করোনা বনাম হানামি

মানবজমিন ডেস্ক

বিশ্বজমিন ২৬ মার্চ ২০২০, বৃহস্পতিবার | সর্বশেষ আপডেট: ২:৩৬

এখন চেরি ফুলে ছেয়ে গেছে জাপানের বাগান, পার্ক। প্রতি বছরই এ সময়টাতে জাপানিরা এই চেরি ফুল দেখতে দলে দলে নেমে পড়েন। তারা একে উৎসব হিসেবে মনে করেন। তাই এ উৎসবকে নাম দেয়া হয়েছে চেরি ফুল দেখার উৎসব। জাপানিরা একে বলে থাকেন ‘হানামি’। কিন্তু এ বছর সারা বিশ্বে করোনা ভাইরাস মানবতাকে বিপর্যস্ত করে তুলেছে। মানুষ বাঁচার জন্য যে যেভাবে পারেন, সেভাবে চেষ্টা করছেন। লকডাউন হয়ে আছে দেশের পর দেশ।
স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়, সরকারি অফিস- সব বন্ধ। অতি আণবীক্ষণিক ওই করোনা ভাইরাসের আগ্রাসন থেকে বাঁচতে মানুষ বন্ধ করে দিয়েছে সীমান্ত। বিমান চলাচল। সব। নিজেদের করেছে ঘরের ভিতর স্বেচ্ছাবন্দি। কিন্তু সেই মুহূর্তে এসব ভয়কে পিছনে ফেলে জাপানিরা হানামি উৎসবে মেতেছেন। কিন্তু টোকিওর মেয়র ইউরিকো কোইকো বিষয়টিকে স্বাভাবিকভাবে নিতে পারেন নি। তিনি জাপানিদের অনুরোধ করেছেন জরুরি প্রয়োজন ছাড়া বাড়ির বাইরে বের হবেন না। কারণ করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েই চলেছে। তাই তিনি বুধবার সংবাদ সম্মেলন করেছেন। তাতে বলেছেন, টোকিওতে এখন সঙ্কটকালীন মুহূর্ত চলছে। ওদিকে টোকিওতে করোনা ভাইরাসে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৪১ জন। আর ২৪ ঘন্টায় জাপানে মারা গেছেন ২ জন। মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৯৮।

আপনার মতামত দিন

বিশ্বজমিন অন্যান্য খবর

সিএনএনের রিপোর্ট

করোনা টিকার পরীক্ষায় সর্বকনিষ্ঠ স্বেচ্ছাসেবক

২৬ অক্টোবর ২০২০

আল জাজিরার রিপোর্ট

করোনা: শ্রীলঙ্কায় পার্লামেন্ট বন্ধ

২৬ অক্টোবর ২০২০

বিবিসির প্রতিবেদন

‘করোনা মহামারি নিয়ন্ত্রণ করছে না যুক্তরাষ্ট্র’

২৬ অক্টোবর ২০২০

রয়টার্সের প্রতিবেদন

করোনা: ফ্রান্সে দিনে এক লাখ আক্রান্ত হতে পারেন

২৬ অক্টোবর ২০২০

রয়টার্সের প্রতিবেদন

ট্রাম্পের বক্তব্য প্রত্যাখ্যান করলেন পুতিন

২৬ অক্টোবর ২০২০



বিশ্বজমিন সর্বাধিক পঠিত



ইন্ডিপেন্ডেন্টের রিপোর্ট

ট্রাম্প উন্মাদ হয়ে গেছেন- ওবামা

আল জাজিরার প্রতিবেদন

গ্রে লিস্টেই থাকবে পাকিস্তান