মীরজাদী ওসব কী বলছেন?

স্টাফ রিপোর্টার

অনলাইন ২৬ মার্চ ২০২০, বৃহস্পতিবার, ১:০৬ | সর্বশেষ আপডেট: ১০:৪৬

করোনা বিষয়ক সরকারের মুখপাত্র ডা. মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা। প্রতিদিন টেলিভিশনে আসেন। নতুন নতুন তথ্য ও হরেক রকমের পরামর্শ দেন। কিন্তু যারা মারা যান তাদের সম্পর্কে বলতে গিয়ে আপত্তিকর ও অসম্মানজনক শব্দ ব্যবহার করেন। বলেন, যিনি মারা গেছেন তিনি বয়স্ক। ৬০ এর উপর বয়স। এর অর্থ কি? ৬০ এর উপরে মারা গেলে অসুবিধা নেই? তিনি বিনা চিকিৎসায় মারা গেলেও আপত্তি করার কিছু নেই? ডা. মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা কি জানেন, ৬০ এর উপরে মানুষের সংখ্যা কত? যারা রাষ্ট্র পরিচালনা করেন তাদের সবার বয়স ৬০ এর উর্ধ্বে। এমনিতে ফ্লোরা প্রতিদিন মানুষকে মৃত্যুর সংখ্যা নিয়ে ভুল তথ্য দেন।
অনেকেই করোনা উপসর্গ নিয়ে মারা যান। আইইডিসিআরের স্বীকৃতি ছাড়া। তথাকথিত হটলাইনে তার দপ্তর থেকে ভুল তথ্যও দেয়া হয়। পরীক্ষা ছাড়াই সেব্রিনা নিজেই নাকি বলেন, যা শুনলাম তাতে মনে হয়, আপনার করোনা হয়নি। প্রতিদিন আমাদের দপ্তরে এ ধরনের অসংখ্য অভিযোগ আসছে। দুনিয়ার শক্তিমান প্রেসিডেন্ট-প্রধানমন্ত্রীরা প্রায় প্রতিদিন জাতিকে খবরা খবর জানাচ্ছেন, সাহস দিচ্ছেন। সেখানে একজন যুগ্ম সচিব পদমর্যাদার কর্মকর্তার ওপর এই দায়িত্ব ছাড়ার মধ্যে কি আনন্দ আছে তা বলা সত্যিই কঠিন।

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

Sakhawat Khan

২০২০-০৩-২৯ ১০:৫৭:০৬

She is indeed a great politician who has unfortunately become the GOB health spokesperson under this emergency intervention. She feels 60 years is a grace period of life expectancy at this juncture. I wish it should not be applicable for PM & other ministers

Mohd Makbul Hossain

২০২০-০৩-২৯ ১০:২৫:০৯

বাংলাদেশে করুনা আক্রান্তের প্রকৃত চিত্র কি জাতি জানতে পারছে? এটা জানতে হলে সরকারের মুখপাত্র ডাক্তার মীরজাদীর ব্রিফিংয়ে তথ্যের উৎস গুলো সম্পর্কে আগে জানতে হবে। যে সকল বিষয়গুলো করোনা সনাক্তকরণ পদ্ধতিতে অন্তর্ভুক্ত করা হয়নি সেগুলো জাতি কিভাবে জানবে? আমার জানামতে নিম্মোক্ত কারণগুলো করুণা শনাক্তকরণে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করছে। ১. ভয়-ভীতি: এক ভদ্রমহিলা জ্বর ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে হাসপাতালে এসেছিলেন, হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তাকে কোন দিক নির্দেশনা দেয়নি ভর্তি নেয়নি ,এমনকি কোন ডাক্তার নার্স কাছেও আসেনি। প্রশ্ন: এই মহিলা কোন ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছিলেন? ২. গোপনীয়তা: অনেক পরিবার রয়েছে যারা করুণা আক্রান্ত হয়ে বিষয়টি গোপন করে রাখছে, এই গোপনীয়তা ভেদ করে সঠিক তথ্য কিভাবে নিয়ে আসা যায়? ৩. পর্যাপ্ত কীট ও উপকরণের অভাব: ঘনবসতি এই দেশে এখন পর্যন্ত পরিমিত কিট সরবরাহের কোন ব্যবস্থা হয়নি, তাহলে ভাইরাস সনাক্তকরণ যথাযথভাবে হচ্ছে এটা কি করে বলা যেতে পারে? আসলে বাস্তবতা এই যে, কোন যুক্তি দিয়ে ,বিদ্যা দিয়ে এই সমস্যার সমাধান করা সম্ভব হবে না। আসুন আমরা নিজেরা পরিবর্তন হই আল্লাহকে ভয় করি এবং তাঁর নিকট প্রার্থনা করি তিনি যেন আমাদেরকে এই বিপদ থেকে হেফাজত করেন। আমীন।

