ঝিকরগাছায় ছাত্রলীগ কর্মী খুন, সড়ক অবরোধ

অনলাইন

স্টাফ রিপোর্টার, যশোর থেকে | ১৬ ডিসেম্বর ২০১৭, শনিবার, ৬:৪৮
যশোরের ঝিকরগাছায় মিলন হোসেন (২৬) নামে ছাত্রলীগের এক কর্মী ছুরিকাঘাতে নিহত হয়েছেন। এই ঘটনার প্রতিবাদে যশোর-বেনাপোল মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেছে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। আজ শনিবার বেলা আড়াইটার দিকে ঝিকরগাছা উপজেলা শহরের পূজামণ্ডপের পাশে দুর্বৃত্তরা তাকে ছুরিকাঘাত করে। পরে যশোর জেনারেল হাসপাতালে আনার পথে বেলা ৩টার দিকে তার মৃত্যু হয়। খবর শুনে যশোর-২ আসনের (ঝিকরগাছা-চৌগাছা) সাংসদ মনিরুল ইসলাম হাসপাতালে আসেন। নিহত মিলন ঝিকরগাছা শহরের কাটাখাল এলাকার আলম হোসেনের ছেলে।
নিহতের খালাতো ভাই মিজানুর রহমান জানান, ‘মিলন হোসেন শহিদ মশিয়ূর রহমান ডিগ্রি কলেজ থেকে এবছর মাস্টার্স শেষ করেছেন।
তিনি ঝিকরগাছা উপজেলা ছাত্রলীগ কর্মী। আজ বিজয় দিবসের কর্মসূচিতে যোগ দিয়েছিলেন তিনি। বেলা আড়াইটার দিকে কর্মসূচি শেষ করে বাড়ি ফেরার পথে পূজামণ্ডপের কাছে দুর্বৃত্তরা তাকে ছুরিকাঘাত করে। পরিবারের লোকজন খবর পেয়ে তাকে যশোর জেনারেল হাসপাতালে আনেন। হাসপাতালে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন।
জরুরি বিভাগের ডাক্তার কল্লেকুমার সাহা  বলেন, ‘হাসপাতালে আনার আগেই মিলন হোসেন মারা গেছেন। ধারণা করা হচ্ছে, পেটে ছুরি মারার কারণে প্রচুর রক্তক্ষরণে তার মৃত্যু হয়েছে।’
ঝিকরগাছা থানার ওসি আবু সালেহ মোহাম্মাদ মাসুদ করিম বলেন, এলাকায় পুলিশের অভিযান শুরু হয়েছে। তবে হত্যাকাণ্ডের সাথে কারা জড়িত তা এই মূহুর্তে বলা যাচ্ছে না। তবে নিহতের পরিবার এই হত্যাকাণ্ডের জন্য দলের অপর পক্ষকে দায়ী করছে। পুলিশ খুনিকে আটকের চেষ্টা করছে। এদিকে, মিলনকে ছুরি মেরে হত্যার প্রতিবাদে বিকেল সাড়ে তিনটার দিকে রাস্তায় নামে স্থানীয় আওয়ামী লীগের একাংশের নেতাকর্মীরা। তারা যশোর-বেনাপোল মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখাতে থাকে। এ সময় ব্যস্ত সড়কটিতে বহু যানবাহন আটকা পড়ে। বিকেল পাঁচটার দিকে ওসি মাসুদ করিম গিয়ে সন্ত্রাসীদের খুঁজে বের করার আশ্বাস দিলে অবরোধ তুলে নেন বিক্ষোভকারীরা।

[এফএম]

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

শাম্মী আখতার আর নেই

স্বামী হত্যায় স্ত্রীসহ ৩ জনের ফাঁসির রায়

‘নির্বাচন সুষ্ঠু হলে বিপুল ভোটে জিতবে তাবিথ’

‘মিথ্যা মামলায় খালেদার কোনো ক্ষতি হবে না, জনপ্রিয়তা বাড়বে’

ডিএনসিসি উপনির্বাচন স্থগিত চেয়ে রিট, আদেশ বুধবার

জেলপলাতক ৩ বাংলাদেশিকে এখনো ধরা যায়নি, সীমান্তে নজরদারি

অনশন ভাঙলেন ইবতেদায়ি মাদ্রাসা শিক্ষকরা

পুতিনই হবেন রাশিয়ার পরবর্তী প্রেসিডেন্ট

শেকলে বাঁধা সন্তান, উদ্ধার ১৩, গ্রেপ্তার পিতামাতা

আট ব্যাংকের নিয়োগ পরীক্ষা বাতিল ঘোষণা

ট্রাম্পের মন্তব্যের প্রতিবাদে যুক্তরাষ্ট্রের কূটনীতিকদের তলব করেছে আফ্রিকার ৫ দেশ

আপিলের অনুমতি পেয়েছে রাষ্ট্রপক্ষ

যৌন হেনস্থা নিয়ে ভয়ে মুখ খুলছেন না বলিউড অভিনেত্রীরা!

রোহিঙ্গাদের সহায়তায় এক কোটি ওন দান করলেন অভিনেত্রী লি হানি

খালেদার শেষ, সালিমুল-শরফুদ্দিনের পক্ষে যুক্তিতর্ক মুলতবি

দক্ষিণ আফ্রিকায় মুক্তিপণ দেয়ার পরও খুন এক বাংলাদেশী