পর্দা নামলো বিপিএল ফুটবল আসরের

ড্র দিয়ে লীগ শেষ করলো চ্যাম্পিয়ন বসুন্ধরা

স্পোর্টস রিপোর্টার

খেলা ৪ আগস্ট ২০১৯, রোববার | সর্বশেষ আপডেট: ৬:০০ পূর্বাহ্ন

বসুন্ধরা কিংসের শিরোপা নিশ্চিত হয়ে গেছে আগেই। গতকাল ছিল স্রেফ আনুষ্ঠানিকতার এক ম্যাচ। হোম ভেন্যু নীলফামারীতে চট্টগ্রাম আবাহনীর বিপক্ষে আনুষ্ঠানিকতার ম্যাচে স্টেডিয়াম ভর্তি দর্শক হাজির করেছিল নবাগত ক্লাবটি। চ্যাম্পিয়ন লেখা সাদা-লাল জার্সিতে ছেয়ে গিয়েছিল বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামের গ্যালারি। তবে গ্যালারি ভর্তি দর্শকের সামনে শেষটা রাঙাতে পারলেন না বসুন্ধরার ফুটবলাররা। চট্টগ্রাম আবাহনীর সঙ্গে ১-১ গোলে ড্র করে মাঠ ছাড়ে চ্যাম্পিয়নরা।
এলাম, দেখলাম, জয় করলাম। বসুন্ধরা কিংসের ক্ষেত্রেও বিষয়টি তাই। চলতি বছরই বাংলাদেশের ফুটবলের সর্বোচ্চ পর্যায়ে আগমন ক্লাবটির।
প্রথমবার খেলতে এসে দুই ম্যাচ হাতে রেখে নিশ্চিত করে প্রিমিয়ার লীগের শিরোপা। লীগের আগে মৌসুমের প্রথম দুটি টুর্নামেন্টের দুটিতেই তারা খেলেছিল ফাইনাল। ফেডারেশন কাপে রানার্সআপ হয়ে সন্তুষ্ট থাকলেও স্বাধীনতা কাপে অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন হয় বসুন্ধরা কিংস। লীগে টানা ১৪ ম্যাচে জয়ের রেকর্ডও কিংসের। শেষ দিকে শেখ রাসেলের না হারলে অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন হতো নবাগত ক্লাবটি। তবে পরের ম্যাচে মোহামেডানের সঙ্গে ১-১ গোলে ড্র করে শিরোপা নিশ্চিত করে তারা। এরপর লীগের ২৩তম ম্যাচে হারায় সাইফ স্পোটিংকে। শেষটাও জয়ে রাঙ্গাতে চেয়েছিল  ক্লাবটি। গতকাল বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামে  ম্যাচে দারুণ শুরুতে ভালো কিছুরই আভাস দিচ্ছিলো বসুন্ধরা কিংস। প্রথম পর্বে চট্টগ্রামের দলটিকে ৩-০ গোলে উড়িয়ে দেওয়া বসুন্ধরা দ্বিতীয় পর্বেও আক্রমণাত্মক ফুটবল খেলতে থাকে। চতুর্দশ মিনিটে বাঁ প্রান্ত থেকে ডি-বক্সে ঢুকে ড্যানিয়েল কলিন্দ্রেসের শট ফিরে আসার তিন মিনিট পর এগিয়ে যায় দলটি। মার্কোস দি সিলভার শট ডিফেন্ডার মুফতা লাওয়ালের পাশ দিয়ে গোলরক্ষককে বোকা বানিয়ে জালে জড়ায়। ১৮তম মিনিটে মোনায়েম খান রাজুর শট পোস্টে লেগে ফিরলে হতাশ হতে হয় চট্টগ্রাম আবাহনীকে। প্রথমার্ধের শেষ দিকে কিরগিজস্তানের ফরোয়ার্ড দানিয়েল নিল আরমাহর পেনাল্টি থেকে সমতা ফেরান। ডি-বক্সে কিংসলে চিগোজিকে আনিসুর রহমান জিকো ফাউল