শফিকুর রহমান

২০২০-০৩-২৯ ০৩:১২:১০

একজন বিজ্ঞ দায়িত্ব শীল মহিলার ব্যাপারে কথা ঐ ব্যক্তি বলতে পারে যে ঐ পর্যায়ের মানুষ ! গাঁধা ঘোড়া একঘাটে বিবেচনা করা উচিৎ নয়,রিপোর্টের রিপোর্ট করেছেন তিনি সার্বিক বিবেচনা করে বলতে পারেন নি,রিপোটার কে আরও সতর্ক হতে হবে ব্যক্তিগত প্রতিহিংসা কে পেশা গত দায়িত্বে না জড়ানো উচিত , প্রমাণ দিয়ে অভিযোগ করুন , হওয়ার উপর তীর ছোড়ে কি বুঝাতে চাইছেন ?

আব্দুর রশীদ

২০২০-০৩-২৯ ০২:৪২:১৩

স্কুলে যেখানে ১০০ জন মানুষ সেটা বন্ধ হয়। আর ইপিজেড এ হাজার হাজার মানুষ কাজ করে সেটা বন্ধ হয় না। এটাই বাংলা দেশ।

বাহাউদ্দিন বাবলু

২০২০-০৩-২৮ ১৮:৫৬:৪৭

সারা দেশ থেকে প্রতিদিন কত জনকে পরিক্ষা করা হচ্ছে সর্বোচ্চ ৫০ থেকে ৬০ জন। যেখানে হট লাইন গুলোতে ঘন্টার পর ঘন্টা মানুষ চেষ্টা করে না পেয়ে বিরক্ত হয়ে বাদ দিচ্ছেন। এতেই বুঝা যায় তিনি তথ্য গোপন করার চেষ্টা করছেন।

মাহমুদ

২০২০-০৩-২৮ ০৮:৩৩:৪৩

ডঃ মীরজাদী ভূল তথ্য দিচ্ছেন এমন কোন প্রমান আপনাদের কারো কাছে আছে কি ? আমরা কেন কোন তথ্য প্রমান ছাড়াই মনে করছি আমাদের দেশে প্রতিদিন অনেক মানুষ আক্রান্ত হচ্ছে বা মারা যাচ্ছে ? এমনতো হতে পারে আমাদের দেশের বর্তমান আবহাওয়া বা তাপমাত্রার কারনে করোনা ছডাাচ্ছে না । ডঃ মীরজাদী ঢাকা মেডিকেল থেকে পাশ করা একজন ডাক্তার আর কেমব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পিএইচডি ডিগ্রীধারী । মন্তব্য করার ব্যাপারে সবার আরো সংযত হওয়া উচিত ।

আক্কেল মিয়া

২০২০-০৩-২৮ ০৮:৩২:০৭

সারাদেশে প্রতিদিন হাজারো রোগী জ্বর, কাশী, গলাব্যাথা, শ্বাসকষ্ট রোগী ডাক্তারদের দ্বারে দ্বারে ঘুরে চিকিৎসা না পেয়ে কোন টেষট ছাড়া অনেকে মারাও যাচ্ছে টেষ্ট করানোর কোন ব্যাবস্থাও দেশব্যাপী নেই। সেখানে এই মহিলার মিথ্যা বলার কৌশলটা সত্যি অবাক করার মত।

Md Mofidul Islam

২০২০-০৩-২৮ ০০:০৪:০১

ড.মিরজাদী অত্যন্ত যোগ্যতার সাথে দায়িত্ব পালন করছেন। বয়ষ্ক মানুষ করোনা ঝুকিতে বেশি। কিছু মানুষ উনার শাড়ি সম্বন্ধে বিরুপ মন্তব্য করেছেন। এ ধরনের মিচু মানসিকতা পরিহার করা উচিত।

Md. Kamrul Islam

২০২০-০৩-২৮ ০৯:২১:০৭

তথ্য গোপন/ আড়াল করলে কোন জাতিকে সজাগ/ সচেতন করা যাবেনা, এতে ভয়াবহতা আরও তীব্র হবে। জাতির বিহত্তর স্বার্থে তা প্রকাশ করা সমচিন !!!

