মাহেলা বদলে দিয়েছেন তাকে

খেলা

স্পোর্টস রিপোর্টার | ২২ নভেম্বর ২০১৭, বুধবার | সর্বশেষ আপডেট: ৯:২৫
খুলনার জিততে ১৮ বলে প্রয়োজন ৩৬ রান। টি-টোয়েন্টিতে এটি বড় কোনো বাধা নয়। কিন্তু হাতে তখন অবশিষ্ট মাত্র দুই উইকেট। কিন্তু খুলনাকে আর কোনো বিপদেই পড়তে দিলেন না রংপুরের ২৫ বয়সী ব্যাটসম্যান আরিফুল হক। চিটাগাং ভাইকিংসের বিপক্ষে খুলনার প্রথম জয়ের ম্যাচে খেলেছিলেন ৪০ রানের ইনিংস। এরপর ফের ভাইকিংসদের বিপক্ষে ৩৪ রানের ইনিংস খেলে দলের জয়ে ভূমিকা রাখেন।
আর গতকাল ১৯ বলে ঝড় তুলে ৪৩* রানে অপরাজিত থেকে দলকে জয় এনে দেন। হাঁকান ৪টি চারের সঙ্গে একটি ছক্কাও। এমন কঠিন মুহূর্তে কিভাবে সম্ভব করলেন তিনি? ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে এসে আরিফুল তার সেই মুহূর্তের লড়াইয়ের বর্ণনা তুলে ধরেন। মূলত আত্মবিশ্বাসের কারণেই তিনি পেরেছেন বলেই জানান। আরিফুল বলেন, ‘আমার বিশ্বাস ছিল যে আমি শেষ পর্যন্ত টানতে পারলে আমরা জিতব। আমার আত্মবিশ্বাস ছিল। আরেক পাশে জুনাইদ ভাই ছিলেন, উনি সাহায্য করেছেন। আরেকটা ব্যাপার ছিল, ফিল্ডার তখন অনেক বাইরে থাকে, মিস হিট হলেও দুই রান হওয়ার সুযোগ থাকে। এজন্য আমাদের কম্বিনেশনটাও সুন্দর হয়েছে।’
শুধু তাই নয়, বিদেশিদের কারণে আরিফুলকে বিপিএলে মাঠে নামতে হচ্ছে ৭ অথবা ৮ নাম্বারে। অথচ জাতীয় ক্রিকেট লীগে তাকে দেখা যায় মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান হিসেবেই। এবার জাতীয় লীগে অবশ্য ৭-এ নেমে তিনি রংপুরের হয়ে ১০০ রানের একটি অপরাজিত ইনিংস খেলেছেন। যেটি তাকে এ ম্যাচেও রান করার আত্মবিশ্বাস যুগিয়েছে। তিনি বলেন, ‘রিয়াদ ভাই অনেক সমর্থন দিচ্ছেন। বলেছেন যে শেষ মৌসুমে অনেক খেলা শেষ করে এসেছিস। অপরাজিত ছিলি বেশি, এবারো চিন্তা করবি অপরাজিত থাকার। এটা আমাকে সাহায্য করছে।’  যেমন তার আত্মবিশ্বাসের কারণে ম্যাচ জিতেছেন তেমনি ম্যাচ জিতানোর ফলে তা বেড়ে গেছে বহুগুণ। তিনি বলেন, ‘এভাবে মাচ জিতলে আসলে আত্মবিশ্বাস অনেক বেড়ে যায়। আবার এ রকম পরিস্থিতিতে পড়লে মনে পড়ে এভাবে ম্যাচ জিতিয়েছিলাম। এসব অনেক গুরুত্বপূর্ণ ব্যাপার পরের ম্যাচগুলোর জন্য।’
ক্রিকেটে আরিফুল হকের প্রিয় ফরমেটও টি-টোয়েন্টি। কারণ তার আছে শট খেলার সাহস। তিনি বলেন, ‘টি-টোয়েন্টি আমার প্রিয় খেলা। এই ফরম্যাটে ইনটেনসিটি অনেক হাই থাকে। এজন্য এই ফরম্যাট অনেক মজা লাগে।’ অবশ্য তার এমন ধুন্ধুমার ব্যাটিংয়ে আরো ধার দিয়েছেন দলের কোচ মাহেলা জয়াবর্ধনে। তাই কোচকে স্মরণ করতে ভোলেননি আরিফুল। তিনি বলেন, ‘আগে আমার ব্যালান্সে সমস্যা ছিল হয়তো। এবার মাহেলা আমার ব্যালান্স নিয়ে কাজ করেছেন। আমার বডিওয়েট হয়তো পেছনে যেত মারার সময়। এবার সেই জিনিসটি নিয়ে কাজ করেছেন মাহেলা। এতে আমার উপকার হয়েছে।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

‘নির্বাচনে না আসলে বিএনপির অস্তিত্ব বিপন্ন হবে’

নিখোঁজ প্রকৌশলীর মরদেহ উদ্ধার

মালিবাগে গুদামে আগুন

ওয়ালটনে প্রতিষ্ঠাতা নজরুল ইসলাম মারা গেছেন

সাবেক প্রক্টর কারাগারে, প্রতিবাদে অবরুদ্ধ চবি

আপন জুয়েলার্সের তিন মালিকের জামিন স্থগিত

এবারে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রশ্নপত্র ফাঁস

‘বিএনপি গণতন্ত্রে বিশ্বাস করেনা’

লেবাননে বৃটিশ কূটনীতিককে শ্বাসরোধ করে হত্যা

বিমানে দেখা এরশাদ-ফখরুলের

হলফনামার তথ্য গ্রহণযোগ্য নয়: সুজন

ছিনতাইকারীর টানাটানিতে মায়ের কোল থেকে পড়ে শিশুর মৃত্যু

গুজরাট ও হিমাচলে বিজেপিই জিততে চলেছে

আরো ৪০ রোহিঙ্গা গ্রাম ভস্মীভূত:  এইচআরডব্লিউ

ভর্তি জালিয়াতি সন্দেহে রাবির দুই ছাত্রলীগ নেতা আটক

‘এটাও কিন্তু একটা চ্যালেঞ্জের বিষয়’