নি র্বা চ নী হা ল চা ল, কক্সবাজার- ২

বড় দু’দলেই একাধিক প্রার্থী

শেষের পাতা

রাসেল চৌধুরী, কক্সবাজার থেকে | ১৭ ডিসেম্বর ২০১৭, রোববার | সর্বশেষ আপডেট: ১১:০০
একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে কক্সবাজারের সবচেয়ে দামি আসনে পরিণত হয়েছে কক্সবাজার-২। মহেশখালী ও কুতুবদিয়া উপজেলা নিয়ে গঠিত এ আসনে চলছে হাজার কোটি টাকার উন্নয়ন কার্যক্রম। গড়ে উঠছে কয়লাভিত্তিক একাধিক বিদ্যুৎ
প্রকল্প। স্থাপনের পথে রয়েছে এলএমজি টার্মিনাল। গড়ে উঠবে সোনাদিয়ায় এক্সক্লোসিভ ট্যুরিস্ট জোন। হতে পারে গভীর সমুদ্রবন্দরও।
এসব কারণে দু’দ্বীপ উপজেলা নিয়ে গঠিত কক্সবাজার-২ আসনটি গুরুত্বপূর্ণ আসন। উন্নয়ন অগ্রযাত্রাকে সামনে রেখে মহেশখালী-কুতুবদিয়া আসনে মাঠে চষে বেড়াচ্ছে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের সম্ভাব্য প্রার্থীরা। জনগণের মন জয়ে তারা ব্যস্ত সময় পার করছে। পিছিয়ে নেই দলীয় টিকিটের লবিংও। গত কয়েক মাস ধরে দলীয় টিকিট কে পাচ্ছে তা নিয়ে এলাকাবাসীর মধ্যে চলছে ‘চুলচেরা’ বিশ্লেষণ।
২০০৮ সালের নির্বাচনে এই আসন থেকে বিপুল ভোটে নির্বাচিত হয়ে সংসদে প্রতিনিধিত্ব করেন জামায়াতের কেন্দ্রীয় নেতা হামিদুর রহমান আযাদ। এলাকায় তার প্রচুর জনপ্রিয়তা রয়েছে। দল নিবন্ধন হারানোর কারণে দলীয় টিকিটে নির্বাচন করার সুযোগ না পেলেও ‘স্বতন্ত্র’ প্রার্থী হিসেবে তিনি আগামী নির্বাচনে লড়তে পারেন বলে দাবি করছে তাঁর সমর্থকরা। এছাড়া বিএনপির সাথে জোটবদ্ধ নির্বাচন হলে হামিদুর রহমান আযাদই জোটের প্রার্থী হওয়ার সম্ভাবনা বেশি।
এ ছাড়া বিএনপি থেকে সম্ভাব্য প্রার্থী হিসেবে দৌড়ঝাঁপ শুরু করেছেন ধানের শীষ টিকিটে দুই বার নির্বাচিত সাবেক এমপি ও বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির নির্বাহী সদস্য আলমগীর মোহাম্মদ মাহফুজ উল্লাহ ফরিদ। জেলা রাজনীতির গ্রুপিংয়ের কারণে তিনি অনেকটা কোণঠাসা থাকলেও মহেশখালীর রাজনীতিতে তার শক্ত অবস্থান রয়েছে। তিনি সাধারণ মানুষের কাছে বেশ জনপ্রিয়। এ ছাড়াও বিএনপি থেকে মনোনয়ন চাইতে পারেন কুতুবদিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান ও জেলা বিএনপির জ্যেষ্ঠ সহসভাপতি এটিএম নুরুল বশর চৌধুরীও। তিনিও ওই আসনে ধানের শীষ প্রতীকে একবার সংসদে প্রতিনিধিত্ব করার সুযোগ পেয়েছিলেন।
এ আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী সংখ্যা হাফ ডজন। এখন পর্যন্ত প্রার্থী তালিকায় যাদের নাম শোনা যাচ্ছে তারা হলেন- বর্তমান আওয়ামী লীগের দলীয় সংসদ সদস্য আশেক উল্লাহ মোহাম্মদ রফিক, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট সিরাজুল মোস্তফা, জেলা আওয়ামী লীগ নেতা ড. আনছারুল করিম, উপজেলা চেয়ারম্যান মোহাম্মদ হোছাইন ইব্রাহিম, সাবেক কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ নেতা ওসমান গণি ও সাবেক কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সহসম্পাদক ইসমত আরা ইসু। এর মধ্যে অ্যাডভোকেট সিরাজুল মোস্তফা ও ড. আনছারুল করিম অতীতে দলীয় টিকেট পেয়েও নির্বাচনে জয়ী হতে পারেন নি। তবে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নির্বাচিত হওয়ার পর থেকে সিরাজুল মোস্তফা দলীয় নেতাকর্মী ও সাধারণ মানুষের জন্য কাজ করে যাচ্ছেন। সব দিক বিবেচনায় অ্যাডভোকেট সিরাজুল মোস্তফার অবস্থা এখন অনেকটা সুসংহত। আশেক উল্লাহ রফিক ২০১৪ সালের ৫ই জানুয়ারির নির্বাচনে এমপি নির্বাচিত হন। তরুণ এমপি হিসেবে ইতিমধ্যে মহেশখালী-কুতুবদিয়ার মানুষের অন্তরে ঠাঁই করে নিয়েছেন আশেক। জনপ্রিয়তা এবং মনোনয়ন দৌড়ে তিনি অনেকটা সুবিধাজনক অবস্থানে রয়েছেন। শহীদ পরিবারের সন্তান উপজেলা চেয়ারম্যান হোছাইন মোহাম্মদ ইব্রাহিম ও সাবেক ছাত্রনেতা ওসমানগণি সম্পর্কে জামাই-শ্বশুর। বরাবরই মহেশখালীর রাজনীতিতে এ পরিবারের একটি প্রভাব রয়েছে। এ পরিবার থেকে হোছাইন ইব্রাহিম অথবা ওসমান গনি মনোনয়ন পেতে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। একই ভাবেই ইসমত আরা ইসুও দলীয় বিভিন্ন কর্মসূচিতে অংশ নিয়ে দলীয় মনোনয়নের জন্য দেন দরবার করছেন।
জাতীয় পার্টি থেকে জনসংযোগ শুরু করেছেন কেন্দ্রীয় কমিটির নির্বাহী সদস্য মোহাম্মদ মুহিবুল্লাহ। বিভিন্ন উৎসব ও দুর্যোগে এলাকায় তাঁর সরব উপস্থিতি দেখা যাচ্ছে। তবে পিছিয়ে নেই কেন্দ্রীয় কমিটির আরেক প্রভাবশালী নেতা ও সাবেক জেলা কমিটির সভাপতি আলহাজ কবির আহমদও। দুঃসময়ে জাতীয় পার্টির হাল ধরেছিলেন এই নেতা। পার্টির চেয়ারম্যানের ঘনিষ্ঠজন হিসাবে পরিচিত এ নেতাই দলীয় মনোনয়ন পাচ্ছেন বলে গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে।
মহেশখালী পৌরসভার বাসিন্দা সমাজকর্মী আমিনুল হক আমিন জানান, মহেশখালী এখন আগের মতো নেই। দেশের সবচেয়ে বেশি উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়ন হচ্ছে এখানে। এ কারণে অন্যান্য এলাকার চেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠেছে। এই উন্নয়ন প্রকল্পগুলো সঠিক ভাবে বাস্তবায়নে এমপির ভূমিকা বেশি থাকবে। তাই সব দিক বিবেচনা করে জনগণ এবার ভোট দিবে।
মহেশখালীর উপজেলার ধলঘাটা এলাকার কামাল উদ্দিন জানান, প্রতিটি রাজনৈতিক দল বিশেষ করে আওয়ামী লীগ ও বিএনপির উচিত মাঠপর্যায়ে জনপ্রিয়তা যাচাই করে দলের টিকিট দেয়া।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

