দুই স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর বৈঠক দিল্লিতে

বাংলাদেশের সঙ্গে প্রত্যাবর্তন চুক্তিতে ভারত খুব আগ্রহী

মানবজমিন ডেস্ক

বিশ্বজমিন (১ বছর আগে) জুলাই ৩০, ২০১৯, মঙ্গলবার, ১১:১৪ পূর্বাহ্ন | সর্বশেষ আপডেট: ৬:০০ পূর্বাহ্ন

আসামের নাগরিকপঞ্জি থেকে বাদ পড়েছেন প্রায় ৪০ লাখ মানুষ। এর প্রেক্ষিতে প্রতিবেশী বাংলাদেশের সঙ্গে একটি প্রত্যাবর্তন বিষয়ক চুক্তি করতে খুব বেশি আগ্রহী ভারত। তাই ৭ই আগস্ট বাংলাদেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খানের সঙ্গে বৈঠকে অবৈধ অভিবাসীর প্রসঙ্গটি উত্থাপন করতে পারেন ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। এদিন ভারতের রাজধানী নয়া দিল্লিতে এই দু’নেতার মধ্যে বৈঠক হওয়ার কথা। বৈঠকে আরো উঠে আসতে পারে সীমান্তে পাচার, ভারতীয় ভুয়া মুদ্রা, ভারতীয় বিদ্রোহী গ্রুপ, রোহিঙ্গা শরণার্থী ও জনগণ সম্পৃক্ত বিভিন্ন ইস্যু। এ খবর দিযেছে ভারতের অনলাইন দ্য ইকোনমিক টাইমস।
 
এতে বলা হয়, দুই দেশেই জাতীয় নির্বাচনের পরে এটাই হবে ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যে প্রথম দ্বিপক্ষীয় বৈঠক। একই সঙ্গে ভারতে নতুন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর দায়িত্ব নেয়ার পর এটাই হবে বিদেশী কোনো নেতার সঙ্গে অমিত শাহের প্রথম বৈঠক। আসাদুজ্জামান খানের সঙ্গে তার ৬ দফা বৈঠক হতে পারে বলে জানানো হয়েছে রিপোর্টে।
এসব বৈঠকে সম্প্রতি শ্রীলঙ্কায় ইস্টার সানডে’তে বোমা হামলার বিষয়টি আলোচিত হতে পারে। ইসলামিক স্টেট এবং আল কায়েদা বিশ্বজুড়ে যে হুমকি সে বিষয়টি মাথায় রেখে এ আলোচনা হতে পারে। জঙ্গি গোষ্ঠী আল কায়েদার সঙ্গে জামায়াতুল মুজাহিদিন বাংলাদেশের ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক আছে বলে বিশ্বাস করা হয়। তাই এই গ্রুপটির বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নিতে বাংলাদেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর প্রতি আহ্বান জানাবেন অমিত শাহ। উল্লেখ্য, সীমান্তবর্তী পশ্চিমবঙ্গ, ত্রিপুরা ও আসাম রাজ্য থেকে যুবসমাজকে দলে ভেরানোর চেষ্টা করার কারণে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার সম্প্রতি নিষিদ্ধ করেছে জামায়াতুল মুজাহিদিন বাংলাদেশ গ্রুপটিকে।
 
আলোচনায় উঠতে পারে ঢাকায় ভারতীয় ভিসা আবেদন কেন্দ্রের অবস্থা। প্রতি বছর বাংলাদেশ থেকে ১০ লাখেরও বেশি বাংলাদেশী ভারত সফরে যায়। অন্য যেকোনো মিশনের তুলনায় ঢাকায় ভারতীয় হাই কমিশন, চট্টগ্রাম ও রাজশাহীতে দুটি সহকারী হাই কমিশন থেকে সর্বোচ্চ সংখ্যক ভারতীয় ভিসা ইস্যু করা হয়। সরকারি কর্মকর্তারা বলেছেন, ভারত ও বাংলাদেশের দুই নেতার এ বৈঠকে দুই দেশের আভ্যন্তরীণ নিরাপত্তা বিষয়ক কর্মকর্তারাও অংশ নেবেন। আলোচনার তালিকায় রয়েছে ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যে ছিটমহল বিনিময়ের বিষয়ে পর্যালোচনাও।

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

Md nurul islam

২০১৯-০৮-০২ ০৩:২৮:৩৭

সাবধান আমার বাংলাদেশ নিয়ে খেলবেন না মন্ত্রী সাহেব। যদি ভারতপ্রীতি দেখান তাহলে বাংলাদেশ ছেড়ে চলে যাবেন। এটা আমার দেশ এটা আমার মা। এই দেশকে নিয়ে দাবার চাল দিবেন না।

জাহাঙ্গীর

২০১৯-০৮-০১ ০৬:৩২:০০

আমি মনে করি,ইন্ডিয়া কখনো বাংলাদেশের ভালো চাইবে না??

