‘ডেটিং প্রস্তাব’ বিতর্কে গেইলের জরিমানা (ভিডিওসহ)

স্পোর্টস ডেস্ক | ২০১৬-০১-০৫ ৩:০৯
সিরিয়াসভাবে কথাগুলো বলেন নি, সেটা তার মুখের ভঙ্গিতেই বুঝা গিয়েছিল। সবার সামনে হাসতে হাসতে নারী উপস্থাপককে ‘ডেটিং’র প্রস্তাব দেন ক্রিস গেইল। কিন্তু দুষ্টুমি করা সেই বিষয়টি এখন জরিমানা পর্যন্ত গিয়ে ঠেকলো। নারী উপস্থাপককে ‘ইঙ্গিতপূর্ণ‘ বার্তা দেয়ায় ওয়েস্ট ইন্ডিজের এ ব্যাটসম্যানকে ৭,২০০ ডলার জরিমানা করা হয়েছে। এছাড়া অস্ট্রেলিয়ার বিগ-ব্যাশ কর্তৃপক্ষ তাকে সতর্ক করে দিয়ে বলেছে, এটা খেলার মাঠ নাইট ক্লাব নয়। ঘটনা সোমবারের। অস্ট্রেলিয়ার বিগ-ব্যাশ টুর্নামেন্টে মেলবোর্ন রেনেগেডসের হয়ে ১৫ বলে ৪১ রানের দুর্ধর্ষ ইনিংস খেলার পর ফেরেন গেইল। তখন নারী সাংবাদিক মেল ম্যাকলাফলিন তার সামনে এগিয়ে যান। সেখানে সরাসরি সাক্ষাৎকারে নারী সাংবাদিককে গেইল বললে, ‘তোমাকে সাক্ষাৎকার দেবো বলেই আউট হয়ে ফিরেছি। প্রথম দেখাতেই তোমার চোখ দু’টো দারুণ লেগেছে। আশা করছি ম্যাচটি আমরা জিতে যাবো। চলো না, ম্যাচ শেষে কোথাও আমরা একটু ড্রিংস করি। আমার কথা লজ্জা পেও না বেবি।’ গেইলের এই কথায় অপ্রস্তুত নারী সাংবাদিক লজ্জায় লাল হয়ে যান। হালকা মাথা নিচু করে ফেলেন। তবে গেইল যে কথাগুলো কৌতুক করে বলেন সেটা বুঝা যায় তার ভঙ্গিতে। নারী সাংবাদিককে এমন কথা বলে তিনি জোরে জোরে হাসতে হাসতে সতীর্থদের পাশে গিয়ে বসেন। জোরে জোরে হাসছিলেন তার সতীর্থরাওঅ টিভি ধারাভাষ্যকাররাও তখন হাসছিলেন। তবে এই ঘটনা শেষ পর্যন্ত আর মজা থাকেনি। যে কারণে বাধ্য হয়ে ক্ষমা চেয়েছেন গেইল। মেলবোর্ন বিমানবন্দরে সাংবাদিকদের তিনি বলেন, ‘এটা ছিল মজা করে বলা একটি কথা কথা। মাজা করা ছাড়া আমার অন্য কোনো উদ্দেশ্য ছিল না। তারপরও আমি এমন কথা লার জন্য দুঃখিত।’ কিন্তু দুঃখপ্রকাশ করেও পার পেলেন না ক্রিস গেইল। দুষ্টুমি করে শেষ পর্যন্ত জরিমানা গুনতে হলো তাকে।