নিজেদের কার্যালয়ে এজাহার দায়েরের ক্ষমতা চায় দুদক

প্রথম পাতা

দীন ইসলাম | ২২ নভেম্বর ২০১৭, বুধবার | সর্বশেষ আপডেট: ১:০২
যেকোনো দুর্নীতি মামলার এজাহার নিজেদের অফিসেই দায়ের করতে চায় দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। এছাড়া বিশেষ জজ আদালতে সরাসরি মামলার চার্জশিট দাখিলের সুযোগ চান তারা। এসব বিধান যুক্ত করে দুর্নীতি দমন কমিশন বিধিমালা, ২০০৭-এর ৪০টি ধারায় সংশোধনী চেয়েছে দুদক। বিষয়টি নিয়ে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগে গত ২২শে অক্টোবর এক   আন্তঃমন্ত্রণালয় বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে দুদকের প্রস্তাবগুলোর উপর মতামত দিতে আইন ও বিচার বিভাগ এবং লেজিসলেটিভ ও সংসদ বিষয়ক বিভাগে পাঠানোর সিদ্ধান্ত হয়েছে। দুদক সূত্রে জানা গেছে, ফৌজদারি কার্যবিধি, দুদক আইন ও বিধি অনুসরণ করে দুর্নীতি দমন কমিশনের কর্মকর্তারা থানায় হাজির হয়ে দুর্নীতির মামলা করেন।
কিন্তু দুদক মনে করছে, তারা স্বশাসিত স্বাধীন সংস্থা। এ সংস্থার পক্ষ থেকে দুর্নীতির মামলা দায়েরের জন্য থানায় যাওয়ার প্রয়োজন  নেই। দুদকের প্রধান কার্যালয়  থেকে শুরু করে যেকোনো জেলা কার্যালয়ে এ মামলা করা যাবে। দুদকে এজাহার দায়েরের যৌক্তিকতা তুলে ধরে বিধিমালার সংশোধনী প্রস্তাবে বলা হয়েছে, ২০০৪ সালের আইন অনুযায়ী দুদক স্বাধীন। এ সংস্থার নিজস্ব অনুসন্ধান ও তদন্তকারী কর্মকর্তা আছে। মামলা পরিচালনার জন্য আছে নিজস্ব প্রসিকিউশন ইউনিট। দুদকের তফসিলভুক্ত যেকোনো অপরাধের তদন্ত কার্যক্রম শুরুর জন্য থানায় এজাহার দায়ের বা থানার প্রতি মুখাপেক্ষী থাকা কমিশনের স্বাধীন ও স্বশাসিত সত্তার পরিপন্থি। এছাড়া থানায় এজাহার দায়েরের অবাধ সুযোগ থাকায় অযথা হয়রানির আশংকাও থাকে। এতে বলা হয়, দুদক বনাম মহীউদ্দীন খান আলমগীর মামলায় দুদকে এজাহার দায়েরের কথা আপিল বিভাগের রায়ের পর্যবেক্ষণে বলা হয়েছে। অন্যদিকে, ২০০৭ সালের বিধিমালার ২(ছ) ধারায়ও দুদক কার্যালয়ে দুর্নীতি মামলার এজাহার দায়েরের সুযোগ ছিল। কিন্তু বিধিতে সংশোধনী না আনায় কাজটা এতদিন করা সম্ভব হয়নি। দুদক সূত্রে জানা গেছে, দুদকের বর্তমান বিধিমালায় কোনো অভিযোগ ফৌজদারি কার্যবিধি ১৫৪ ধারা বা এই বিধিমালার তফসিলের ফর্ম-১ পদ্ধতি অনুসারে কোনো থানা বা দুর্নীতি দমন কমিশনের কোনো কার্যালয়ে গ্রহণ করা বা লিপিবদ্ধ করার বিধান রয়েছে। এর মধ্যে থানা শব্দটি বাদ দেয়ার কথা বলা হয়েছে। দুদকের  প্রস্তাবিত সংশোধনীতে বলা হয়েছে, প্রাথমিক অনুসন্ধানকালে যদি অভিযোগের সত্যতা মেলে তবে জেলা কার্যালয়ে এজাহার দায়ের করা যাবে। এদিকে আন্তঃ মন্ত্রণালয় বৈঠকে বিভিন্ন মন্ত্রণালয় ও বিভাগের প্রতিনিধিরা বিধি সংশোধনের বিষয়ে আরো পরীক্ষা-নিরীক্ষার প্রয়োজনীয়তার কথা উল্লেখ করে বলেন, বিধি সংশোধন হলে জনগণের ভোগান্তি আরো বাড়বে কিনা সেগুলো বিবেচনা করার প্রয়োজন রয়েছে।  

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

ওআইসি’র ঘোষণা নেতানিয়াহু’র প্রত্যাখ্যান

প্রধানমন্ত্রী দেশে ফিরেছেন

ট্রাম্পের কড়া সমালোচনা

গাজীপুরে মসজিদের ভেতর নৈশ প্রহরীকে গলা কেটে হত্যা

‘প্রেম’ করে বিয়ে, চাকরি হারালেন শিক্ষক দম্পতি

চবি শিক্ষকের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির সত্যতা মিলেছে

প্রশ্ন ফাঁস হতো প্রেস থেকে

আবাসিক এলাকায় রাতে হর্ন বাজানোয় নিষেধাজ্ঞা

‘বিএনপি প্রার্থীর নির্বাচনে বাধা নেই’

কুয়ালালামপুরে গ্রেপ্তার ২ ইমিগ্রেশন কর্মকর্তা

জামিনে আপন জুয়েলার্সের তিন মালিক

নারী সহশিল্পীর সঙ্গে যৌন সম্পর্কে বাধ্য করা হয় আমাকে

বিবাহ বহির্ভূত যৌন সম্পর্ক নিষিদ্ধ করার আবেদন প্রত্যাখ্যাত ইন্দোনেশিয়ায়

প্রথম ১ মাসে ৬৭০০ রোহিঙ্গাকে হত্যা

জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদকে মিয়ানমার, বাংলাদেশ সফরের আহ্বান

৪ সাংবাদিকের ওপর হামলার ঘটনায় ভূমিমন্ত্রীপুত্র কারাগারে