প্রতিনিধি

ভারত ৩০ এপ্রিল ২০২০, বৃহস্পতিবার | সর্বশেষ আপডেট: ১২:৩৩

ভারতজুড়ে রাজ্যে রাজ্যে আটকে পড়া অভিবাসী শ্রমিকদের নিয়ে প্রবল সমস্যা তৈরি হয়েছিল। কোথাও খাদ্যের অভাব, কোথাও থাকার জায়গার অভাব, আবার কোথাও শ্রমিকদের হাতে নেই অর্থ। এই পরিস্থিতিতে অসন্তোষও দেখা দিয়েছিল শ্রমিকদের মধ্যে। দলে দলে লকডাউনের নিয়ম না মেনেই অনেকে দলবদ্ধভাবে ফিরতে চেষ্টা করেছেন। লকডাউনের ঘোষণার পর অভিবাসী শ্রমিকদের পাশাপাশি বিভিন্ন রাজ্যে আটকে রয়েছেন পড়ুয়া ও পর্যটকরাও। এতদিন এদের ঘরে ফেরায় নিষেধাজ্ঞা থাকলেও গত বুধবার ভারত সরকার শর্তসাপেক্ষে অভিবাসী শ্রমিক, পড়ুয়া ও পর্যটকদের ঘরে ফেরার অনুমতি দিয়েছে। তবে করোনার উপসর্গ বা আক্রান্ত হলে কোনও ভাবেই ঘরে ফেরা যাবে না বলেও জানানো হয়েছে। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের এই সংক্রান্ত নির্দেশিকায় বলা হয়েছে, যাঁরা নিজের রাজ্যে ফিরতে চান, তাঁদের স্ক্রিনিং করা হবে।
যাঁদের কোনও উপসর্গ নেই, তাঁদেরই ছাড়া হবে। রাজ্য সরকারগুলিকে তার জন্য নোডাল অফিসার নিয়োগ করে নিয়মকানুন ঠিক করার কথাও বলা হয়েছে। রাজ্যগুলিকেই সড়ক পথে বাসে করে ফেরাতে হবে আটকে পড়াদের। ফিরে আসার পর স্বাস্থ্য পরীক্ষা করতে হবে বলেও জানানো হয়েছে। পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় অবশ্য আগেই অন্য রাজ্যে আটকে পড়াদের ফিরিয়ে আনার কথা জানিয়েছে। রাজস্থানের কোটাতে আটকে পড়া হাজারের বেশি পড়ুয়াকে রাজ্যে ফিরিয়ে আনার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে।

আপনার মতামত দিন

ভারত অন্যান্য খবর

আনলক হওয়ার প্রথম দিনেই কলকাতায় মানুষ ঝুঁকি নিয়ে বেরিয়ে পড়েছেন, প্রবল যানজটে দুর্ভোগ মানুষের

১ জুন ২০২০

একদিকে কনটেনমেন্ট জোনের সংখ্যা বাড়ছে, অন্যদিকে জনজীবন স্বাভাবিক করার তাগিদে অফিস থেকে কলকারখানা, শপিং মল ...



ভারত সর্বাধিক পঠিত