আবরার হত্যার বিচার দ্রুত ও সর্বোচ্চ শাস্তি চায় সুপ্রিম কোর্ট বার

স্টাফ রিপোর্টার

অনলাইন ৯ অক্টোবর ২০১৯, বুধবার, ৬:৫০ | সর্বশেষ আপডেট: ৭:০৬

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েট) শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদ হত্যাকা-ের সঙ্গে জড়িতদের বিচার দ্রুত করার দাবি জানিয়েছেন সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি অ্যাডভোকেট এ এম আমিন উদ্দিন ও সেক্রেটারী মাহবুব উদ্দিন খোকন। একইসঙ্গে তারা দায়ীদের সর্বোচ্চ শাস্তির দাবিও জানিয়েছেন । গতকাল সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতি ভবনের শহীদ শফিউর রহমান মিলনায়তনে আলাদা সংবাদ সম্মেলনে এ দাবি জানান তারা।

সংবাদ সম্মেলনে অ্যাডভোকেট এ এম আমিন উদ্দিন বলেন, আমি মনে করি দুষ্কৃতিকারীদের কোনো দল ও পরিচয় নেই, তাদের একমাত্র পরিচয় তারা দুষ্কৃতিকারী। যারা আবরারকে নির্মমভাবে পিটিয়ে হত্যা করেছে তারা মেধাবী ছাত্র হলেও মানুষ না, কারণ কোনো মানুষ এমন নির্মমভাবে কাউকে পিটিয়ে হত্যা করতে পারে না। আবরার হত্যাকা-ের বিচার নিয়ে যেন কোনো রাজনীতি না হয় সে আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতি সব ধরনের অপরাধ-নির্যাতনের বিরোধী। আমরা বুয়েট ছাত্র আবরারকে নির্মমভাবে পিটিয়ে হত্যার তিব্র নিন্দা জানাই। এ ঘটনায় যারা দায়ী তাদের দ্রুত বিচারের মাধ্যমে সর্বোচ্চ শাস্তির দাবি করছি। সংবাদ সম্মেলনে সমিতির সহ-সভাপতি অ্যাডভোকেট জসিম উদ্দিন ও কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য অ্যাডভোকেট শামীম সরদার উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে, অপর এক সংবাদ সম্মেলনে সারাদেশের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান একটি নির্দিষ্ট ছাত্র সংগঠনের কাছে জিম্মি হয়ে আছে বলে মন্তব্য করেছেন সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সম্পাদক (বিএনপি সমর্থিত) ব্যারিস্টার এ এম মাহবুব উদ্দিন খোকন।
বুয়েট শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদ হত্যার তীব্র নিন্দা জানিয়ে হত্যাকা-ে জড়িত সবাইকে আইনের আওতায় আনার দাবি জানিয়েছেন তিনি।
মাহবুব উদ্দিন খোকন বলেন, সারাদেশের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান একটি নির্দিষ্ট ছাত্র সংগঠনের কাছে জিম্মি। প্রতিষ্ঠানগুলোয় একটির পর একটি হত্যাকা- সংগঠিত হচ্ছে, কিন্তু কোনোটিরই বিচার হচ্ছে না। লোক দেখানো কিছু গ্রেপ্তার হলেও প্রকৃত আসামিরা থেকে যাচ্ছে পর্দার অন্তরালে। ছাত্র নামধারী একটি ছাত্র সংগঠনের নেতাকর্মীদের অপরাধের সীমা ছাড়িয়ে গেছে বলে উল্লেখ করে ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন বলেন, আবরার হত্যার বিচার দ্রুত শেষ করতে হবে। স্বাধীন সার্বভৌম বাংলাদেশে এমন হত্যাকা- কোনোভাবেই মেনে নেয়া যায় না।
বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েট) শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদের হত্যার প্রতিবাদে সাধারণ শিক্ষার্থীদের দাবির প্রতি পূর্ণ সমর্থন জানিয়ে ব্যারিস্টার খোকন বলেন, স্বাধীন সার্বভৌম বাংলাদেশে এমন হত্যাকা- কোনোভাবেই মেনে নেয়া যায় না। সরকার মাঝে মাঝে জঙ্গি ধরে এবং ক্রসফায়ারের নাটকও করে, এদের জঙ্গি কর্মকা- অনেক সময় প্রকাশ পায় না। কিন্তু আবরার হত্যাকারীরা হলো প্রকৃত জঙ্গি। এসব সন্ত্রাসীকে আইনের আওতায় আনতে হবে এবং দ্রুত বিচার কার্যকর করতে হবে। তিনি আরো বলেন, ‘বাংলাদেশের স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্ব সম্পর্কে নিজের চিন্তা, বিবেক ও স্বাধীনভাবে মতামত প্রকাশ করার জন্য ছাত্রলীগ নামীয় সন্ত্রাসীরা তাকে ডেকে নিয়ে পিটিয়ে নির্মমভাবে হত্যা করে। এমন ঘটনা অত্যন্ত অমানবিক, মর্মান্তিক, পৈশাচিক ও হৃদয়বিদারক, যা নিয়ে সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতি প্রতিবন্ধীর মতো চুপচাপ থাকতে পারে না। সংবাদ সম্মেলনে আরো উপস্থিত ছিলেন আইনজীবী সমিতির সহ-সম্পাদক অ্যাডভোকেট শরীফ উদ্দিন আহমেদ ও কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য সৈয়দা শাহিন আরা লাইলী।

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

রাহমান

২০১৯-১০-০৯ ০৮:১৩:০৮

বিচার আর কি হবে ফাসি হলেও রেহাই আছে এর জন্য প্রেসিডেন্ট আব্দুল হামিদ সাহেব অপেক্ষাই আছে। দেখতে হবে আওয়ামী ছত্রলীগ বলে কথা

আপনার মতামত দিন

অনলাইন অন্যান্য খবর



অনলাইন সর্বাধিক পঠিত



প্রিয় টুইটারের বিরুদ্ধেও ট্রাম্পের অভিযোগ

‘আমি যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট, কখনো এভাবে কথা বলবেন না’

DMCA.com Protection Status