‘পুরুষের চেয়ে নারীরা বেশি যৌন নিপীড়ক’

এক্সক্লুসিভ

মানবজমিন ডেস্ক | ২১ নভেম্বর ২০১৭, মঙ্গলবার | সর্বশেষ আপডেট: ১২:৪৩
পুরুষের চেয়ে নারীরা বেশি যৌন নিপীড়ক। যুক্তরাষ্ট্রে যৌন কেলেঙ্কারিতে অভিযুক্ত সিনেট প্রার্থী রয় মুরকে সমর্থন করে এমন মন্তব্য করেছেন সেখানকার একজন ধর্মযাজক। তিনি হলেন ক্যাপিটাল হিল ইন্ডিপেন্ডেন্ট ব্যাপ্টিস্ট মিনিস্ট্রিজ-এর যাজক ফ্রাঙ্কলিন র‌্যাডিশ। উল্লেখ্য, সম্প্রতি হলিউডের প্রযোজক হারভে উইন্সটেন, ওয়াশিংটনে শীর্ষ স্থানীয় কয়েকজন ব্যক্তি ও রয় মুরের বিরুদ্ধে টিনেজ বালিকাদের সঙ্গে যৌন নির্যাতন বা ধর্ষণের অভিযোগে তোলপাড় চলছে। আলাবামা রাজ্যে সিনেট পদে রিপাবলিকান দল থেকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন রং মুর। তার বিরুদ্ধে একের পর এক নারী যৌন নিপীড়নের অভিযোগ আনছেন।
এতে তাকে নির্বাচন থেকে সরে যেতে আহ্বান জোরালো হয়েছে। এ নিয়ে মন্তব্য করেন যাজক ফ্রাঙ্কলিন র‌্যাডিশ। তিনি এসব পুরুষের বিরুদ্ধে নারীদের যৌন নির্যাতনের অভিযোগকে ‘পুরুষের বিরুদ্ধে নারীদের যুদ্ধ’ হিসেবে আখ্যায়িত করেন। এএল ডট কম’কে তিনি বলেন, পুরুষরা যতটা যৌন নিপীড়ক, তার চেয়ে বেশি যৌন নিপীড়ক হলেন নারীরা। তার ভাষায়, নারীরা তরুণ-যুবকদের রাস্তায় যাওয়া-আসার পথে শিকারে পরিণত করেন। কিন্তু আমরা এসব বিষয়ে জানতে পারি না। কারণ, এ নিয়ে পুলিশে অভিযোগ করা হয় না। উল্লেখ্য, যুক্তরাষ্ট্রের আইন মন্ত্রণালয়ের পরিসংখ্যান বলে, সেখানে ধর্ষণ ও যৌন নির্যাতনের শিকারদের মধ্যে শতকরা ৯১ ভাগই নারী। বাকি ৯ ভাগ হলো পুরুষ। আলাবামা রাজ্যে সিনেটর প্রার্থী রয় মুরকে সমর্থন করে আগস্টে একটি চিঠি লিখেছেন প্রায় ৫০ জন যাজক। তারা রয় মুরের প্রচারণার পক্ষে কথা বলেছেন এতে। এর মধ্যে অন্যতম ফ্রাঙ্কলিন র‌্যাডিশ। এরই মধ্যে ৫ জন নারী সামনে এসেছেন। তারা বলেছেন, তারা যখন টিনেজ ছিলেন তখন    পৃষ্ঠা ১৭ কলাম ৪
তাদের সঙ্গে অশোভন আচরণ করেছেন মুর। ওই সময় মুরের বয়স ছিল ত্রিশের কোটায়। একজন নারী বলেছেন, তখন তার বয়স মাত্র ১৪ বছর। এটা আলাবামায় প্রাপ্ত বয়সসীমার অনেকটা নিচে। তার সঙ্গে যৌন সম্পর্ক স্থাপন করেছিলেন রয় মুর। তবে এসব অভিযোগ অস্বীকার করেছেন তিনি। বলেছেন, রাজনৈতিক উদ্দেশে এসব অভিযোগ আনা হচ্ছে। একটি ক্ষেত্রে তার বিরুদ্ধে অভিযোগকারীকে তো তিনি চেনেনই না বলে দাবি