গ্রামীণফোনের কাছ থেকে ১২৫৮০ কোটি টাকা আদায়ের ওপর হাইকোর্টের নিষেধাজ্ঞা

স্টাফ রিপোর্টার

শেষের পাতা ১৮ অক্টোবর ২০১৯, শুক্রবার | সর্বশেষ আপডেট: ২:১৫

গ্রামীণফোনের কাছে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনের (বিটিআরসি) ১২ হাজার ৫৮০ কোটি টাকা দাবি আদায়ের ওপর দুই মাসের অন্তর্বর্তীকালীন নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে হাইকোর্ট। গতকাল বিচারপতি এ,কে,এম, আবদুল হাকিম ও বিচারপতি ফাতেমা নজীবের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এই আদেশ দেন। একইসঙ্গে আগামী ৫ নভেম্বর এ মামলার আপিলের ওপর শুনানির দিন নির্ধারণ করে আদালত। ফলে এই সময়ের মধ্যে গ্রামীন ফোনের কাছ থেকে কোনো অর্থ আদায় করা যাবে না বলে জানান আইনজীবীরা। আদালতে গ্রামীণফোনের পক্ষে শুনানি করেন সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি এ এম আমিন উদ্দিন, শরীফ ভূঁইয়া ও তানিম হোসেইন। অপরদিকে বিটিআরসির পক্ষে ছিলেন আইনজীবী খন্দকার রেজা-ই-রাকিব। এ এম আমিন উদ্দিন বলেন, হাইকোর্ট বিটিআরসির পাওনা আদায়ের ওপর দুই মাসের অন্তবর্তীকালীন নিষেধাজ্ঞা দিয়েছেন। ফলে এই সময়ে ওই অর্থ আদায় করা যাবে না।

নথি থেকে জানা যায়, গত ২রা এপ্রিল প্রায় ২৭টি খাতে ১২ হাজার ৫৮০ কোটি টাকা দাবি করে গ্রামীণফোনকে চিঠি দেয় বিটিআরসি।
২৬শে আগস্ট এই চিঠির যৌক্তিকতা নিয়ে প্রশ্ন তুলে অর্থ আদায়ের ওপর অস্থায়ী নিষেধাজ্ঞা চেয়ে গ্রামীণফোন নিম্ন আদালতে একটি মামলা করেন। এরপর গত ২৮শে আগস্ট নিম্ন আদালত গ্রামীনফোনে অস্থায়ী নিষেধাজ্ঞার আবেদন না মঞ্জুর করে আদেশ দেন। পরে ওই না মঞ্জুর আদেশের বিরুদ্ধে গ্রামীণফোন হাইকোর্টে আপিল করে। ওই আপিলটি শুনানির জন্য গ্রহণ করে দুই মাসের জন্য গ্রামীনফোনের কাছ থেকে টাকা আদায়ে নিষেধাজ্ঞা দেয় হাইকোর্ট।

আপনার মতামত দিন



শেষের পাতা অন্যান্য খবর

সড়কে ঝরলো ১২ প্রাণ

২৯ জানুয়ারি ২০২০

সংবাদ সম্মেলন

সিলেটে ‘ফ্ল্যাট’ কিনে দিশাহারা ৮৪ মালিক

২৯ জানুয়ারি ২০২০

শূন্য শূন্য লাগে উহানে

২৮ জানুয়ারি ২০২০



শেষের পাতা সর্বাধিক পঠিত