করলে পেনাল্টির বাঁশি বাজিয়েছিলেন রেফারি। দ্বিতীয়ার্ধে মরিয়া হয়ে চেষ্টা করলেও কাঙ্ক্ষিত গোলের দেখা পায়নি বসুন্ধরা। ৬৬তম মিনিটে সোলেররার শট অল্পের জন্য ক্রসবারের ওপর দিয়ে বেরিয়ে যাওয়ার পর আর তেমন কোনো সুযোগ পায়নি দলটি। শেষ ম্যাচে জয় না পেলেও তৃপ্ত বসুন্ধরা কিংসের স্প্যানিয়ার্ড কোচ অস্কার ব্রুজন। তিনি বলেন, ‘ছেলেরা ম্যাচ বাই ম্যাচ উন্নতি করেছে। ধারাবাহিকভাবে ভালো খেলার কারণেই আমরা চ্যাম্পিয়ন হয়েছি।’ গত মৌসুমে সবচেয়ে বেশি পারিশ্রমিকে বসুন্ধরা কিংসে যোগ দেয়া ফরোয়ার্ড ইমন বাবু বলেন, ‘শুধু দল ভালো করলেই হয় না। শিরোপা জিততে প্রয়োজন ভালো ম্যানেজমেন্ট। যা বসুন্ধরার ছিল। এ কারণেই আমরা মৌসুমে এতো সফল। ২৪ ম্যাচে ২০ জয়, ৩ ড্র ও এক হারে ৬৩ পয়েন্ট নিয়ে লীগ শেষ করলো এবারই প্রথম প্রিমিয়ার লীগে খেলতে আসা বসুন্ধরা। ২৫ পয়েন্ট নিয়ে গোল পার্থক্যে মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাবকে পেছনে ফেলে অষ্টম স্থানে থেকে লীগ শেষ করল চট্টগ্রাম আবাহনী। 
পয়েন্ট টেবিল
দল ম্যাচ জয় ড্র হার গোল পয়েন্ট
বসুন্ধরা কিংস ২৪ ২১ ২ ১ ৫৩/১৩ ৬৩
ঢাকা আবাহনী ২৪ ১৯ ১ ৪ ৬০/২৮ ৫৮
শেখ রাসেল ২৪ ১৬ ৪ ৪ ৪৩/২০ ৫২
সাইফ স্পোর্টিং ২৪ ১৪ ৫ ৫ ৪০/২৪ ৪৭
আরামবাগ ২৪ ১০ ৩ ১১ ৩৩/৩২ ৩৩
শেখ জামাল ২৪ ৭ ৭ ১০ ৩১/৩৭ ২৮
মুক্তিযোদ্ধা ২৪ ৬ ৮ ১০ ২৬/২৮ ২৬
মোহামেডান ২৪ ৬ ৭ ১১ ৩১/৪০ ২৫
চট্ট. আবাহনী ২৪ ৫ ৯ ১০ ২১/২৫ ২৫
রহমতগঞ্জ ২৪ ৪ ১০ ১০ ৩৪/৫৩ ২২
ব্রাদাস ২৪ ৫ ৬ ১৩ ২৮/৪৯ ২১
নোফেল ২৪ ৫ ৫ ১৪ ২৩/৪২ ২০
বিজেএমসি ২৪ ২ ৫ ১৭ ১৪/৩৬ ১১
আসরের পুরস্কার
চ্যাম্পিয়ন : বসুন্ধরা কিংস
রানার্সআপ : ঢাকা আবাহনী
প্লেয়ার প্লে : শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্র
সেরা উদীয়মান খেলোয়াড় : রবিউল হাসান (আরামবাগ)
সেরা গোলরক্ষক : আশরাফুল ইসলাম রানা (শেখ রাসেল)
সর্বোচ্চ গোলা দাতা : রাফায়েল ওডোইন (শেখ রাসেল)
সেরা খেলোয়াড় : ড্যানিয়েল কলিন্দ্রেসে (বসুন্ধরা কিংস)
সেরা কোচ : অস্কার ব্রুজন (বসুন্ধরা কিংস)।

আপনার মতামত দিন

খেলা অন্যান্য খবর

টোকিও অলিম্পিক

আরও দু’টি ইভেন্ট থেকে সরে গেলেন বাইলস

৩১ জুলাই ২০২১

লীগ নিয়ে তামাশা চলছেই

খেলা শুরুর এক ঘণ্টা আগে আবার স্থগিত

৩১ জুলাই ২০২১



খেলা সর্বাধিক পঠিত



বাংলাদেশ-অস্ট্রেলিয়া টি-টোয়েন্টি সিরিজ

কোয়ারেন্টিনে আক্রান্ত দু’জন, আরও সতর্ক বিসিবি

DMCA.com Protection Status