করেছেন। যেসব ধর্মযাজক রয় মুরকে সমর্থন করে চিঠি লিখেছিলেন তাদের সবার কাছে পৌঁছাতে পেরেছে এএল ডট কম এর সাংবাদিকরা। উদ্দেশ্য যাচাই করে দেখা আসলেই তারা রয় মুরকে সমর্থন করছেন কিনা। এ বিষয়ে এখন পর্যন্ত সাড়া দিয়েছে ২৯টি চার্চ। তার মধ্যে ১৯টি থেকে বলা হয়েছে সিনেট প্রার্থী হিসেবে রয় মুরকে সমর্থন করছেন তারা এখনও। তবে ম্যাগনোলিয়া স্প্রিং ব্যাপ্টিস্ট চার্চের যাজক ডেভিড গোনেলা এর আগে রিপাবলিকানদের দলকে একটি অদক্ষ মানুষের সংগঠন বলে আখ্যায়িত করেছিলেন। তিনি রয় মুরকে এর আগে পদত্যাগ করার আহ্বান জানিয়েছেন। কিন্তু ফক্স নিউজ ১০’কে তিনি বলেছেন, নিছক অভিযোগের প্রেক্ষিতে আমি আমার বন্ধুকে ত্যাগ করতে পারি না। আমার এজন্য প্রয়োজন প্রমাণ। তার বিরুদ্ধে যে অভিযোগ আনা হয়েছে তা হতে পারে খারাপ উদ্দেশ্যপ্রণোদিত। তিনি প্রশ্ন রাখেন, অভিযোগকারীরা কেন এত দশক এ অভিযোগ প্রকাশ করেন নি। ওদিকে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়াতে রয় মুরের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন ওয়াশিংটনের অনেক রিপাবলিকান। আগামী ১২ই ডিসেম্বর আলাবামায় সিনেট নির্বাচন। সেই নির্বাচনের আগে সময় থাকতে রয় মুরের পদত্যাগ দাবি করেছেন সিনেট সংখ্যাগরিষ্ঠ নেতা মিশ ম্যাকনেল, আলাবামার বর্তমান সিনেটর রিচার্ড শেলবি ও কংগ্রেসে রিপাবলিকান দলের এক ডজনেরও বেশি সদস্য। রয় মুরের নির্বাচনী প্রচারণায় তহবিল বরাদ্দ প্রত্যাহার করেছে রিপাবলিকান ন্যাশনাল কমিটি। তবে কোনো কিছুতেই মাথা নত করবেন না মুর।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

ভর্তি জালিয়াতি সন্দেহে রাবির দুই ছাত্রলীগ নেতা আটক

‘এটাও কিন্তু একটা চ্যালেঞ্জের বিষয়’

সৌদিই ব্যতিক্রম

তাদের কি বিবেক বলে কিছু নেই

ঢাকা উত্তরের উপনির্বাচন ফেব্রুয়ারিতে

যেভাবে উগ্রপন্থায় দীক্ষিত হয় আকায়েদ

স্বাস্থ্যসেবার ব্যয় মেটাতে দারিদ্র্যসীমার নিচে ৫ শতাংশ পরিবার

তারা মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসটাকে হাইজ্যাক করে ফেলেছে

কুয়ালালামপুর বিমানবন্দর থেকে ৬০০ কর্মকর্তা প্রত্যাহার

আরো বেড়েছে দেশি পিয়াজের দাম

সময় চাইলেন ‘অসুস্থ’ বাচ্চু

ঢাকার আকাশে ঝড়ের ঘনঘটা

বিএনপির প্রচারণায় বাধার অভিযোগ

বিএনপির বিজয় র‌্যালি

ব্যবহারে বংশের পরিচয়

‘উন্নয়ন কথামালায়, মানুষ কষ্টে আছে’