সাদেক উল ইসলাম

২০২০-০৩-২৭ ১৭:৪৪:৪৯

ঠিক করেছেন।ঝুঁকি বেশি।অধিকতর সতর্ক হচ্ছি।

shaery khondokar

২০২০-০৩-২৮ ০২:৪৮:৩২

We know she is telling the truth. They are hiding the real situation. Look att America, Canada, spain and Germany. Please learn from them She said ten thousand people are now under quarantine - there were no death no infected reported, What does it mean

মো আলী হায়দার

২০২০-০৩-২৭ ১২:৪৫:০৮

আগে অনেককে বার্ণ ইউনিটে গিয়ে ভিক্টিমের জন্য মায়া কাঁদতে দেখা যেত, পত্র-পত্রিকা,টিভি চ্যানেলে সেই ছবি ফলাও করে প্রচারিত হতো!৷ কিন্তু এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত কাউকে কোনো নেতা- নেত্রী দেখতে গিয়েছেন বলে জানা যায় নাই! এর কারন কি? মৃত্যু ভয়?! তাঁরা না দাবি করেন তাঁরা জনগনের জন্য জীবন দিতে প্রস্তুত!! তাহলে হাসপাতালে না গিয়ে মিরজাদীকে দিয়ে ব্রিফিং কেন?!!!! পাদটীকাঃ বিপদেই নেতার পরিচয়!!

Mojib

২০২০-০৩-২৭ ১১:৫০:৩৫

বাংলাদেশে যা অবস্থা মনে হয়, হাজার হাজার মানুষ করোনা আক্রন্ত,আমাদের সাস্হ মন্ত্রী যদি একটু লজ্জা থাকতো একবার হলে ও ভাবতো, কেন যে পদত্যাগ করে না...!

Md Shahidul Islam

২০২০-০৩-২৭ ২১:১৪:৪৫

সত্য যত কঠিনই হউক তা প্রকাশ করা উচিত। সঠিকভাবে তথ্য জানানোর জন্য অনুরুধ করা হলো।

মাসুদ

২০২০-০৩-২৭ ০৭:১৬:৫৬

দিনে কতজন টেস্ট করানো হয়? সত্যিটাই বলেন তাতে কিছুই হবে । কারন এদেশের জনগণ তো কাপুরষ! আর সরকারেরও জবাব দিতে হয় না। করোনাভাইরাস এ মৃত্যুর হার বাংলাদেশে কম! ১৪দিন পরে দেখেন না কি হয়?

Mohammad Mostain Bil

২০২০-০৩-২৭ ০৬:১৩:৪৬

আপনার রিপোর্ট আপত্তিকর ও বিভ্রান্তিকর। করোনা রোগে বয়স্ক এবং পূর্বে জটিল রোগে আক্রান্তদের ঝুঁকি বেশি বিধায় এ ধরনের তথ্য প্রকাশে আপত্তিকর কিছু নেই।

kini

২০২০-০৩-২৭ ০৪:৩৩:৩৯

she is goat that's why she declare right that

আশরাফ

২০২০-০৩-২৭ ০১:২৮:৩১

যে দেশে গড়ে প্রতিদিন ১৫ থেকে ২০ জন রোড রোড এ্যক্সিডেন্টে মারা যায়, ততোধিক আহত হয়ে পঙ্গুত্ব বরন করে জীবনযাপন করার পরও এ্যক্সিডেন্ট প্রতিরোধে তেমন কোন সামাজিক আন্দোলন গড়ে উঠেনি, প্রতিরোধে স্থায়ী কোন পদক্ষেপ হয়নি। সরকার আইন করেও পরিবহন শ্রমিকদের বিরোধীতার কারনে স্থগিত করতে হয়েছে। সেদেশে করোনাভাইরাসে প্রতিদিন ৪/৫ জন আক্রান্ত আর ৪/৫ দিনে ১জন করে মৃত্যু তেমন কোন ঘটনা কি...?

