সম্রাটের সিংহাসনে আরোহণ অনুষ্ঠানে অংশ নিতে জাপান যাচ্ছেন প্রেসিডেন্ট

মিজানুর রহমান

দেশ বিদেশ ৯ অক্টোবর ২০১৯, বুধবার | সর্বশেষ আপডেট: ১:১৮

জাপানের নতুন সম্রাট নারুহিতোর আনুষ্ঠানিক সিংহাসনে আরোহণ বা রাজ্যাভিষেক অনুষ্ঠানে অংশ নিতে টোকিও যাচ্ছেন প্রেসিডেন্ট মো. আবদুল হামিদ। আগামী ২২ শে অক্টোবর টোকিও’র ইমপেরিয়াল প্যালেসের রাজকীয় ওই আয়োজনে ১৯০টি দেশের বিভিন্ন পর্যায়ের প্রতিনিধিসহ আমন্ত্রিত দেশি-বিদেশি ২৫’শ অতিথি অংশ নিচ্ছেন। ওই আয়োজনে যোগ দিতে প্রেসিডেন্ট হামিদ আগের দিনে জাপান পৌছাচ্ছেন। কূটনৈতিক সূত্র বলছে, রাজ প্রসাদের বর্ণাঢ্য আয়োজনে জাপান এবং অন্যান্য দেশের অতিথিদের সঙ্গে অনানুষ্ঠানিক মতবিনিময়ের সূযোগ হবে বাংলাদেশের রাষ্ট্র প্রধানের। চার দিন জাপানে অবস্থান করবেন প্রেসিডেন্ট। সফরকালে দেশটির বিভিন্ন পর্যায়ের প্রতিনিধির সঙ্গে তার আনুষ্ঠানিক আলোচনা, বৈঠক এবং মতবিনিময় হবে। প্রায় ৩১ বছর পর জাপানে সর্বোচ্চ সম্মানীয় এবং ঐক্যের প্রতীক ‘সম্রাট’ পদে পরিবর্তন এসেছে। ১লা মে নতুন সম্রাট নারুহিতো ও সম্রাজ্ঞী মাসাকো রাজ ভান্ডারের চাবি বুঝে নেয়ার মধ্য দিয়ে দায়িত্ব গ্রহণ করেছেন।
২২ শে অক্টোবর রাজকীয় পোশাকে তিনি জাতির সমানে আনুষ্ঠানিকভাবে আসবেন। সিংহাসনে আরোহণের আনুষ্ঠানিকতাও সম্পন্ন হবে ওই দিনে। এ দিন জাপানে রাষ্ট্রীয় ছুটি থাকবে। নতুন সম্রাটের আমলে অর্থাৎ ‘রেইওয়া’ যুগের সূচনার উৎসবমুখর পরিবেশ এখনো সম্রাট নারুহিতোকে ঘিরে চলছে। এরইমধ্যে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্প জাপান সফর করেছেন। তিনি সম্রাট নারুহিতো’র সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছেন। মূলত ট্রাম্প ছিলেন সম্রাটের সঙ্গে সাক্ষাৎ করা প্রথম বিদেশি নেতা। এবারের আয়োজনে ট্রাম্প যোগ দিচ্ছে না। তবে হো্‌য়াইট হাউজের বরাতে জাপানী সংবাদ মাধ্যম জানিয়েছে- গত শুক্রবার ওয়াশিংটনের তরফে ঘোষণা করা হয়েছে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প তথা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিনিধি হিসাবে সম্রাটের অভিষেক অনুষ্ঠানে অংশ নেবেন পরিবহন মন্ত্রী ইলাইন চাও। থাইওয়ানে জন্মগ্রহণকারী এশিয়ান-আমেরিকান চাও প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের কেবিনেটে অত্যন্ত প্রভাবশালী মন্ত্রী। জাপানী সংবাদ মাধ্যম আরও জানিয়েছে- নতুন সম্রাট তার রাজ্যাভিষেক উপলক্ষে দেশটির প্রায় ৬ লাখ অপরাধী যারা তুলনামূলক লঘু অপরাধে কারাভোগ করছেন তাদের মুক্ত করে দেয়ার ঘোষণা দিয়েছেন। তবে তাদের মুক্তির প্রক্রিয়া এখনও স্পষ্ট নয়। জেলের বদলে তাদের জরিমানা গুনতে হবে কি-না বা গুনতে হলেও তার পরিমাণ কি হবে তা এখনও খোলাসা হয়নি।
উল্লেখ্য প্রায় ২০০ বছরের মধ্যে জাপানে এই প্রথম আনন্দ-উদযাপনের মধ্যে দিয়ে নতুন সম্রাটকে বরণ করা হচ্ছে। কারণ আইন পাসের আগে জাপানী রীতি ছিল কেবল মৃত্যুই সম্রাটের পদে পরিবর্তন আনতে পারে, অন্য কিছু নয়। আর এ কারণে সম্রাটের মৃত্যুর পর শোকের আবহে নতুন সম্রাট দায়িত্ব নিতেন। এবার আইন পরিবর্তন করে বার্ধক্যজনিত কারণে ৩১ বছর দায়িত্ব পালনকারী সম্রাট আকিহিতো এপ্রিলে স্বেচ্ছায় অবসরে গেছেন। প্রথা অনুযায়ী রাজপুত্র নারুহিতো নতুন সম্রাটের দায়িত্ব নিয়েছেন।