Shah Angour

২০১৯-০৭-৩১ ১৯:৪৯:৫৪

মাননীয় স্বরাষ্ট মন্ত্রীর নিকট অনুরোধ থাকবে অত্যান্ত সতর্কতার সহিত আলাপ আলোচনা করবেন ,চুক্তির আগে প্রধান মন্ত্রীর সাথে মতামত নিয়ে নিবেন।অমিত শাহ ,মোদি কট্টর মৌলবাদী হিন্দু।।কোন ক্রমেই বাংলাদেশকে তাদের বলির পাঠা বানাতে দিবেন না।

sharifuzzaman

২০১৯-০৭-৩১ ১৯:১১:৪৯

আলোচনার সময় তিস্তা চুক্তির কথা সাহস করি বলিয়েন, বুক যিন না কাঁপে। দোয়া রইল।

জাহানুর

২০১৯-০৭-৩০ ২০:২৯:৩৫

এই প্রত্যাবর্তন চুক্তি করে ৪০ লক্ষ বাঙালীকে যেন স্বদেশ আসাম,ভারত থেকে বিতারিত করা না হয় সেদিকে বাংলাদেশের কঠোরতার পরিচয় দিতে হবে।সেই সাথে বাংলাদেশের রোহিঙ্গা ইস্যুটি নিয়ে ভারতের পদক্ষেপ কি হবে সেটি আলোচনায় আনতে হবে। দ্বিতীয় দফায় তিস্তা চুক্তি নিয়ে ভারতের কালক্ষেপণ করার বিষয়টি নিয়ে আলোচনায় তুতে হবে।তবেই এই প্রত্যাবর্তন চুক্তির আগ্রহের কারণ জানা যাবে।

Kamrul hasan

২০১৯-০৭-৩০ ০৮:৪৩:০৪

এই ভারত মুসলমান ধ্বংসে মেতে উঠে, তাই এদের ফান্দে পড়ে বাংলাদেশের কতি হবে, অরা চায় বাংলাদেশকে ফান্দে ফেলে কাজ করতে তাই সাবধান, বেশী লাভ করতে গিয়ে দেশের কতি করুনা,

imran

২০১৯-০৭-৩০ ২১:১৩:২১

sounds loosing activity...

ইমরান মোল্লা

২০১৯-০৭-৩০ ০৬:৫৩:০১

চুক্তি যাই করেন তবে বাংলাদেশ ও বাংলাদেশের মানুষ যেন বলির পাঁঠা না হয়।

ওবাইদুল

২০১৯-০৭-৩০ ১৭:৩৪:৩০

এই প্রত্যাপন চুক্তির ছত্র ছায়ায় লক্ষ লক্ষ ভারতীয় মুসলমানকে তাঁদের ইচ্ছার বিরুদ্ধে বাংলাদেশে পাঠিয়ে দিবে ।

রবিশংকর

২০১৯-০৭-৩০ ০৩:২৮:২২

তিস্তা চুক্তি নিয়ে আলোচনা করা খুব জরুরী বলে আমি মনে করি। আর হিন্দু নির্যাতন বন্দর দাবি জানায়।

সুলতান

২০১৯-০৭-৩০ ০১:৫৫:৪২

জনাব মন্ত্রী সাহেব এমন কোন চুক্তি করবেন না যা নাকি বাংলাদেশের শান্তি বিনষ্ট হয়। বাকী সবই আল্লাহ্র ভাল জানেন।

আপনার মতামত দিন

বিশ্বজমিন অন্যান্য খবর

মিস পানামা প্রতিযোগিতা

অংশ নিতে পারবেন হিজড়াও

৪ মার্চ ২০২১

ওয়াল স্ট্রিট জার্নালের প্রতিবেদন

দক্ষিণ এশিয়ার অর্থনীতিতে ‘বুল কেস’ হয়ে উঠছে বাংলাদেশ

৪ মার্চ ২০২১



বিশ্বজমিন সর্বাধিক পঠিত



DMCA.com Protection Status