নির্বাচন কমিশনের কঠোর সমালোচনা মুক্তিজোটের

স্টাফ রিপোর্টার | ২০১৩-১২-০৫ ৩:২৫
সমপ্রতি নিবন্ধন পাওয়া বাংলাদেশ সাংস্কৃতিক মুক্তিজোট নির্বাচন কমিশনের কড়া সমালোচনা করেছে। দশম সংসদ নির্বাচনে ৩০০ আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতার ঘোষণা দিলেও সময়ের অভাবে মনোনয়নপত্র জমা দিতে পারেনি দলটি। সময় বাড়ানোর জন্য কমিশনের কাছে আবেদন করেও কোন জবাব পাননি তারা। ফলে নির্বাচন কমিশনের বিরুদ্ধে অভিযোগের আঙুল তুলেছে দলটির নেতারা। গতকাল সংগঠনটির প্রধান আবদুর রাজ্জাক মোল্লাহ রাজু শিকদার স্বাক্ষরিত ও দলের দশজন কার্যকরী কমিটির সদস্যের যৌথ বিবৃতিতে জানানো হয়, গত ২৫শে নভেম্বর ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে তারা নির্বাচনে অংশ নেয়ার ঘোষণা দেন। তার কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করে কমিশন। এতে মনোনয়নপত্র উত্তোলন ও দাখিলের জন্য মাত্র সাত দিন সময় দেয়া হয়। এই স্বল্প সময়ে নির্বাচনের উদ্যোগকে কমিশনের ‘চরম কাণ্ডজ্ঞানহীনতা’ উল্লেখ করে নেতারা বলেন, এই অস্বাভাবিকতা ও অপরিপক্বতা কোনভাবেই গ্রহণযোগ্য নয়। নির্বাচন কমিশনের এত তাড়াহুড়া কিসের? তফসিল ঘোষণার পরদিন ২৬শে নভেম্বর সকালে নির্বাচনের সময় বাড়ানো এবং সর্বক্ষেত্রে বাস্তব সিদ্ধান্ত নেয়ার আবেদন করা হয় দলটির পক্ষ থেকে। এ বিষয়ে কমিশনের পক্ষ থেকে কোন জবাব আসার আগে দেশব্যাপী নিজেদের প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র উত্তোলন ও জমা দেয়ার কাজ বন্ধ রাখেন তারা। মনোনয়নপত্র জমা দেয়ার সময় শেষ হলেও কমিশনের পক্ষ থেকে কোন জবাব দেয়া হয়নি বলে অভিযোগ করে দলটি।
বিবৃতিতে নেতারা, স্বরাষ্ট্র ও জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় নির্বাচনকালীন সময়ে নির্বাচন কমিশনের অধীনে দিতে প্রধানমন্ত্রীর কাছে আহ্বান জানিয়ে বলেন, রাজনৈতিক সঙ্কটের স্থিতিশীল সমাধান কাঠামোগত প্রাতিষ্ঠানিক রূপের মধ্যেই হতে হয়, মুখে মুখে নয়। এদিকে নির্বাচনের বিষয়ে দলের কার্যকরী কমিটির সদস্য ও কন্ট্রোল বোর্ডের প্রধান শাহজামাল আমীরুল বলেন, আমরা তফসিল ঘোষণার পরদিনই মনোনয়নপত্র দাখিলের সময় বাড়ানোর আবেদন করেছিলাম কমিশনের কাছে। ৩০০ আসনে নির্বাচনের জন্য আগেই ঘোষণা দিয়েছি। দলের কাঠামো পর্ষদের প্রধান ফেরদৌস আলম সেতু বলেন, আমরা দুই সপ্তাহ সময় বাড়ানোর আবেদন করেছিলাম। এখনও কমিশনের পক্ষ থেকে তার কোন জবাব পাইনি।
মাত্র এক সপ্তাহে দলের পক্ষ থেকে প্রার্থী মনোনয়ন এবং প্রার্থীদের প্রয়োজনীয় ডকুমেন্ট প্রস্তুত করে জমা দেয়া সম্ভব নয়। তাই আমরা মনোনয়নপত্র সংগ্রহ ও জমা দেইনি। উল্লেখ্য, এ বছর অক্টোবর মাসে কোন ধরনের বিতর্ক ছাড়াই নির্বাচন কমিশনের কাছ থেকে ৪১তম রাজনৈতিক দল হিসেবে ছড়ি প্রতীকে মনোনয়ন পায় বাংলাদেশ সাংস্কৃতিক মুক্তিজোট।