আপনার মতামত দিন

দেশ বিদেশ অন্যান্য খবর

রাজধানীতে নারীর লাশ উদ্ধার, গ্রেপ্তার ৬

১ ডিসেম্বর ২০২০

রাজধানীর কাফরুল এলাকায় সীমা বেগম (৩১) নামে এক নারীর লাশ উদ্ধারের ঘটনায় ছয়জনকে গ্রেপ্তার করেছে ...

আজই রিটার্ন দাখিলের শেষ দিন, সময় বাড়ছে না

৩০ নভেম্বর ২০২০

জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) চেয়ারম্যান আবু হেনা মো. রহমাতুল মুনিম বলেছেন, আয়কর রিটার্ন দাখিলের জন্য ...

আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের তদন্ত সংস্থার প্রধান আব্দুল হান্নান আর নেই

৩০ নভেম্বর ২০২০

আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের তদন্ত সংস্থার প্রধান সমন্বয়ক বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল হান্নান খান মারা গেছেন (ইন্নালিল্লাহি...রাজিউন)। ...

‘মাই ম্যান’ দিয়ে কমিটি গঠন করা যাবে না: ওবায়দুল কাদের

৩০ নভেম্বর ২০২০

নিজস্ব বলয় তৈরি করতে ‘মাই ম্যান’ দিয়ে কমিটি গঠন করা যাবে না বলে সাফ জানিয়ে ...

করোনার দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবিলায় বেসরকারি হাসপাতালগুলোকে প্রস্তুত রাখার নির্দেশ

৩০ নভেম্বর ২০২০

করোনার দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবিলায় সরকারি হাসপাতালগুলোর পাশাপাশি বেসরকারি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালগুলোকে প্রস্তুত রাখার নির্দেশ দিয়েছেন ...

৭ ব্যাংকের নিয়োগ পরীক্ষা স্থগিত

২৯ নভেম্বর ২০২০

সমন্বিত সাত ব্যাংকের সিনিয়র অফিসার পদের (২০১৮ সাল ভিত্তিক) নিয়োগ পরীক্ষা স্থগিত করেছে ব্যাংকার্স সিলেকশন ...

চট্টগ্রামে ব্যাংক এশিয়ার বিরুদ্ধে ব্যবসায়ীর মামলা

২৮ নভেম্বর ২০২০

প্রায় ৩০০ কোটি টাকা পাওনা দাবি করে ব্যাংক এশিয়ার বিরুদ্ধে মামলা করেছেন চট্টগ্রামের গার্মেন্টস ব্যবসায়ী ...

চট্টগ্রামে সড়কে স্বঘোষিত ভিআইপিদের দাপট

২৮ নভেম্বর ২০২০

চট্টগ্রাম মহানগরীর সড়কে যানজটে শোনা যায় সাইরেন ও হুটারের তীব্র শব্দ। তাকালে দেখা যায় এটি ...



দেশ বিদেশ সর্বাধিক পঠিত



DMCA.com Protection Status