স্ত্রীকে হত্যার পর বিষপানের নাটক, স্বামী গ্রেপ্তার

অনলাইন

ঝালকাঠি প্রতিনিধি | ৫ ডিসেম্বর ২০১৭, মঙ্গলবার, ১০:৪৯ | সর্বশেষ আপডেট: ৩:২৪
ঝালকাঠিতে এক গৃহবধূকে শ্বাসরোধে হত্যার পর বিষপানের নাটক সাজানোর অভিযোগ উঠেছে। নিহত সুমাইয়া ফরাজী শহরের কাঠপট্টি এলাকার আসলাম ফরাজীর মেয়ে। সে ঝালকাঠি সরকারি মহিলা কলেজের স্নাতক দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী।
রোববার বিকেলে ঝালকাঠি শহরের কাঠপট্টি এলাকার একটি মুড়ির মিলের এক কক্ষে এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার করে সোমবার ঝালকাঠি সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে। এ ঘটনায় নিহতের স্বামী হিমু আকনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।
পুলিশ জানিয়েছে, প্রায় তিন বছর আগে দুই পরিবারের অমতে একই এলাকার মিল্টন আকনের ছেলে হিমু আকন এবং আসলাম ফরাজীর মেয়ে সুমাইয়া ফরাজী বিয়ে করেন।
কিন্তু বিয়ের পর থেকে ছেলে পরিবার এ সম্পর্ক মেনে নেয়নি। এ নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে কলহ লেগে থাকত। এদিকে নিহত সুমাইয়াকে শ্বাসরোধে হত্যা করা হয়েছে অভিযোগ করে নিহতের বাবা আসলাম ফরাজী মেয়ের স্বামী হিমুসহ তার পরিবারের ৪ জনকে আসামি করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন।
মামলায় অভিযোগ করা হয়েছে, রোববার হিমু নিজেদের মুড়ির মিলে সুমাইয়াকে ডেকে নিয়ে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে। পরে আত্মহত্যার নাটক সাজায়। এ সময় হিমু নিজে বিষপানের নাটক করে তার আত্মীয়দের মোবাইলে ফোন করে বিষয়টি জানায়। আত্মীয়রা দম্পতিকে জেলা সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে  চিকিৎসক সুমাইয়াকে মৃত ঘোষণা করেন। হিমুকে পাঠানো হয় বরিশাল হাসপাতালে। পুলিশ রাতে বরিশাল হাসপাতাল থেকে হিমুকে সুস্থ অবস্থায়  গ্রেপ্তার করে থানায় নিয়ে আসে।
ঝালকাঠি সদর সদর হাসপাতালের মেডিকেল অফিসার শিউলি পারভিন জানিয়েছে, সুমাইয়াকে মৃত অবস্থায় হাসপাতালে আনা হয়। তবে তার মৃত্যুর কারণ বোঝা যায়নি। অপর দিকে হিমুর মুখে বিষাক্ত পদার্থ পাওয়া গেছে।
ঝালকাঠি সদর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. সরোয়ার হোসেন জানায়, মামলায় নিহতের স্বামীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। অন্যদেরও গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে।
[এমকে]

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

kazi

২০১৭-১২-০৪ ২৩:২৭:০৮

পরিবারের অমতে প্রেমের বিয়ে বাংলাদেশে ব্যর্থ বিয়ে। বিয়ের পরই বাস্তবতা যখন সামনে আসে প্রেমের ঘোর কাটে। কলহ শেষ পর্যন্ত খুন ও হত্যায় পরিণতি লাভ করে। প্রায়ই পত্রিকার খবর হয়। তারপর ও যুবতীরা শিক্ষা নেয় না।

Nixon pandit

২০১৭-১২-০৪ ২২:০৭:৩৬

আমাদের সমাজ থেকে যৌতুক প্রথা যতদিন দুর করা না যাবে , ততদিন এই ধরনের নৃশংসতা চলতেই থাকবে । অনেক প্রান এভাবেই ঝরে যাবে ।

আপনার মতামত দিন