ভারতের বিভিন্ন শহরে আটকে রয়েছেন বহু বাংলাদেশি

কলকাতা প্রতিনিধি

দেশ বিদেশ ২৬ মার্চ ২০২০, বৃহস্পতিবার | সর্বশেষ আপডেট: ৬:০০ পূর্বাহ্ন

ভারতে লকডাউন এবং সমস্ত পরিবহনের ক্ষেত্রে বন্ধের নির্দেশিকা চালু হওয়ায় নানা শহরে আটকে পড়েছেন বহু বাংলাদেশি। একই সঙ্গে তারা আর্থিক সঙ্কটে পরে দিশাহারা। এদের মধ্যে অধিকাংশই ভারতে এসেছেন কেউ পিতার, কেউ স্ত্রীর, কেউ ভাইয়ের  চিকিৎসার জন্য। প্রত্যেক রোগীর সঙ্গে রয়েছেন পরিবারের একাধিক সদস্য। কলকাতা ছাড়াও দক্ষিণ ভারতের বিভিন্ন শহরে তারা চিকিৎসার জন্য গিয়ে আর দেশে ফিরতে পারছেন না। আরেক দল ভারতে বেড়াতে এসে আটকে পড়েছেন। এদের সকলের কথায় অসহায় আর্তি। অবশ্য অনেকেই আবার ভারতে করোনা পরিস্থিতি যে দ্রুত বিপজ্জনক রূপ নেবে তা আন্দাজ করেন নি।
অনেকের আবার চিকিৎসাই শেষ হয়েছে কয়েকদিন আগে। এই সংকটজনক অবস্থায় কয়েকজন বাংলাদেশ হাইকমিশন ও উপ-হাইকমিশনে যোগাযোগ করেছেন। জানিয়েছেন তাদের সমস্যার কথা। উপ-হাইকমিশনে যোগাযোগ করা একটি পরিবারের একজনের ক্যান্সার চিকিৎসায় কেমোথেরাপি চলছে। অন্য পরিবারটি চেন্নাইয়ে আটকে রয়েছেন। জানা গেছে, ভারতে চিকিৎসা করতে আসা সকলকে বাংলাদেশে ফেরার আগে স্বাস্থ্য দপ্তরের কাছ থেকে করোনার উপসর্গ নেই এমন সার্টিফিকেট নিতে হবে। সীমান্তে এই সার্টিফিকেট দেখাতে হতে পারে। চেন্নাইয়ে আটকে পড়া নোয়াখালীর জাফর হোসেন তার পিতা আবু তাহেরের ওপেন হার্ট সার্জারি করাতে গিয়েছিলেন। সঙ্গে রয়েছে তার ভাইও। সার্জারি ঠিকভাবেই হয়েছে। গত সোমবারই সেলাই কাটা হয়েছে। কিন্তু কলকাতায় ফিরে দেশে ফেরার কোন রাস্তাই তিনি খুঁজে পাননি। এর উপর পশ্চিমবঙ্গে সম্পূর্ণ লকডাউন চালু হওয়ায় তাদের মাথায় হাত।
ভারতের বিভিন্ন জায়গা ঘুরতে এসেছিলেন বরিশালের ১১ জনের একটি দল। এই দলের সদস্য নাবিলা আঞ্জুমান টেলিফোনে এই প্রতিবেদককে জানিয়েছেন, তারা প্রায় এক মাস আগে ভারতে এসেছেন। তখন কোনো সমস্যা আঁচ করতে পারেননি। বরং নির্বিঘ্নেই ভারতের বিভিন্ন পর্যটনস্থানগুলো দেখে তারা