কলকাতায় সিএএ-এনআরসি বিরোধী আন্দোলনকারীর মৃত্যু

কলকাতা প্রতিনিধি

ভারত ৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০, সোমবার | সর্বশেষ আপডেট: ১২:২৭

নতুন সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন (সিএএ) এবং এনআরসির বিরুদ্ধে টানা ২৬ দিন ধরে কলকাতার পার্ক সার্কাস ময়দানে লাগাতার আন্দোলন চলছে। সিএএ-এনআরসি বিরোধী প্রতিবাদের নতুন পথ দেখিয়েছে দিল্লির শাহিনবাগ। রাজধানীর আন্দোলনকারীদের মতোই কলকাতার পার্ক সার্কাস ময়দানেও অবস্থান বিক্ষোভে বসেছেন কয়েকশ’ মহিলা। বিভিন্ন বয়সের মহিল এতে অংশ নিয়েছেন। সেই আন্দোলনে অংশগ্রহণকারী এক প্রতিবাদী নারীর আন্দোলনরত অবস্থাতেই গুরুতর অসুস্থ হয়ে মৃত্যু হয়েছে।  শনিবার রাত পৌনে ১টা নাগাদ হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে তার। তার নাম সমীদা খাতুন। তার বয়স হয়েছিল ৫৭ বছর। তার মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন পার্ক সার্কাসে সিএএ-এনআরসি বিরোধী আন্দোলনের আয়োজক আসমত জামিল।
যে আন্দোলন করাকালীন তার মৃত্যু হয়েছে, তা আরও বড় আকারে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন তিনি। জানা গেছে, অসুস্থ হওয়া সত্ত্বেও সিআইটি রোডের বাসিন্দা সমীদা জাতীয় নাগরিকপঞ্জি ও নাগরিকত্ব আইনের বিরোধিতায় পার্ক সার্কাসের প্রতিবাদ মঞ্চে শামিল হয়েছিলেন। শনিবারও তিনি সময়মতো পার্ক সার্কাস অবস্থানস্থলে চলে গিয়েছিলেন। সন্ধ্যায় সেখানেই অসুস্থ হয়ে পড়েছিলেন তিনি। তাকে প্রথমে ইসলামিয়া হাসপাতালে এবং পরে চিত্তরঞ্জন হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল। সেখানেই রাত পৌনে ১টা নাগাদ চিকিৎসকরা তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। তার মৃত্যুর খবর পেয়ে পার্ক সার্কাস অবস্থানস্থলে কালো ব্যাজ পরে দু’মিনিটের জন্য নীরবতা পালন করেন প্রতিবাদীরা। উল্লেখ্য, বিজেপি নেতারা অবশ্য পার্ক সার্কাসের আন্দোলনকারীদের উদ্দেশ্যে বিভিন্ন সময়ে কটু মন্তব্য করেছেন।  কয়েকদিন আগেই বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ এই আন্দোলনকারীদের সম্পর্কে বলেছিলেন, নোটবন্দির সময় লাইনে দাঁড়িয়ে এত লোকের মৃত্যু হলো, অথচ এত ঠান্ডাতেও আন্দোলনকারীরা কেউ মরছে না। তার এই মন্তব্যের তীব্র নিন্দা করা হয়েছে বিভিন্ন মহলে।

আপনার মতামত দিন

ভারত অন্যান্য খবর



ভারত সর্বাধিক পঠিত



এলাহাবাদ হাইকোর্টের যুগান্তকারী রায়

শুধুমাত্র বিয়ের প্রয়োজনে ধর্মান্তরকরণে আদালতের না

DMCA.com Protection Status