শঙ্কার বাতাবরণে গুজরাটে শুরু ভোট

ভারত

কলকাতা প্রতিনিধি | ৯ ডিসেম্বর ২০১৭, শনিবার | সর্বশেষ আপডেট: ২:৫০
ভোটের ময়দানে সাম্প্রতিক সময়ে এত শঙ্কা নিয়ে বিজেপি কখনো ভোটের লড়াইয়ে সামিল হয়নি। শেষ মুহুর্তে কংগ্রেসের দিকে হাওয়া ঘুরছে অনুমান করে বিজেপি নেতাদের কপালে চিন্তার ভাজ ক্রমশ চওড়া হয়েছে। আর তাই নির্বাচনের কয়েক ঘন্টা আগে নির্বাচনী ইস্তেহার প্রকাশ করে কোনরকমে মান রক্ষা করা হয়েছে। আজ শনিবার থেকে শুরু হয়েছে গুজরাটে ভোট। প্রথম দফায় রাজ্যটির ১৮২টি বিধানসভা আসনের মধ্যে সৌরাষ্ট্র ও দক্ষিণ গুজরাটের মোট ৮৯টি কেন্দ্রে ভোট গ্রহণ শুরু হয়েছে। এই দফায় লড়াইয়ে রয়েছেন ৯৭৭জন।  ২.১২ কোটি ভোটার তাদের গণতান্ত্রিক অধিকার প্রযোগ করতে চলেছেন।
প্রথম দফাতেই নির্বাচনে ভাগ্য পরীক্ষার মুখোমুখি মুখ্যমন্ত্রী বিজয় রূপানি। তিনি রাজকোট কেন্দ্র থেকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এবারের নির্বাচনেও তিনি বিজেপির মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থী। কংগ্রেসের হেভিওয়েট নেতা শক্তিসিং গোহিল ও পরেশ ধানানিও প্রথম দফার ভোটে রয়েছেন। এবারের এই নির্বাচন মোদীর কাছে সম্মানের লড়াই। গুজরাট মডেলের স্বপ্ন ফেরি করেই লোকসভা নির্বাচনে বিপুল সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেয়ে ক্ষমতায় এসেছিলেন মোদী। তবে নোট বাতিল ও পণ্য পরিষেবা কর চালুর পর এই প্রথম গুজরাটে জনতার দরবারে মোদী। গুজরাট নির্বাচনের ফলাফলই বলে দেবে মোদী নামের ম্যাজিক অটুট থাকছে কিনা। তবে এই নির্বাচনের আগে থেকেই শঙ্কায় রয়েছে বিজেপি। পণ্য পরিষেবা করের অঁচ পেয়েছে বিজেপি। আর তাই তড়িঘড়ি কর সংশোধন করে ভোটারদের শান্ত করতে চাইলেও তা কতটা কাজ আসবে তা বোঝা যাবে ভোটের মেশিনে। এছাড়া পতিদা দের জন্য  সংরক্ষনের দাবিতে আন্দোলনও বিজেপিকে শঙ্কায় রেখেছে। এই আন্দোলনের নেতাদের সমর্থন দিয়ে কংগ্রেসে অনেকটা এগিয়ে গিয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে।  এদিকে বিভিন্ন জনমত সমীক্ষায় বিজেপিকে এগিয়ে থাকলেও  কংগ্রেস যে ভালো ফল করতে চলেছে তা স্পষ্ট। ভোট যত কাছে এসেছে বিভিন্ন জনমত সমীক্ষায় বিজেপি ও কংগ্রেসের প্রাপ্ত আসনের ব্যবধান কমেছে। আগামী ১৪ ডিসেম্বর দ্বিতীয় দফায় বাকী ৯৩টি আসনে ভোট নেওয়া হবে। ফল ঘোষণা হবে ১৮ই ডিসেম্বর।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

হ্যান্ডকাফসহ পালালো আসামি

‘ডিএনসিসি নির্বাচন স্থগিত সরকারেরই নীল নকশার অংশ’

২৪ ঘণ্টার মধ্যে হামলাকারীদের গ্রেপ্তার না করলে আন্দোলন

সাক্ষ্য দেবেন না স্টিভ ব্যানন

‘সবকিছুতে সরকারের যোগসাজশ খোঁজেন কেন?’

রাখাইনে বৌদ্ধদের দাঙ্গা, গুলিতে নিহত ৭

৬ মাসের মধ্যে ডাকসু নির্বাচনের আদেশ হাইকোর্টের

ভয়াবহ বিপদজনক চুক্তি

যুক্তি তর্ক শুনানি চলছে, আদালতে খালেদা

ঢাকা উত্তরের মেয়র উপনির্বাচন স্থগিত

উত্তরা মেডিকেলের ৫৭ শিক্ষার্থীর শিক্ষা কার্যক্রমে বাধা নেই

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন চুক্তির বিষয়ে জাতিসংঘ মহাসচিবের গভীর উদ্বেগ

মিয়ানমার অনুমতি দেয় নি, কাল বাংলাদেশে আসছেন জাতিসংঘের স্পেশাল র‌্যাপোর্টিউর

‘রোহিঙ্গা প্রত্যাবর্তন অবৈধ’

‘তেমন ভালো কাজ তো এখন হচ্ছে না’

আইভী-শামীম মুখোমুখি, সংঘর্ষ