১৭দিন পর ক্লাসে ফিরেছেন বশেমুরবিপ্রবি’র শিক্ষার্থীরা

বশেমুরবিপ্রবি সংবাদদাতা

শিক্ষাঙ্গন ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০, রোববার

টানা ১৭ দিনের আন্দোলন কর্মসূচির পর ক্লাসে ফিরেছেন গোপালগঞ্জে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীরা। ইউজিসির তদন্ত কমিটির আশ্বাসের প্রেক্ষিতে প্রশাসনিক ও একাডেমিক ভবনের তালা খুলে দিয়েছেন আন্দোলনরত ইতিহাস বিভাগের শিক্ষার্থীরা। তবে নতুন করে ১৫দিনের আল্টিমেটাম দিয়েছেন তারা। আজ রোববার সকাল ৯টায়  সকল বিভাগের শিক্ষার্থীরা ক্লাসে ফেরেন।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস বিভাগের বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের (ইউজিসি) অনুমোদন নেই। অনুমোদন না থাকলেও বর্তমানে এ  বিভাগে ৪১৩ জন শিক্ষার্থী অধ্যায়নরত। তাই অনুমোদনের দাবিতে শিক্ষার্থীরা গত ৬ই ফেব্রুয়ারি রাত ৯টা থেকে প্রশাসনিক এবং একাডেমিক ভবনের প্রধান ফটকে তালা ঝুলিয়ে আন্দোলন ও অবস্থান কর্মসূচি শুরু করে। আন্দোলনের প্রেক্ষিতে গত ১৮ই ফেব্রুয়ারি ইতিহাস বিভাগের অনুমোদনসহ বিশ্ববিদ্যালয়ের সার্বিক বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন ও বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের মধ্যে বৈঠক হয়।
এ বিষয়ে ইউজিসি সাত সদস্যের কমিটি গঠন করে।

কমিটির প্রধান করা হয়েছে ইউজিসির সদস্য প্রফেসর ড. দিল আফরোজ  বেগমকে। অন্যান্য সদস্যরা হলেন, প্রফেসর ড. মো. আলমগীর হোসেন, প্রফেসর ড. মো. সাজ্জাদ হোসেন, পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিচালক প্রফেসর ড. কামাল হোসেন (সদস্য সচিব), বশেমুরবিপ্রবির ভিসি প্রফেসর ড. মো. শাহজাহান, বশেমুরবিপ্রবির রেজিস্ট্রার প্রফেসর ড. মো. নূরউদ্দিন আহমেদ এবং বশেমুরবিপ্রবির জীববিজ্ঞান অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. এম এ সাত্তার।

আপনার মতামত দিন

শিক্ষাঙ্গন অন্যান্য খবর

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়

ক্যাম্পাসে রঙ্গিন সাজ, তবুও নিষ্প্রাণ

২ ডিসেম্বর ২০২০

এইচএসসি পরীক্ষার ফল ডিসেম্বরেই

পিছিয়ে যাচ্ছে ২০২১ সালের এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষা

২৫ নভেম্বর ২০২০



শিক্ষাঙ্গন সর্বাধিক পঠিত



DMCA.com Protection Status