মহীসুরে এসেছিলেন কয়েকদিন আগে। কিন্তু ফেরার মুখে লকডাউনের সমস্যায় পড়েছেন। বর্তমানে মহীসুরে তারা নিরাপদ আশ্রয়েই রয়েছেন। তবে তাদের হাতে অর্থ প্রায় শেষ। এই অবস্থায় বরিশালে পরিজনের কাছে অর্থ পাঠানোর করুণ আবেদন জানিয়েছেন। কিন্তু সেই টাকা পৌঁছানোও সমস্যা বলে জানা গেছে। তিনি জানিয়েছেন, তাদের পাশে থাকা আরেকটি বাংলাদেশি পরিবারও একইভাবে সেখানে আটকে রয়েছেন। ফলে আটকেপড়া বাংলাদেশিরা সকলেই দেশে ফিরতে চাইলেও এখন তা প্রায় অসম্ভব। ভারত থেকে সমস্ত আন্তর্জাতিক বিমানের ফ্লাইট ৩১শে মার্চ পর্যন্ত বন্ধ। ফলে, বিমানে তারা বাংলাদেশে ফিরতে পারবেন না। ৩১শে মার্চ পর্যন্ত ভারতে অপেক্ষা করেও নিস্তার নেই। কারণ, ২৬শে মার্চ থেকে ৪ এপ্রিল পর্যন্ত বাংলাদেশ সরকার লকডাউন ঘোষণা দিয়েছে। ফলে ২৬শে মার্চের আগে দেশে না ফিরতে পারলে ৪ঠা এপ্রিলের আগে তাদের পক্ষে ফেরা মুশকিল। এরই মধ্যে কলকাতায় ফিরে যে কয়েকটা দিন অপেক্ষা করবেন সেটাও সম্ভব হবে না। পশ্চিমবঙ্গে মঙ্গলবার থেকে সম্পূর্ণ লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে।
কলকাতায় বিভিন্ন গেস্ট হাউসে আটকে রয়েছেন বেশ কয়েকটি পরিবার। এদের মধ্যে অনেকেই চিকিৎসার জন্য এসেছেন। তবে কেউ কেউ বেড়াতেও এসেছেন। তাদের সকলের মধ্যে আতঙ্ক কীভাবে দ্রুত দেশে ফিরবেন তা ভেবে। কলকাতায় ঘুরতে এসে বাংলাদেশের আটজনের একটি দল গেস্ট হাউজেই বন্দি রয়েছেন। এই দলের সদস্য রাইফাত হোসেন জানিয়েছেন, কলকাতায় ঘুরতে এসেছিলাম। কিন্তু করোনার জন্য সব জায়গা বন্ধ হয়ে গিয়েছে। ফিরতেও সমস্যা হচ্ছে। রাইফাতের দাদাও পরিবারসহ আটকে পড়েছেন কলকাতায়। ঝিনাইদহের বাসিন্দা শামীম আহমেদ স্ত্রী নার্গিস আখতারের চিকিৎসার জন্য কলকাতায় এসেছিলেন। ২৮শে মার্চ চিকিৎসকের সঙ্গে অ্যাপয়েন্টমেন্ট। কিন্তু দেখানো যাবে কিনা তা নিয়ে তিনি যেমন চিন্তিত তেমনি কীভাবে দেশে ফিরবেন তা ভেবেও কোনো কূল পাচ্ছেন না। গাজীপুরের জেসমিন আখতার বৃদ্ধ মা’কে নিয়ে চিকিৎসা করাতে এসে এমন সংকটে পড়বেন তা ভাবতেও পারেননি।

