দিয়াজ হত্যা

সাবেক প্রক্টর কারাগারে, প্রতিবাদে অবরুদ্ধ চবি

শিক্ষাঙ্গন

চবি প্রতিনিধি | ১৮ ডিসেম্বর ২০১৭, সোমবার | সর্বশেষ আপডেট: ৯:৪০
দিয়াজ ইরফান চৌধুরীর হত্যা মামলায় গ্রেপ্তারকৃত চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ও সাবেক সহকারি প্রক্টর আনোয়ার হোসেন চৌধুরীকে কারাগারে পাঠানোর প্রতিবাদে ক্যাম্পাস অবরোধ করেছেন ছাত্রলীগের একাংশের নেতাকর্মীরা। অবরোধের অংশ হিসেবে চবির প্রধান ফটকে তালা ও সড়কে টায়ার জ্বালিয়ে বিক্ষোভ করছেন তারা। এতে কার্যত অবরুদ্ধ হয়ে পড়েছে চবি। এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত জিরো পয়েন্টে এখনো অবস্থান কর্মসূচি পালন করছিল ছাত্রলীগ কর্মীরা।
প্রতক্ষ্যদর্শীদের মতে, সোমবার দুপুরের দিকে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথমে জিরো পয়েন্টে জড়ো হয়ে প্রধান ফটকে তালা দেয়। এসময় তারা সেখানে অবস্থান করা রিকশা, সিএনজি ট্যাক্সিসহ সকল যানবাহন ধাওয়া দিয়ে সরিয়ে দেয়। এতে করে সব ধরনের যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।
এর আগে চট্টগ্রাম মুখ্য মহানগর হাকিম মশিউর রহমানের আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিন আবেদন করে চবির প্রভাবশালী এ শিক্ষক।
আদালত জামিন নামঞ্জুর করে তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। এ খবর ক্যাম্পাসে ছড়িয়ে পড়লে ক্ষোভে ফেটে পড়ে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। ছাত্রলীগের এ অংশটি সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিনের অনুসারী হিসেবে পরিচিত।
এদিকে অবরোধ চলাকালে বিশ্ববিদ্যালয় স্টেশনে দাঁড়িয়ে থাকা শহরমুখী দেড়টার ট্রেনের হোস পাইফ কেটে দিয়ে চাবি নিয়ে যান বিক্ষুদ্ধ ছাত্রলীগ কর্মীরা। এসময় চবি শিক্ষক আনোয়ার হোসেন চৌধুরীর মুক্তির দাবিতে নানা প্রতিবাদে স্লোগান দিতে থাকেন তারা।
অন্যদিকে অনাকাক্ষিত পরিস্থিতি এড়াতে বিপুল পরিমাণ পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। প্রক্টরিয়াল বডির সদস্যরা ঘটনাস্থলে অবস্থান করে পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করছেন।
মামলার আসামি ও চবি বিলুপ্ত কমিটির সিনিয়র সভাপতি মনসুর আলম বলেন, উদ্দেশ্য প্রণোদিতভাবে সাবেক ছাত্রলীগ নেতা ও শিক্ষক আনোয়ার চৌধুরীকে মিথ্যা অপবাদ দিয়ে কারাগারে পাঠানোর প্রতিবাদ জানাচ্ছি আমরা। তাকে মুক্তি না দিলে আমরা কঠোর আবস্থান কর্মসূচি গ্রহন করব।
[এমকে]

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

হ্যান্ডকাফসহ পালালো আসামি

‘ডিএনসিসি নির্বাচন স্থগিত সরকারেরই নীল নকশার অংশ’

ভোটের ভবিষ্যৎ নিয়ে হাসিনা-প্রণব আলোচনা

২৪ ঘণ্টার মধ্যে হামলাকারীদের গ্রেপ্তার না করলে আন্দোলন

সাক্ষ্য দেবেন না স্টিভ ব্যানন

‘সবকিছুতে সরকারের যোগসাজশ খোঁজেন কেন?’

রাখাইনে বৌদ্ধদের দাঙ্গা, গুলিতে নিহত ৭

৬ মাসের মধ্যে ডাকসু নির্বাচনের আদেশ হাইকোর্টের

ভয়াবহ বিপদজনক চুক্তি

যুক্তি তর্ক শুনানি চলছে, আদালতে খালেদা

ঢাকা উত্তরের মেয়র উপনির্বাচন স্থগিত

উত্তরা মেডিকেলের ৫৭ শিক্ষার্থীর শিক্ষা কার্যক্রমে বাধা নেই

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন চুক্তির বিষয়ে জাতিসংঘ মহাসচিবের গভীর উদ্বেগ

মিয়ানমার অনুমতি দেয় নি, কাল বাংলাদেশে আসছেন জাতিসংঘের স্পেশাল র‌্যাপোর্টিউর

‘রোহিঙ্গা প্রত্যাবর্তন অবৈধ’

‘তেমন ভালো কাজ তো এখন হচ্ছে না’