Md Fazlul Haque

২০২০-০৩-২৬ ২২:৫৯:৩৪

আমাদের মাইন্ড এতো নীচু হলে চলবে না। উনি মীরজাদী নতুন নতুন শাড়ী পড়ে প্রেস ব্রিফিংয়ে আসছেন এ নিয়েও মানুষ মন্তব্য করছে, যা অনভিপ্রেত।

Shah Ali Md. Pintu K

২০২০-০৩-২৭ ০৬:৫৯:০৮

ডা. মীরজাদী যে মিথ্যা বলছেন, ওনার কথা বলার ভঙ্গিতে ফুটে উঠছে। এ কান্তিকালেও দেখছি প্রতিদিন সংবাদ সম্মেলনে নতুন নতুন শাড়িতে । আমরা মৃত্যু সংবাদ দিচ্ছি তা যেন স্বাভাবিক , সাধারণ কোন তথ্য । কিছু কিছু চ্যানেলের সংবাদ পাঠিকাদের সাজও বেমানান। জনগণের সামনে সত্য প্রকাশ করুন। মার্জিনভাবে প্রকাশ করার অনুরোধ করছি। ধন্যবাদ দৈনিক মানবজমিন কে।

শোয়েব আকন্দ

২০২০-০৩-২৬ ২০:১৪:৪৪

ডিসেম্বর থেকে মার্চ। হাতে ৩ মাসেরও বেশী সময়। একটি মোহের পিছনে ৩ টি মাস নষ্ট করেছে সরকার। অবশেষে সেই ঘোর কেটে গেল। দরজায় কড়া নাড়ছে করোনা ভাইরাস। কোনো দিকেই খেয়াল ছিল না। সমস্ত নজর এক দিকে বন্দী। বিভিন্ন মাধ্যমে খবর আসে। বিনা চিকিৎসায় সর্দি কাশি আর জ্বরে মরছে মানুষ। কোনো হাসপাতাল তাদের রাখছে না। তাদের অপরাধ? তারা করোনা রোগী। আল্লাহ যদি আমাদের সহায় না হন তাহলে কঠিন পরিস্হিতির জন্য প্রস্তুত থাকেন। বিশেষজ্ঞদের ধারণা কয়েক লক্ষ লোক মারা যেতে পারে এই দেশে। জগদ্দল পাথরগুলো চেপে বসে আছে এই জাতির কাঁধে। প্রতিটি জায়গায় মিথ্যাবাদীরা বসে আছে। সত্য যত কঠিনই হউক তা প্রকাশ করা উচিত। কারণ সত্যকে গোপন রাখা যায় না। তা একদিন প্রকাশ পাবেই।

Yelius miah

২০২০-০৩-২৬ ০৬:৪৮:১৩

Your information is not believable

জাকিরুল ইসলাম

২০২০-০৩-২৬ ০৬:৪২:৫৯

আক্রান্ত ও মৃত্যুবরণ ব্যক্তির নাম ঠিকানা প্রকাশ করতে হবে।তাহলে সবাই আরও সচেতন হবে এবং তাদের স্পর্শে আসবে না।

আমিন

২০২০-০৩-২৬ ০৬:৩৪:৩৮

বাংলাদেশে মৃত্যুর আগ পর্যন্ত কারো করোনা!!

এ. আর. খান

২০২০-০৩-২৬ ০৬:২৮:১৫

৬০ বছর বয়স্ক যাঁরা মারা যান, তাঁদের ব্যাপারটা আলাদা ভাবে উল্লেখ করার কারণ এই যে, করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেন বেশি তাঁরাই যাঁদের ইমিউনিটি বা রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কম। আর ৫০+ বছর বয়স্করা আরো অন্যান্য জটিলতায়ও ভোগেন। যার কারণে করোনাভাইরাসের সাথে লড়াই করার মত তাঁদের আর কিছু অবশিষ্ট থাকে না। সারা বিশ্বে ৪০-৪৫ বছর বয়স্করা বেশিরভাগই হালকা ট্রিটমেন্ট বা কোনরকম ট্রিটমেন্ট ছাড়াই সেরে উঠেছেন। এসব কারণেই মূলত করোনায় মৃত ব্যাক্তি প্রবীণ হলে তাঁর বয়সটা আলাদা করে জানিয়ে দেয়া হয়। আর, আইইডিসিআর এ এই ডিরেক্টরকে গালাগালি করেও কোন লাভ নেই। তিনি নিজের বুদ্ধিতে চলেন বা নিজের কথা বলেন, এমনটা মনে করারও কোন কারণ নেই। আওয়ামীলীগ সরকারের মুজিব শতবর্ষ পালনের হীন উদ্দেশ্য চারিতার্থ করার জন্য ১৭ই মার্চ পর্যন্ত তাঁকে অসম্ভব পেশি শক্তি এবং নিজস্ব বিবেকের চাপ সামলে বাংলাদেশে তৎকালীন করোনার ভয়াবহতা গোপন করে রাখতে হয়েছে। এখন এসব হিসেব মেলানো মীরজাদি ম্যাডামের পক্ষে আর সম্ভব নয়। মাথাটাই ঠিক রাখা অসম্ভব এই পরিস্থিতিতে। সরকারের হঠকারি অনেক সিদ্ধান্তের বলি হন এভাবে অনেক কর্মকর্তাই।

ShawkatHossainChowdh

২০২০-০৩-২৬ ০৫:৫৮:৪২

আল্লাহ ই ভালো জানে।

জাকিরুল মোমিন

২০২০-০৩-২৬ ০৫:৫০:৪৪

প্রতিদিন যারা আক্রান্ত হয় বা মৃত্যবরন করে তাদের ঠিকানা কি বলা বারন,?

ইকবাল কবির

২০২০-০৩-২৬ ০৫:১৮:৩৬

করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃতের পরিচয় ও এলাকা গোপন থাকায় তা আরো সংক্রমণের আশংকা থেকে যাচ্ছে,কারন ওই এলাকা বা প্রতিবেশীরা সাবধান হতে পারছেন না।এই মৃত্যু কোন লজ্জার বিষয় নয় বরং সতর্কতার বিষয়।আদিসের বর্ননা অনুযায়ী এই মৃত্যু শহীদ এর মর্যাদা দেয়া হয়েছে।

Kamal

২০২০-০৩-২৬ ০৫:০১:২১

Call center without diagnosis saying you don't have corona. This is the 99% caller complain about this. No one pick up the phone when someone calling.

জাকারিয়া সাইমুম

২০২০-০৩-২৬ ০৪:৫০:১৮

ভাইরাসের তথ্য গোপন করা, ভাইরাসের চাইতে ভয়ংকর।

shishir

২০২০-০৩-২৬ ০৪:৩৯:৪৬

বিষয়টা জটিল না করে, এ ভাবে ভাবুন যে বয়স্ক দের আলাদা ভাবে গুরুত্ব দেওয়া, আর কোমরবিডিটি উল্লেখ করে এটা বুঝানো যাদের কোমরবিডিটি আছে তারা সাবধানে থাকবেন, আর সাধারন জনগনকে এটা বুঝানো যে ভয়ের কিছু নেই। তবে বিপদের সময় অরথহীন সমালোচনা ঠিকনা।

তারেখ মিন্টু

২০২০-০৩-২৬ ০৪:১৩:২৩

যে যায় লঙ্কায় - সেই হয় রাবণ.... বহু পুরনো প্রবাদ, এটা তো সেব্রিনা ফ্লোরার দোষ নয়, দোষ ফ্লোরার চেয়ারটার.....

মহসিন

২০২০-০৩-২৬ ০৩:৩৫:৩১

দেশে গত ২ দিনে একজনও করোনা অাক্রান্ত রোগী নাকি সনাক্ত হয়নি। অন্যদিকে অনেকেরই মৃত্যু হয়েছে জ্বর সর্দি কাশি নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার পর। এখন অামরা কিভাবে নিশ্চিত হবো যে, এসব মৃত্যুর একটিও করোনা জনিত কারণে হয়নি। তথ্য গোপন করা হলে করোনা প্রতিরোধ তো হবেইনা, বরং এটি অারও ছড়িয়ে যাওয়াকে তরান্বিত করবে।

Yousuf Haroon

২০২০-০৩-২৬ ০৩:৩৩:৫১

Please tell us the true story. Nobody believe you anymore. For God sake you are playing with people's life. you became a very liar like politician.