ব্যাংক কোম্পানি আইন পাস, জাপার ওয়াকআউট

২০ হাজার টাকায় ১ বছর ক্লাস, অতঃপর...

শাম্মী আখতারের মৃত্যুতে শোবিজ অঙ্গনে শোকের ছায়া

ট্রেনে কাটা পড়ে রেলওয়ে কর্মকর্তার মৃত্যু

শাম্মী আখতারের জানাজা কাল বাদ জোহর

আইভী-শামীম সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ, আহত অর্ধশত

শাম্মী আখতার আর নেই

স্বামী হত্যায় স্ত্রীসহ ৩ জনের ফাঁসির রায়

‘নির্বাচন সুষ্ঠু হলে বিপুল ভোটে জিতবে তাবিথ’

‘মিথ্যা মামলায় খালেদার কোনো ক্ষতি হবে না, জনপ্রিয়তা বাড়বে’

ডিএনসিসি উপনির্বাচন স্থগিত চেয়ে রিট, আদেশ বুধবার

জেলপলাতক ৩ বাংলাদেশিকে এখনো ধরা যায়নি, সীমান্তে নজরদারি

অনশন ভাঙলেন ইবতেদায়ি মাদ্রাসা শিক্ষকরা

পুতিনই হবেন রাশিয়ার পরবর্তী প্রেসিডেন্ট

শেকলে বাঁধা সন্তান, উদ্ধার ১৩, গ্রেপ্তার পিতামাতা

মার্কিন কূটনীতিকদের তলব করেছে আফ্রিকার ৫ দেশ