আপনার মতামত দিন

দেশ বিদেশ অন্যান্য খবর

যুক্তরাষ্ট্রকে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও সচিব-

সম্পর্কোন্নয়ন চাইলে খুনি ফেরত দিন, ভায়া নয় সরাসরি যোগাযোগ করুন

২৭ জানুয়ারি ২০২১

যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে সম্পর্ক বিষয়ক এক ওয়েবিনারে অংশ নিয়ে গতকাল পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও সচিব বেশ কড়া বার্তাই ...

পেশাদার ছিনতাইকারীর কাছে ডিশ ব্যবসায়ী খুন

২৭ জানুয়ারি ২০২১

পেশাদার ছিনতাইকারীর কাছে খুন হয়েছেন ডিশ ব্যবসায়ী হামিদুল ইসলাম। মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের রমনা জোনাল টিম ...

দুই লাখ টাকার ঊর্ধ্বে সব কর ই-পেমেন্টে দেয়া বাধ্যতামূলক

২৭ জানুয়ারি ২০২১

আগামী ১লা জুলাই থেকে দুই লাখ টাকার ঊর্ধ্বে সব কর ইলেকট্রনিক পেমেন্ট বা ই- পেমেন্টের ...

খুলনার ৯ উপজেলায় প্রথম ধাপে টিকা পাবে ৫ হাজার মানুষ

২৭ জানুয়ারি ২০২১

 প্রথম ধাপে খুলনায় করোনাভাইরাসের টিকা পাবেন ৫ হাজার মানুষ। এ জন্য ৯টি উপজেলায় সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ...

ভোটে থাকতে ডা. শাহাদাতের দুই সেট এজেন্ট প্যানেল

২৭ জানুয়ারি ২০২১

মামলা-হামলা আর হুমকির পরও ভোটের মাঠে শেষটা দেখতে চান বিএনপি’র নেতারা। ধরপাকড় ও এজেন্ট বের ...

মৃত নারী ধর্ষক সেই মুন্না ৪ দিনের রিমান্ডে

২৭ জানুয়ারি ২০২১

মর্গে মৃত নারী ধর্ষণের অভিযোগে দায়ের করা দুই মামলায় গ্রেপ্তার মুন্না ভগতের দু’দিন করে চারদিনের ...

পুরান ঢাকায় আগুনে পুড়ে মারা গেল ৪০০ কবুতর

২৭ জানুয়ারি ২০২১

পুরান ঢাকার হোসনি দালান এলাকায় আগুনে পুড়ে ৪০০ কবুতর মারা গেছে। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের ...

শেখ হাসিনা মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনে আনা বিল পাসের সুপারিশ

২৭ জানুয়ারি ২০২১

 জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নামে খুলনায় মেডিকেল বিশ্ববদ্যিালয় স্থাপনের ...

ভ্যাকসিন নিয়ে বিভ্রান্তি না ছড়াতে বিএনপি’র প্রতি আহ্বান

২৭ জানুয়ারি ২০২১

করোনা ভ্যাকসিনের মতো স্পর্শকাতর বিষয়ে বিভ্রান্তি না ছড়াতে বিএনপি’র প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ ...

লুটের এক টেক্সবুক এক্সাম্পল এখন বাংলাদেশ: সংসদে রুমিন ফারহানা

২৬ জানুয়ারি ২০২১

বিএনপি দলীয় সংসদ সদস্য রুমিন ফারহানা বলেছেন, লুটের এক টেক্সবুক এক্সাম্পল এখন বাংলাদেশ। লুটের টাকার ...

করোনা নিয়ে ড. ফাউচিকে চাপ দিয়েছিলেন ট্রাম্প

২৬ জানুয়ারি ২০২১

যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক  প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্প এবং ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব এলার্জি অ্যান্ড ইনফেকশিয়াস ডিজিজের মহাপরিচালক ড. ...

চসিক নির্বাচন

পুলিশের গণগ্রেপ্তারে নির্বাচনী গেম দেখছেন প্রার্থীরা

২৬ জানুয়ারি ২০২১

মাত্র একদিন বাকি চসিক নির্বাচনের। এরমধ্যে গণগ্রেপ্তার শুরু করে দিয়েছে পুলিশ। যাতে নির্বাচনী গেম দেখছেন ...



দেশ বিদেশ সর্বাধিক পঠিত



চীনের মধ্যস্থতায় ভার্চ্যুয়াল বৈঠক কাল

বর্ষার আগেই প্রত্যাবাসন শুরু করতে চায় ঢাকা

DMCA.com Protection Status