রাখাইনে সেনাবাহিনীর ওপর রোহিঙ্গা বিদ্রোহীদের হামলার খবর

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ৭ জানুয়ারি ২০১৮, রোববার
মিয়ানমারে সেনা সদস্যদের বহনকারী একটি গাড়িতে হামলা চালিয়েছে রোহিঙ্গা বিদ্রোহীরা। শুক্রবার দেশটির রাখাইন রাজ্যে এই হামলার ঘটনা ঘটে। এতে কমপক্ষে ৫ সেনা সদস্য আহত হয়েছেন। হামলার দায় শিকার করেছে আরাকান রোহিঙ্গা স্যালভেশন আর্মি (আরসা)। মিয়ানমারের রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থার উদ্ধৃতি দিয়ে এ খবর দিয়েছে আল জাজিরা। মিয়ানমার সরকার জানিয়েছে, ২০ জন বিদ্রোহী পাহাড় থেকে সেনা সদস্যদের বহনকারী গাড়িতে হামলা চালায়।
হাতে তৈরি বোমা ও অস্ত্রের সাহায্যে এই হামলা চালায় তারা। সেনাবাহিনী জানিয়েছে, বাঙালি সন্ত্রাসীদের দল ‘আরসা’ এই হামলা চালিয়েছে। আরসা’র একজন মুখপাত্র সেনাসদস্যদের ওপর হামলার বিষয়টি নিশ্চিত করেছে। বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে বিদ্রোহী
রোহিঙ্গাদের সংগঠনটি জানিয়েছে, ‘হ্যাঁ, সেনাবাহিনীর ওপর সর্বশেষ হামলার জন্য আরসা দায়ী।’ ইয়াঙ্গুন ভিত্তিক একটি ম্যাগাজিনের খবরে বলা হয়েছে, হামলায় আহত ৬ সেনা সদস্যকে হাসপাতালে নেয়া হয়েছে। এদের মধ্যে একজনের অবস্থা গুরুতর। উল্লেখ্য, গত বছরের আগস্ট মাস থেকে রাখাইনে সহিংসতা চলছে। সেনাবাহিনীর অভিযানের কারণে ৬ লাখ ২০ হাজারেরও বেশি রোহিঙ্গা বাংলাদেশে পালিয়ে গেছে। জাতিসংঘ এই অভিযানকে জাতি নির্মূল আখ্যা দিয়েছে। তবে মিয়ানমার জাতিসংঘের এই মন্তব্য প্রত্যাখ্যান করেছে। বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়া রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নিতে বাংলাদেশ ও মিয়ানমার একটি চুক্তি স্বাক্ষর করেছে। কিন্তু বাস্তবে রোহিঙ্গাদের নিজ ভূমিতে ফিরে যাওয়ার বিষয়টি অনেকটাই অনিশ্চিত।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন