ঢাকায় দেশিদের ব্যাটে আলো

খেলা

স্পোর্টস রিপোর্টার | ২২ নভেম্বর ২০১৭, বুধবার | সর্বশেষ আপডেট: ১২:৪৬
খুলনার জয়ের জন্য শেষ ৬ বলে প্রয়োজন ৯ রান। স্মিথের প্রথম বলেই ছয় হাঁকালেন আফিফুল হক। পরের বলে চার মেরেই দে ছুট। হারতে হারতে ২ উইকেটে জয়। অরিফুলের ব্যাট থেকে ১৯ বলে ৪৩ রান। এমনকি ১৬৭ রানের লক্ষ্যে নেমে ১৩ রানে ২ উইকেট হারানো দলকে জয়ের পথ দেখিয়েছে অধিনায়ক মাহমুদুল্লাহ রিয়াদের ৫৬ রান।
তার এমন ব্যাটিংয়ে রাজশাহীর হয়ে ভায়রা মুশফিকুর রহীমের ৫৫ রানের ইনিংসকেও ম্লান করেছে। সিলেট থেকে ফিরে ঢাকার প্রথম পর্বে প্রায় প্রতিটি ম্যাচে দেশি ক্রিকেটারদের এমন আলোকিত উদযাপন। অথচ সিলেট পর্বের ৮ ম্যাচে ম্লান ছিল দেশিরাই। একটি ফিফটিও আসেনি কারো ব্যাট থেকে। এমনকি সেরা পাঁচে ছিলেন না একজন দেশি ব্যাটসম্যানও। ঢাকায় ফিরে রাজশাহীর হয়ে প্রথম ফিফটি হাঁকান মুমিনুল হক সৌরভ, সেই শুরু। একে একে জ্বলে উঠতে থাকে দেশিদের ব্যাট। মুমিনুলের পর এনামুল হক বিজয়, ও তরুণ জাকির হোসেন, নাসির হোসেন, সাব্বির রহমান আর গতকাল মুশফিক ও মাহমুদুল্লাহ। সেখানে শুরুতে একটি ফিফটিও ছিল না সেখানে গতকাল ঢাকার প্রথম পর্বের শেষদিন পর্যন্ত পঞ্চম আসরের ২৬ ফিফটির ৭টি দেশিদের। সেরা পাঁচে জায়গা করে নিয়েছেন মাহমুদুল্লাহ ও কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের ইমরুল কায়েস। ঢাকায় ফিরে দেশিদের ম্লান করা ব্যাটিংয়ের পরও জাতীয় দলের প্রধান নির্বাচক ও সাবেক অধিনায়ক মিনহাজুল আবেদিন নান্নু শুনিয়েছিলেন আশার কথা। তিনি বলেছিলেন, ‘এখনো ৩০ ভাগ ম্যাচ হয়নি। আমি মনে করি না দেশিদের নিয়ে হতাশ হওয়ার কিছু আছে। বিপিএলে সর্বাধিক ১২ ফিফটির মালিক তামিম ইকবাল। তার পরেই ছিলেন ৮টি করে ফিফটি হাঁকিয়ে পাকিস্তানের আহমেদ শেহজাদ ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের মারলন স্যামুয়েলসের দ্বিতীয় ও তৃতীয় স্থানে। তবে গতকাল বাংলাদেশি ব্যাটসমানদের মধ্যে তামিমের পরই সর্বাধিক ৮ ফিফটির মালিক হন মুশফিকুর রহীম। এ আসরে অবশ্য এখন পর্যন্ত দেশিরা সবাই একটি করেই ফিফটির মালিক হয়েছেন। বিপিএলে এখন পর্যন্ত পাঁচ আসরে ৫৩ ম্যাচে ১২৯২ রান করে শীর্ষে উঠে এসেছেন দেশের টেস্ট অধিনায়ক সেরা উইকেট কিপার ব্যাটসম্যান মুশফিক। তার পরেই আছেন পাঁচ আসরের সেরা ব্যাটসম্যানদের তালিকার দ্বিতীয় স্থানে মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ। তার ব্যাট থেকে এসেছে ৫৭ ম্যাচে ১২৭৭ রান। ১০৬৯ রান করে তৃতীয় স্থানে তামিম ইকবাল, ১০৫১ রান করে চতুর্থ স্থানে সাকিব ও ১০৪৭ করে ইমরুল কায়েস পঞ্চম স্থানে উঠে এসেছেন।  
প্রথমবারের মতো বিপিএল শুরু হয়েছিল ঢাকার বাইরে সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে। প্রথমবারের মতো এ আসরেই পাঁচ বিদেশি ব্যাটসম্যান একাদশে খেলানোর সুযোগ পেয়েছিল দলগুলো। যে কারণে শুরু থেকেই ছিল বিদেশিদের দাপট। তামিম ইকবাল ইনজুরির কারণে খেলতে পারেননি শুরু থেকে। কিন্তু দেশের ব্যাটিং ভরসা সাব্বির রহমান, মুশফিক, সাকিব আল হাসান, মাহমদুল্লাহ, এনামুল হক, সৌম্য সরকার, ইমরুল কায়েস ও লিটন দাসরা ছিলেন একেবারেই ম্লান। বিশেষ করে সাব্বিরের ব্যাট থেকে প্রথম চার ম্যাচে আসে মাত্র ২২ রান। সেই সাব্বিরই শেষ পর্যন্ত সোমবার রংপুর রাইডার্সের বিপক্ষে খেলেন ৭০ রানের দারুণ এক ইনিংস। নাসির আগে কিছু রান পেলেও সেদিনই দেখা পান এ আসরে তার প্রথম ফিফটির। গতকাল সেই তালিকাতে যুক্ত হয়েছেন মাহমুদুল্লাহ ও মুশফিক। ৬ ম্যাচে ১৮৯ রান করে মাহমুদুল্লাহ গতকাল ৫ম স্থানে উঠেন আসেন। সমান ম্যাচে ২০১ রান করে ইমরুল চতুর্থ স্থানে রয়েছেন। তবে এখনো উপরের তিনজনই বিদেশি। ২১১ রান করে শীর্ষে আছেন ঢাকার ক্যারিবীয় তারকা এভিন লুইস। ৭ ম্যাাচে ১৩৩ করে সাব্বির রহমান জায়গা করে নিয়েছেন সেরা ১০ জনের মধ্যে। তার চেয়ে ১ রান বেশি করেছেন একই দলের নাসির হোসেন। খুলনার দুই ম্যাচে জয়ের নায়ক আরিফুল হকও সেরা দশে জায়গা করেছেন। ৬ ম্যাচে তার সংগ্রহ ১২৬ রান।
অন্যদিকে বল হাতে শুরু থেকেই দারুণ পাফরম্যান্স অব্যাহত রেখেছিলেন দেশীয়রা। এখনো সেই ধারা অব্যাহত রেখেছেন তারা। ১২ উইকেট নিয়ে বোলিং তালিকার শীর্ষে দেশের তরুণ আবু জায়েদ। তার পরেই আছেন আরেক তরুণ আবু হায়দার রনি। সেরা পাঁচ বোলারদের মধ্যে তৃতীয় স্থানে আছেন ৮ উইকেট নিয়ে আবুল হাসান রাজু। তবে সবাই পেসার। এখনো দেশীয় স্পিনাররা নিজেদেরকে আলোতে আনতে ব্যর্থ হয়েছেন। বিশেষ করে বিপিএলের এখন পর্যন্ত ৬৬ উইকেট নেয়া সাকিব আল হাসান ব্যাটিংয়ের পর বোলিংয়ে ধার দেখাতে পারেননি। সাত ম্যাচে তার শিকার মাত্র ৫ উইকেট।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

ভারতে তিন তালাক বিরোধী খসড়া আইনে সরকারের অনুমোদন

বিরোধীরা আসলেই কাগুজে বাঘ: মোজাম্মেল হক

গাংনী বিএনপি কার্যালয়ে ভাঙচুর, অগ্নিসংযোগ

মহান বিজয় দিবস আজ

চট্টলার সিংহপুরুষের বিদায়

রাজধানীতে বৃদ্ধা ও শিশু খুন

বাংলাদেশ জন্ম নিয়েছিল একটা আদর্শ নিয়ে

সবক্ষেত্রে চাই গুণগত সেবা

বিশ্বকাপে নিষিদ্ধ হতে পারে স্পেন!

কাদের-মওদুদকে ঘিরেই স্বপ্ন দু’দলের

শেষমুহূর্তে তৎপর বিএনপি

ট্রাম্প প্রশাসনের ধর্মীয় পক্ষপাতিত্ব

ইউপিডিএফ ভাঙার নেপথ্যে

মুক্তিযোদ্ধাকে হারিয়ে দুইয়ে শেখ জামাল

সারা দেশে বিএনপির প্রতিবাদ কর্মসূচি ১৮ ডিসেম্বর

যেভাবে অপহরণকারীদের হাত থেকে মুক্ত হলেন সিলেটের ব্যবসায়ী মুন্না