বাবার কবরের পাশেই শায়িত মহিউদ্দিন চৌধুরী

অনলাইন

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি | ১৫ ডিসেম্বর ২০১৭, শুক্রবার, ৮:৫৩ | সর্বশেষ আপডেট: ৬:৫৮
চশমা হিলের পারিবারিক কবরস্থানে বাবার কবরের পাশেই শায়িত হলেন চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক মেয়র এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরী। আজ শুক্রবার সন্ধ্যা সোয়া ৬টায় তাকে কবরস্থ করা হয়। এর আগে বাদ আসর লালদিঘি ময়দানে মরহুমের জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। জানাজায় লাখো মানুষের ঢল নামে। দুপুরে দারুল ফজল মার্কেটস্থ নগর আওয়ামী লীগের দলীয় কার্যালয়ে তাকে শেষ শ্রদ্ধা নিবেদন করেন দলীয় নেতাকর্মী ও সর্বস্তরের মানুষ। এ সময় চোখের জলে কফিনে ফুলের তোড়া দিয়ে প্রিয় নেতা মহিউদ্দিন চৌধুরীকে শেষ বিদায় জানান নেতাকর্মী ও শুভাকাক্সক্ষীরা।
জানাজায় অংশ নিয়েছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের চৌধুরী, প্রবাসীকল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থানমন্ত্রী নুরুল ইসলাম বিএসসি, বর্তমান সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন, ভূমি প্রতিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদ, প্রচার ও প্রকাশনা স¤পাদক ড. হাছান মাহমুদ এমপি, বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল্লাহ আল নোমান, বিএনপির স্থায়ী কমিটি সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা বিএনপির নেতা ও সাবেক এমপি জাফরুল ইসলাম চৌধুরী, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি প্রফেসর ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী প্রমুখ। জানাজা শেষে লালদিঘী মাঠে কান্নায় ঢলে পড়েন শত শত নেতাকর্মী ও স্বজনরা। ফলে অনেক কষ্টে মরহুমের কফিন পারিবারিক কবরস্থানে নিতে হয় বলে জানান মহিউদ্দিন চৌধুরীর বড় ছেলে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক স¤পাদক মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল। গতকাল বৃহ¯পতিবার রাত সাড়ে তিনটার দিকে চট্টগ্রাম নগরীর মেহেদিবাগে বেসরকারি ম্যাক্স হাসপাতালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন মহিউদ্দিন চৌধুরী। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৭৪ বছর। তিনি দীর্ঘদিন ধরে কিডনিজনিত রোগে ভুগছিলেন। গত ১০শে নভেম্বর রাতে গুরুতর অসুস্থ হওয়ার পর মহিউদ্দিন চৌধুরীকে চট্টগ্রামের মেহেদিবাগ ম্যাক্স হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। আইসিইউতে নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে একরাত রাখার পর ১১ই নভেম্বর তাকে নেয়া হয় ঢাকার স্কয়ার হাসপাতালে।
সেখান থেকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ১৬ই নভেম্বর তাকে নেয়া হয় সিঙ্গাপুরের অ্যাপোলো গ্ল্যানিগ্লেস হাসপাতালে। সেখানে এনজিওগ্রাম ও হার্টের দুটি ব্লকে রিং বসানো হয়। ২৬শে নভেম্বর কিছুটা সুস্থ হয়ে ঢাকায় ফেরেন। ১২ই ডিসেম্বর ঢাকা থেকে চট্টগ্রামে যান। চট্টগ্রামের আসার দুই দিন পর পৃথিবী ছেড়ে চলে যান বর্ষীয়ান এই রাজনীতিবিদ।

[এফএম]

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

ব্যাংক কোম্পানি আইন পাস, জাপার ওয়াকআউট

২০ হাজার টাকায় ১ বছর ক্লাস, অতঃপর...

শাম্মী আখতারের মৃত্যুতে শোবিজ অঙ্গনে শোকের ছায়া

ট্রেনে কাটা পড়ে রেলওয়ে কর্মকর্তার মৃত্যু

শাম্মী আখতারের জানাজা কাল বাদ জোহর

আইভী-শামীম সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ, আহত অর্ধশত

শাম্মী আখতার আর নেই

স্বামী হত্যায় স্ত্রীসহ ৩ জনের ফাঁসির রায়

‘নির্বাচন সুষ্ঠু হলে বিপুল ভোটে জিতবে তাবিথ’

‘মিথ্যা মামলায় খালেদার কোনো ক্ষতি হবে না, জনপ্রিয়তা বাড়বে’

ডিএনসিসি উপনির্বাচন স্থগিত চেয়ে রিট, আদেশ বুধবার

জেলপলাতক ৩ বাংলাদেশিকে এখনো ধরা যায়নি, সীমান্তে নজরদারি

অনশন ভাঙলেন ইবতেদায়ি মাদ্রাসা শিক্ষকরা

পুতিনই হবেন রাশিয়ার পরবর্তী প্রেসিডেন্ট

শেকলে বাঁধা সন্তান, উদ্ধার ১৩, গ্রেপ্তার পিতামাতা

মার্কিন কূটনীতিকদের তলব করেছে আফ্রিকার ৫ দেশ