Khokon

২০২০-০৩-২৬ ০৩:১২:০৬

From the beginning, I was not convinced Mirjadi about her informations, how many people are infected,or died ? Everyday news papers we see people are not getting contact with IEDCR, people are moving here and there ? After dying IEDCR send team from Dhaka to Eles where for go and get test ? It's doing funny something and joke with innocents people ? They are fake no doubt ! They are holding the posts for choping money and giving wrong informations to save goverment ? But people are not shame like those who cheating and irresponsible ? Whole country only has one IEDCR which controlling all over the country and says digital Bangladesh ?

Sopno

২০২০-০৩-২৬ ০২:১৭:৪৭

মিথ্যা বলায় তিনি বেশ পারঙ্গম। ওনার নিকট আত্মীয় কেউ আক্রান্ত হলে কি বলে তার অপেক্ষায় রইলাম ।

Kibria khan

২০২০-০৩-২৬ ০২:১৫:৩৯

সঠিক তথ্য গোপন করা ক্ষমতাহীন অপরাধ ।

জামশেদ পাটোয়ারী

২০২০-০৩-২৬ ১৫:০৭:০০

আইইডিসিআরের হটলাইনে টানা ২/৩ ঘন্টা চেস্টা করেও লাইন পাওয়া যায় না। সরকার শুরু থেকে করোনাভাইরাসকে গুরুত্ব দিলে এই ভয়াবহ পরিস্থিতির সৃষ্টি হতোনা। মার্চের ১-২০ তারিখের ভিতর আসা প্রায় আড়াই লক্ষ প্রবাসীকে নজরদারীতে আনলে দেশের মানুষ আজ অনেকটাই বিপদমুক্ত থাকতো।

Mollah Nurul Islam

২০২০-০৩-২৬ ০২:০২:৫৬

সরকারের প্রতি অনুরোধ উনাকে করোনা সংক্রান্ত ব্রীফিং থেকে সরিয়ে নিন। মিথ‍্যা বলেন এবং অসম্মানজনক কথা বলেন।

Rafiq

২০২০-০৩-২৬ ০২:০২:৫৫

I think she doesn't say truth.

ওয়াহিদুজ্জামান

২০২০-০৩-২৬ ০১:৩৫:০৩

পৃথিবীর প্রায় দেশেই করো রোগীর সংখ্যা লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে। বাংলাদেশে কিন্তু সেভাবে বাড়ছে না।

Md. Harun Al-Rashid

২০২০-০৩-২৬ ১৪:৩২:৪৯

(আল্লাহ মাফ করুন) যে দিন সকলদূর্গ আক্রান্ত হবে সেদিন হয়তো.....। তিনি মাঠে আছেন, থাকুন। আমাদের মর্যদাবানরা দায়িত্ব হস্তান্তরযোগ্য বিষয় বলে ভেবে আসছেন।

নেছার

২০২০-০৩-২৬ ০১:৩১:৩৬

আমরা আমাদের কে ভাগ্যের উপর ছেড়ে দেওয়া ছাড়া কিছুই করার নেই ।

এটিএম তোহা

২০২০-০৩-২৬ ০১:৩০:৩৭

২৩ তারিখ মির্জা দিছে না বললেন ২ লক্ষ কিট মজুদ আছে গতকাল মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বললেন 30 হাজার কিট এ সপ্তাহের মধ্যে সরকারের হাতে আসবে। একজন দায়িত্বশীল ব্যক্তির এহেন বানোয়াট তথ্য প্রতিষ্ঠানটির বিশ্বাসযোগ্যতা হারিয়েছে।

শেখ মোহাম্মদ মোখলেছু

২০২০-০৩-২৬ ০১:১৮:৩৫

কি বলবো এদের কথা এরা যদি দায়িত্ব কান্ড হিন কথা বলে তাহলে দেশের সাধারণ মানুষ যারা আছি আমরা কোথায় যাব

ওয়াদুদ

২০২০-০৩-২৬ ০১:১৪:৪৫

খুবই গুরুত্বপূর্ণ বিষয় নিয়ে কথা বলছেন।এজন্য আপনাকে ধন্যবাদ।

Mahfuz

২০২০-০৩-২৬ ০০:৫৮:৪৮

সবকিছুনিয়ে নাটক করার একটা সংস্কৃতি চালু হয়েছে। নাটক করেন ভালো কথা কিন্তু চিকিৎসা পাওয়া মানুষের মৌলিক অধিকার , চিকিৎসাতো দেবেনইনা উপরন্তু চিকিৎসা প্রার্থীদের সাথে খারাপ ব্যবহার করবেন। আল্লাহ যেদিন ধরবেন কেও ছাড় পাবেন না।

