নাদিমের অন্যরকম সেলুন

রকমারি

আবিদুল হক সোহেল | ২১ এপ্রিল ২০১৯, রোববার
একটি সাধারণ মানের  সেলুনে চুল কাটাতে যখন লাগে ৫০/৬০ টাকা। ঠিক তখন মোহাম্মদপুরে টাউন হল-এর যাত্রী ছাউনির পাশেই দেখা যায় একজন নাপিতকে। যিনি ৩০ টাকায় চুল কাটান আর সেভ ২০ টাকা। নেই তার কোনো সেলুন ঘর, নেই দামি দামি চুল কাটার মেশিন। খোলা আকাশের নিচে আছে শুধু একটা চেয়ার, আয়না আর কিছু যন্ত্রাংশ।

বলছিলাম ৪১ বছর বয়সী মোহাম্মদ নাদিমের কথা। যার দুটি মেয়েকে নিয়েই সংসার। তার মধ্যে বড় মেয়ের বিয়ে হয়ে গেছে।
আর ছোট  মেয়েটির বয়স মাত্র ১০। সাড়ে চার বছর ধরে  ছোট্ট মেয়েকে নিয়ে থাকেন মোহাম্মদপুর বিহারী ক্যাম্পে।
পূর্ব পুরুষের হাত ধরে এই পেশায় না আসলেও এই পেশায় কাজ করে যাচ্ছেন বহু বছর ধরেই। সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত চুল কেটে থাকেন তিনি। মাস শেষে উপার্জন হয় দশ থেকে বার হাজার টাকা।

নিজে পড়ালেখা করতে পারেন নি কিন্তু তিনি ঠিকই তার ছোট মেয়েকে স্কুলে ভর্তি করিয়ে দিয়েছেন। মোহাম্মদপুরের একটি স্কুলে তৃতীয়  শ্রেণিতে অধ্যয়নরত আছে সে।
আমার একটিই স্বপ্ন। ছোট মেয়েটিকে ঘিরে।  মেয়েটি যেন বড় হয়ে ভালো মানুষ হয়। শিক্ষিত হয়। আর ভালো পরিবারে বিয়ে হোক তার এটাই স্বপ্ন।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

জবি ভিসি পদে থাকার গ্রহণযোগ্যতা হারিয়েছেন

রাজশাহীতে গ্যাংকালচার চক্রের মূলহোতা গ্রেপ্তার

জলবায়ু বিষয়ক বিপর্যয়ের মুখে বাংলাদেশের এক কোটি ৯০ লাখ শিশু

সিরাজগঞ্জে ট্যাংকলরী চাপায় ২ ব্যবসায়ী নিহত

লক্ষ্মীপুরে কিশোরীকে গণধর্ষণ, আটক ২

ফেসবুকের বিরুদ্ধে মামলা করব?

আকাশের চিকিৎসা কি বন্ধ হয়ে যাবে?

নীলম উপত্যকায় কূটনীতিকদের নিয়ে গেছে পাকিস্তান

ভোলার সেই বিপ্লবের ভগ্নিপতিকে তুলে নেয়ার অভিযোগ

দেখে শুনে রাস্তা পার হওয়ার পরামর্শ প্রধানমন্ত্রীর

বাংলাদেশ-ভারত টেস্ট দেখার আমন্ত্রণ গ্রহণ করেছেন হাসিনা, আশাবাদী সৌরভ

এবার শামীমাকে ধর্ষণের অভিযোগ

সাবেক স্বামীর ছোঁড়া এসিডে ঝলসে গেলো ফাতেমা ও তার মেয়ে

ছেলের হাতে শিক্ষক বাবা খুন

ভোলার এসপির ফেসবুক আইডি হ্যাকড, থানায় জিডি

মাগুরায় ছাত্রী হোস্টেলে ঢুকে ছাত্রলীগের নিপীড়ন