কলকাতাতেও চালু হতে চলেছে প্লাজমা থেরাপি

কলকাতা প্রতিনিধি

ভারত ২৫ এপ্রিল ২০২০, শনিবার | সর্বশেষ আপডেট: ৫:২৫

করোনা আক্রান্ত রোগীদের প্লাজমা থেরাপির মাধ্যমে সুস্থ করে তোলার ক্ষেত্রে প্রথম পথ দেখিয়েছিল কেরালা। দিল্লিতেও  প্লাজমা থেরাপি প্রয়োগ করে প্রাথমিক পরীক্ষায় ইতিবাচক সাড়া পাওয়া গিয়েছে বলে জানানো হয়েছে। এবার কলকাতাতেও প্লাজমা থেরামির মাধ্যমে পরীক্ষামূলকভাবে চিকিৎসা করা শুরু হবে বলে জানা গেছে। আশঙ্কাজনক অবস্থায় ভর্তি করোনা আক্রান্তদেরই প্লাজমা থেরাপি প্রয়োগ করা হবে বলে সিদ্ধান্ত হয়েছে। বিশেষজ্ঞদের মতে, প্লাজমা প্রয়োগ বহু পুরনো পদ্ধতি। কোনও করোনা সংক্রমিত ব্যক্তি একবার সুস্থ হয়ে উঠলে তার শরীরে ওই ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের জন্য অ্যান্টিবডি তৈরি হয়। পরবর্তী ধাপে সেই সুস্থ হয়ে ওঠা ব্যক্তির রক্তের প্লাজমা অসুস্থ ব্যক্তির শরীরে প্রয়োগ করে চিকিৎসা করা হয়ে থাকে। জানা গিয়েছে, কলকাতায় ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউট অব কেমিকেল বায়োলজি ও পশ্চিমবঙ্গ সরকার যৌথভাবে প্লাজমা থেরাপি নিয়ে পরীক্ষা চালাবেন।
ইতিমধ্যেই করোনা সংক্রমণ থেকে মুক্ত হয়ে ওঠা ব্যক্তিদের রক্তদানের আহ্বান জানানো হয়েছে। করোনা থেকে মুক্ত হয়ে ওঠা ২৪ বছরের তরুণী মনামী বিশ্বাসকে ফোন করে রক্তদানের অনুরোধ করেছেন স্বাস্থ্য দপ্তর। স্কটল্যান্ডে পাঠরত এই তরুণী কলকাতায় ফেরার পর বিমানবন্দর থেকে সরাসরি আইডি হাসপাতালে গিয়ে পরীক্ষা করিয়েছিলেন। তখন তার করোনা পজিটিভ ধরা পড়েছিল। হাসপাতাল থেকে ছাড়া পাওয়ার পর তার ২১ দিন কেটে গিয়েছে। রক্তদানের প্রস্তাব শুনে সাগ্রহে সম্মতি দিয়েছেন মনামী। বলেছেন, করোনা মোকাবিলায় বিজ্ঞানীদের সাহায্য করার প্রস্তাবে আমি খুশি। বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন, আইসিএমআর ও সিএসআইআর ভারতের নানা জায়গায় এই প্লাজমা থেরাপির পরীক্ষায় উৎসাহ দিচ্ছেন। পশ্চিমবঙ্গ সরকারের কাছ থেকে কলকাতায় পরীক্ষামূলক প্রয়োগের ব্যাপারে ইতিমধ্যেই অনুমতি পাওয়া গিয়েছে।

আপনার মতামত দিন

ভারত অন্যান্য খবর

আনলক হওয়ার প্রথম দিনেই কলকাতায় মানুষ ঝুঁকি নিয়ে বেরিয়ে পড়েছেন, প্রবল যানজটে দুর্ভোগ মানুষের

১ জুন ২০২০

একদিকে কনটেনমেন্ট জোনের সংখ্যা বাড়ছে, অন্যদিকে জনজীবন স্বাভাবিক করার তাগিদে অফিস থেকে কলকারখানা, শপিং মল ...



ভারত সর্বাধিক পঠিত