আনোয়ার

২০২০-০৩-২৬ ০০:৪৮:৪৩

কম পানির মাছ বেশী পানিতে পরলে যেমন হয় আর কি।

শায়মা

২০২০-০৩-২৬ ১৩:৪১:৪১

হুম, কথায় যুক্তি আছে। এই পোষ্টে আরও মেধাবি এবং কাজের লোক দরকার।

নূরুল আলম ফাহিম

২০২০-০৩-২৬ ০০:৪১:২৪

যেখানে সঠিক তথ্য পাওয়া যায় না সেখানে গুজব ছড়িয়ে পড়ে। কারণ গুজব ছড়ানোর মূল কারণই হচ্ছে সঠিক তথ্য না পাওয়া। যেকোনো বিষয়ে যদি আপনি সঠিক তথ্য পেয়ে থাকেন তাহলে গুজব রটানোর কোন সুযোগ থাকে না।

Hossain

২০২০-০৩-২৬ ১৩:৩৬:৪০

She is unfit and remove this position

faruk

২০২০-০৩-২৬ ০০:৩১:০৭

মানুষের জীবন নিয়ে তারা নাটক শুরু করেছে।

saiful islam

২০২০-০৩-২৬ ০০:৩০:১৭

আমি মনে করি এই ভদ্র মহিলা মৃত ও আক্রান্ত লোকের সংখ্যা গোপন করছেন ।

প্রকাশে অনিচ্ছুক

২০২০-০৩-২৬ ০০:২৯:৫২

তিনি আসলে যা বলেন প্রতিদিন সব মিথ্যে বলে প্রতিদিন আইইডিসিআর অসংখ্য মানুষ যায় করোনা টেস্ট করতে কিন্তু প্রতিদিন টেস্ট হয় 20 থেকে 30 টা আর বলে 70-80 টা এখানে বহির্বিশ্বে হাজার হাজার চেষ্টা করে কোন পাত্তা পাচ্ছে না তিনি সেখানে প্রতিদিন 100 এর বেশি টেস্ট করেন না আর উপসর্গ জেনে যদি জানা যেত করোনা হয়েছে কি বা হয়নি তাহলে চিকিৎসা বিজ্ঞানের কোন দরকারই ছিল না ডাক্তারের চিকিৎসা দিতে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় এখানে বলে পিপি ছাড়া চিকিৎসা দিতে হবে এটা কি মগের মুল্লুক নাকি আর উনি যে সব লোক মারা যাচ্ছে বলছে ডায়াবেটিস হার্টের সমস্যা রক্তচাপ আরো নানান ধরনের কথা বলছে এসব বলে আপনি কি বুঝাতে চান টেস্ট করাতে যদি উচ্চপদস্থদের তদবির লাগে তাহলে আর কি হল এই মহা বিপদের সময় যাদের উপসর্গ আছে বা সন্দেহ হচ্ছে তাদের সকলকে টেস্ট করা উচিত

shomrat

২০২০-০৩-২৬ ০০:২৪:২১

সঠিকভাবে তথ্য জানানো জন্য অনুরু করা হলো তা না হলে ওই পথ হতে বহিষ্কার করা হক।

Abdullah

২০২০-০৩-২৬ ০০:২০:২৬

তার বাজে আচরণ আর রোগীর ব্যাপারে উদাসীনতার কারণে অনেকে অকারণে প্রাণ হারাচ্ছে। এতে করে সরকার ও আইইডিসিআর উভয়ের প্রতি মানুষের আস্থা নষ্ট ইচ্ছে। সুতরাং অনতি বিলম্বে তাকে অপসারণ করা সময়ের দাবি।

আপনার মতামত দিন



অনলাইন অন্যান্য খবর

আরও ৩২২ নাগরিককে সরিয়ে নিলো যুক্তরাষ্ট্র

৬ স্পেশাল ফ্লাইটে ফিরেছেন ৯ শতাধিক বিদেশি: পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়

৫ এপ্রিল ২০২০



অনলাইন সর্বাধিক পঠিত